ভারতের নাগরিকত্ব পেতে Online-এ আবেদন করুন এইভাবে

লোকসভায় পাশ হওয়া CAB এখন রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরে CAA তে অর্থাৎ আইনে পরিণত হয়েছে। কিন্তু তারপরেও CAA ও NRC নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সরব গোটা দেশ, নানান জায়গায় দেখা যাচ্ছে সাধারণ মানুষ ও নেতা নেত্রীদের বিক্ষোভ। অসমে NRC হওয়ার ফলে প্রায় ১৯ লক্ষ মানুষ নাগরিকতা থেকে বাদ পড়েছেন। বিক্ষোভকারীদের ভয়, কেন্দ্র সরকারের এই দুই সিদ্ধান্তে নাগরিকতা কেড়ে নেওয়া হবে মানুষের। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক ভারতের নাগরিক হিসেবে কারা কারা বিবেচিত হবেন।

 কোন ব্যক্তি যদি ২৬ শে জানুয়ারি ১৯৫০ অথবা তারপর থেকে ১লা জুলাই ১৯৮৭ সালের মধ্যে ভারতে জন্মগ্রহণ করে থাকেন তাহলে তিনি প্রাকৃতিক নিয়মেই ভারতের নাগরিক।

যদি কোন ব্যক্তি ১লা জুলাই ১৯৮৭ অথবা তারপরে থেকে ৩ রা ডিসেম্বর ২০০৪ এর মধ্যে ভারতে জন্মগ্রহণ করে থাকেন। আর তার বাবা-মা কেউ একজন ভারতের নাগরিক হয়ে থাকলে তিনিও ভারতের নাগরিক।

কোন ব্যক্তি যদি ৩ রা ডিসেম্বর ২০০৪ তারিখে অথবা তারপরে জন্মগ্রহণ করে থাকেন। আর সেই ব্যক্তির বাবা অথবা মায়ের মধ্যে যেকোনো একজন ভারতীয় নাগরিক হয়ে থাকেন, অন্যজন বেআইনি অনুপ্রবেশকারী নাহলে ওই ব্যক্তি ভারতীয় নাগরিক হিসেবে বিবেচিত হবেন।

কোন ব্যক্তির যদি বিদেশে জন্ম হয়ে থাকে তাহলেও তিনি ভারতীয় হিসেবে বিবেচিত হবেন, যদি তার বাবা জন্মসূত্রে ভারতীয় হয়। এক্ষেত্রে যে নিয়ম রয়েছে তাতে বলা হয়েছে, ১৯৫০ সালের ২৬ শে জানুয়ারি বা তার পর ও ১০ই ডিসেম্বর ১৯৯২ বা তার আগে বিদেশে জন্মগ্রহণ করলে সেই ব্যক্তিকে ভারতীয় নাগরিক হিসেবে বিবেচিত হবার জন্য তার বাবাকে জন্মসূত্রে ভারতীয় হতে হবে।

২০০৪ সালের ৩ রা ডিসেম্বর অথবা তারপর কোন ব্যক্তি যদি দেশে জন্মগ্রহণ করেন তাহলে তিনি ভারতীয় বলে বিবেচিত হবেন না। যদি না হলফনামা দিয়ে ওই ব্যক্তির বাবা মা জানান যে তাঁদের সন্তানের বিদেশি পাসপোর্ট নেই। এ ছাড়াও ওই শিশুটি বিদেশে জন্ম নেওয়ার এক বছরের মধ্যে স্থানীয় ভারতীয় কনসুলেটে তার নাম নথিভুক্ত করতে হবে।

আরও পড়ুন CAA আর NRC এর মধ্যে পার্থক্য কি? সহজ ভাষায় বুঝে নিন

২০১৯ সালে পাশ হওয়া নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন অনুযায়ী বর্তমানে ভারতের তিনটি প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশ, আফগানিস্থান ও পাকিস্থান, যে দেশগুলিতে মূলত মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষের বাস, সেই দেশে মুসলিম ছাড়া বাকি সংখ্যা লঘিষ্ঠ ধর্মের (হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পারসি ও খ্রিষ্টানদের) ভারতীয় নাগরিকত্ব দেবে সরকার। তবে এর মানে এই না যে অন্যান্য
দেশের মানুষরা নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবেন না। নির্দিষ্ট পদ্ধতি অবলম্বন করে তারাও আবেদন করতে পারে। এই নতুন আইন অনুসারে যারা বিগত ৮ বছরের মধ্যে ৬ বছর ভারত ভূখণ্ডে আছেন তারাই আবেদন করতে পারবেন।

এই আইনের ক্ষেত্রে মানুষের সবথেকে বড় প্রশ্ন নথি নিয়ে। অর্থাৎ কি কি নথি প্রয়োজন ভারতের নাগরিক হওয়ার জন্য। এই প্রশ্নের উত্তর আছে

indiancitizenshiponline.nic.in ওয়েবসাইটে বিস্তারিত ভাবে বলা আছে। আবেদনকারীর বৈধ বিদেশী পাসপোর্ট, বৈধ আবাসিক অনুমতি ও মা-বাবার জন্ম তারিখের প্রমাণ এবং আবেদনকারীর পাসপোর্ট থাকা প্রয়োজন।

আরও পড়ুন কারা ভারতের নাগরিক, কারা নন! কি বলছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

অনলাইনে নাগরিকত্বের আবেদনের জন্য আপনাকে প্রথমেই আপনাকে (https://indiancitizenshiponline.nic.in/) ওয়েবসাইটে যেতে হবে। তারপর বিভিন্ন অপশন থেকে বেছে নিন কিসের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে চান। তারপর Apply Online অপশনে ক্লিক করে যে পেজ খুলবে যেখানে প্রয়োজনীয় তথ্য (নিজের, নিজের মা বাবার, বৈবাহিক জীবনের তথ্য, পাসপোর্ট সংক্রান্ত তথ্য ইত্যাদি) দিতে হবে ও তারপর ‘Save and Next’ অপশনে ক্লিক করুন। তারপর যে পেজ খুলবে সেখানে ঠিকানা সম্পর্কিত তথ্য, তার পরে পরিবার সম্পর্কিত তথ্য ও শেষ পেজে উল্লেখ করতে হবে যে আবেদনকারীর বিরুদ্ধে কোনো ফৌজদারি মামলা আছে কিনা। এইসকল কাজ শেষে পরের পেজে নিজের ছবি আপলোড করে পেমেন্ট করতে হবে।