টলিউডে ডেবিউ করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! এই ছবিতে করবেন সঙ্গীত পরিচালনা

আসছে নতুন বাংলা ছবি, ছবির সুরকার খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! জল্পনা তুঙ্গে

সম্প্রতি বঙ্গসম্মান পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) নিজের সম্পর্কে বলতে গিয়ে বলেন, “আমি নিজে কোনও পারিশ্রমিক নিই না। আমি যা করি নিজের টাকায়। আমি খেটে উপার্জন করি। আমি বই লিখি, গানে সুর দিই”। মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য থেকেই আগামী ছবির ভাবনা ভেবে ফেললেন টলিউড পরিচালক হৃষিকেশ মন্ডল (Hrishikesh Mondal)। গত চার বছর ধরে যে ছবির কাজ থমকে রয়েছে, হাজার বাধা এসেছে, এবার সেই ছবি নিয়ে নড়েচড়ে বসেছেন পরিচালক।

হৃষিকেশ মন্ডল টলিউডের একজন নামী ব্যক্তিত্ব। বলিউডে রানু মন্ডলের জীবনী নিয়ে ছবি হচ্ছে তারই পরিচালনায়। এবার তিনি তার স্বপ্নের প্রজেক্ট ‘মুখ্যমন্ত্রীর জুতো চোর’ পর্দায় আনার তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছেন। এই ছবি নিয়ে পরিচালকের স্বপ্ন অনেক বড়। তিনি চান তার ছবিতে মমতার ভূমিকায় থাকুন রূপা গাঙ্গুলী।

ছবিতে গানের সুর দেবেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী! যদিও তার এই ছবিকে ছাড়পত্র দিতে চাইছে না টলিউডের ছবি সংগঠন ইম্পা। ইম্পার সভাপতি পিয়া সেনগুপ্ত তাকে বারবার নিষেধ করেন, “এই ছবি করিস না! পেশা জীবনে ঝড় উঠবে”। তবে পরিচালক মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য শুনে অভিভূত। তিনি নিশ্চিত করে ফেলেছেন এই ছবি তিনি আনবেনই।

প্রয়োজনে বলিউডের বিএফটিসিসির দ্বারস্থ হয়ে অনুমোদন আদায় করে হিন্দিতেও ছবি বানাতে পারেন তিনি। আনন্দবাজারকে পরিচালক ছবির গল্প সম্পর্কে জানিয়েছেন। এই ছবিতে আচমকাই মুখ্যমন্ত্রীর জুতো চুরি হয়ে যাবে। সেই জুতো পাবে রাস্তার এক কাগজকুড়ানি। জুতোজোড়া বিক্রি না করে নিজের কাছে রেখে সে ক্রমশ প্রভাবশালী হয়ে ওঠে। এদিকে মুখ্যমন্ত্রী ভাবেন তার বিরোধীপক্ষরাই জুতো চুরি করেছে।

তারপর কী হবে? উত্তর রয়েছে ছবিতে। নীল সাদা হাওয়াই চপ্পল, দার্জিলিং এবং নবান্ন নিয়ে পোস্টারও বানিয়ে ফেলেছেন পরিচালক। এখন ছবির গান লিখে দেওয়ার এবং সুর দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ যাওয়া বাকি। সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর সম্মতিটাও তো গুরুত্বপূর্ণ।

পরিচালকের কথায়, ‘‘এই ছবির সঙ্গীত পরিচালনার দ্বায়িত্ব আমি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দিতে চাই। পরিবর্তে আমার ক্ষমতা অনুযায়ী সাম্মানিক দেব। সেই সাম্মানিক মুখ্যমন্ত্রীর কাজে লাগলে জীবন সার্থক।’’