করোনা সংক্রমণে রেকর্ড বৃদ্ধি, বিশ্বে ৯ নম্বরে উঠে এলো ভারত

করোনা সংক্রমণে চিনকে ছাপিয়ে গেল ভারত, প্রকাশ্যে এল চাঞ্চল্যকর পরিসংখ্যান

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশে মার্চ থেকে জারি হয়েছে লকডাউন। দেখতে দেখতে লকডাউন এসে পৌঁছেছে চতুর্থ দফায়। এর পরও সংক্রমণ ছড়ানোর ক্ষেত্রে লাগাম টানা যাচ্ছে না। পরপর ৬ দিন দেশে রেকর্ড পরিমাণে বেড়েছে সংক্রমণ। গত ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে সংক্রমণ ধরা পড়েছে ৬৩৮৭ জনের শরীরে। যে কারণে দেশে মোট সংক্রমণ দাঁড়ালো ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৭৬৭।

টানা ৬ দিন দেশে যেভাবে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে তাতে দেখা গিয়েছে প্রতিদিনই সংক্রমণের সংখ্যা ৬ হাজারের বেশি। কোন কোন দিন আবার ৭০০০ ছুঁইছুঁই। এরপর দুদিন আগেই করোনার ব্যাপকতায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, রাশিয়া, ব্রিটেন, স্পেন, ইতালি, ফ্রান্স ও জার্মানির পর দশম স্থানে পৌঁছে যায় ভারত। আর এবার ব্যাপকতার হারে উঠে এলো ৯ নম্বর স্থানে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফ থেকে ২৬ শে মার্চ যে রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে তাতে দেখা গিয়েছে ভারত ফ্রান্সকেও টপকে উঠে এসেছে নবম স্থানে। যখন ভারতে সংক্রমণের সংখ্যা ছিল ১ লক্ষ ৪৫ হাজার ৩৮০। যদিও ২৭ তারিখ সকাল ৮ টায় ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে যে রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে তাতে সংক্রমনের সংখ্যা আরও বেড়ে গিয়েছে। বর্তমানে সংক্রমণের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৭৬৭।


আরও পড়ুন :- করোনা সংক্রমণে চিনকে ছাপিয়ে গেল ভারত, প্রকাশ্যে এল পরিসংখ্যান


২৬ শে মে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী তালিকায় প্রথমেই রয়েছে আমেরিকা। যেখানে মোট করোনা সংক্রামিত রোগী ১৬ লক্ষ ১৮ হাজার ৭৫৭ জন। তার পরেই রয়েছে ব্রাজিল, সংখ্যাটা ৩ লক্ষ ৬৩ হাজার ২১১। তৃতীয় স্থানে রাশিয়া, যেখানে সংখ্যাটা হল ৩ লক্ষ ৬২ হাজার ৩৪২। চতুর্থ স্থানে রয়েছে ইউনাইটেড কিংডম, সংখ্যাটা ২ লক্ষ ৬১ হাজার ১৮৮।

এক সময় বিপুল পরিমাণে সংক্রমণ ছড়িয়ে পরা স্পেন ও ইতালি যথাক্রমে পঞ্চম ও ষষ্ঠ স্থানে। স্পেনে মোট সংক্রামিত রোগ হলেন ২ লক্ষ ৩৫ হাজার ৪০০ আর ইতালিতে ২ লক্ষ ৩০ হাজার ১৫৮। জার্মানি রয়েছে সপ্তম স্থানে, যেখানে মোট সংক্রমণ ১ লক্ষ ৭৯ হাজার ০০২।


আরও পড়ুন :- বিশ্বের কোন দেশ WHO-কে কত টাকা দেয়, ভারতের কত দেয়?


তুর্কি রয়েছে অষ্টম স্থানে, মোট সংক্রমণ ১ লক্ষ ৫৭ হাজার ৮১৪। নবম স্থানে উঠে এলো ভারত। ২৬ শে মে ১,৪৫,৩৮০, ২৭ শে ১৫১৭৬৭। দশম স্থানে ফ্রান্স, মোট সংক্রমণ ১৪২৪৮২। গত দুদিনের রেকর্ড অনুযায়ী ফ্রান্সে সংক্রমণ বেড়েছে ২৭৮। সেখানে ভারতে বেড়েছে ৬৫৩৫ (২৬ শে মে)।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ২৬ শে মে’র রিপোর্ট