সময় বাঁচবে, বাঁচবে খাবারও, ১৫ মিনিটে বাসি রুটি দিয়ে বানান মজাদার জলখাবার

বাসি রুটি ফেলে না দিয়ে বানান মুখরাচক জলখাবার, আট থেকে আশি সবাই হবে খুশি

বাঙালি শুধুই ভেতো নয়, অনেকেই স্বাস্থ্যের খাতিরে একবেলা ভাত এবং রাতে রুটি দিয়ে উদরপূর্তি করছেন। অনেক সময় দেখা যায় রাতে সকলের খাওয়ার পরেও বেশ কয়েকটি রুটি বেঁচে গিয়েছে। এখন সকালে উঠে রুটি ফেলে দেবেন নাকি বাসি রুটি দিয়েই বানিয়ে নেবেন মুখরোচক জলখাবার? শিখে নিন বাসি রুটি দিয়ে কিভাবে ছোট ছোট পিৎজ্জা (Mini Pizza By Leftover Bread) বানিয়ে জলখাবারে পরিবেশন করা যায় তার অভিনব এক রেসিপি।

বাসি রুটির ব্যবহারে নতুন জলখাবার বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ : বাড়িতে এই হেলদি টেস্টে জলখাবার বানানোর জন্য সময় এবং উপকরণ খুব কমই লাগে। বাসি রুটি দিয়ে মিনি পিজ্জা বানানোর জন্য প্রয়োজন হবে রুটি, সুতো, পেঁয়াজকুচি, ক্যাপসিকাম কুচি, বেবি কর্ন, গাজর কুচি, সেদ্ধ আলু, মেয়োনিজ, টমেটো, সস, চিজ, লঙ্কা গুঁড়ো।

জলখাবার বানানোর পদ্ধতি : প্রথমে রুটিগুলোকে একটা গ্লাসের মাঝে রেখে তার চারপাশ সুতো দিয়ে ভালো করে বেঁধে নিন ঠিক ছবির মত করে। এইভাবে ছোট কৌটোর আকারের রুটিগুলো গ্লাসসহ ডুবো তেলে ভেজে নিন। রুটিগুলোকে একটু লালচে করে ভেজে নিতে হবে।

এইভাবে রুটি ভেজে নেওয়ার পর ঠান্ডা হওয়ার জন্য অপেক্ষা করুন। তারপর সুতো কেটে গ্লাস থেকে রুটি আলাদা করলেই ছোট্ট ছোট্ট রুটির কৌটো তৈরি হয়ে যাবে। এই ছোট ছোট রুটির কৌটোর মধ্যে এবার ভরা হবে সবজির পুর। তাই রান্নার পরবর্তী ধাপে সবজির পুর তৈরি করে নিতে হবে।

পরের ধাপে ছোট্ট রুটির কৌটোর মধ্যে সেদ্ধ আলুর কুচি, পেঁয়াজ কুচি, ক্যাপসিকাম কুচি, গাজর কুচি, বেবি কর্ন দিন। এরপর সমস্ত সবজি দেওয়া হয়ে গেলে উপর থেকে মেয়োনিজ, টমেটো কেচাপ দিয়ে সবশেষে চিজ গ্রেট করে দিন। উপর থেকে ছড়িয়ে দিন লঙ্কার গুঁড়ো।

এইবার একটি বড় পাত্রের মধ্যে জল নিয়ে উপরে কোনও কিছু একটা স্ট্যান্ড দিয়ে তার উপর রুটির ছোট্ট পিৎজ্জাগুলো রেখে দিন। ১০ মিনিট এইভাবে ভাপিয়ে নিলেই রুটির মিনি পিৎজ্জা তৈরি হয়ে যাবে। বাচ্চারা তো বটেই, বাড়ির বয়স্করাও বেশ মজা করেই খাবেন এই নতুন ধরনের জল খাবার।