অ্যাম্বুল্যান্স-এ মরনাপন্ন রোগী, ২ কিমি ছুটে রাস্তা করে দিল ট্রাফিক কনস্টেবল

Hyderabad policeman runs 2 km to make way for ambulance
Hyderabad policeman runs 2 km to make way for ambulance

অনেকেই মনে করেন পুলিশকর্মীদের(Police) মধ্যে মানবিকতার অভাব থাকে।কিন্তু মানুষের এই ভাবনাকে বারেবারে ভুল প্রমাণ করে চলেছেন কিছু পুলিশকর্মীরা। আবারও একবার পুলিশের মানবিকতার প্রমাণ দিলেন হায়দ্রাবাদের(Haydrabad) ট্রাফিক কনস্টেবল(Traffic Constable) জি বাবজি(G.Babji)।

ঘটনাটি ঘটে হায়দরাবাদের কোটি এলাকার ব্যাঙ্ক স্ট্রিটে।যানজটে আটকে পড়ে অ্যাম্বুল্যান্স(Ambulence),যার ভেতর ছিলেন এক মরণাপন্ন রোগী।সেই অ্যাম্বুল্যান্সকে রাস্তা করে জ্যাম থেকে বার করতে ২ কিলোমিটার রাস্তা ছুটলেন এই কনস্টেবল। তার এই দায়িত্ব জ্ঞান এবং মানবতাকে কুর্নিশ জানাচ্ছে গোটা ভারতবর্ষ।

জ্যামে আটকানো অ্যাম্বুল্যান্সকে বার করে রোগীকে বাঁচানোর জন্য অ্যাম্বুল্যান্সের আগে আগে ছুটে আগের গাড়ি, বাইক সকলকে তিনি আর্জি জানালেন রাস্তা ফাঁকা করার জন্য।মাত্র কিছুক্ষণের মধ্যেই রাস্তার জ্যাম পেরিয়ে রোগীকে নিয়ে হাসপাতালের দিকে ছুটলো অ্যাম্বুল্যান্স।

কনস্টেবল জি বাবজির এই ভিডিও প্রকাশ করা হয় সোশ্যাল মিডিয়া(Social Media)।সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হওয়ার পরেই কিছুক্ষণের মধ্যেই তা ভাইরাল হয়ে যায়।সাধারণ মানুষের পাশাপাশি তার এই কাজের প্রসংশা করেছে হায়দরাবাদ পুলিসও।হায়দরাবাদ পুলিসের অফিশিয়াল ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে এই ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে।

অনেকেই জি বাবজির মতন মানুষদের সমাজের গর্ব বলে সন্মোধন করেছেন। সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে তাকে।অনেকের তার মতন পুলিশকর্মীদের জন্যই সমাজে এখনও পুলিশের পেশাকে সন্মান করা হয়।

বাবজি জানিয়েছেন, তাঁর ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর বহু মানুষ তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন, এতে তিনি ভীষণ খুশি। রোগী কে ছিলেন তিনি জানেন না, কোন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, সে সম্পর্কেও ধারণা নেই। এমন নিঃস্বার্থ কাজের জন্য বৃহস্পতিবার জি বাবজিকে পুরস্কৃত করল হায়দরাবাদ পুলিশ।