রান্নায় চাইলে মা-ঠাকুমার হাতের স্বাদ, মানতেই হবে এই ১০টি টিপস

যেকোনও রান্নাও হবে সুস্বাদু, কেবল মাথায় রাখুন দিদা-ঠাকুমাদের বলে যাওয়া কিছু জরুরী টিপস

How to Cook Properly to Make Tasty Food

ভাত রান্না করতে গিয়ে গলে গিয়েছে? বা তরকারিটা রান্নার পর কেমন যেন কালচে লাগছে? কি করবেন ভেবে পাচ্ছেন না। অথচ এই সমস্যা দূর করার সমাধানের রাস্তাটাও আপনার অজানা। চিন্তা কিসের যখন হাতের কাছেই রয়েছে মা-ঠাকুমাদের দারুণ কিছু কিচেন টিপস? ভাত রান্নার পদ্ধতি হোক, তরকারি বা মাংস রান্নার সময় শুধু মাথায় রাখুন এই টিপসগুলো (Kitchen Tips)। রান্না নিখুঁত হবেই।

ভাত এবং সবজি রান্নার সঠিক উপায় : করার জন্য যখন রান্নাঘরে ঢুকছেন তখনই মাথায় রাখুন কিছু টিপস। যেমন ভাত রান্নার আগে চাল ধুয়ে ১০ মিনিট রেখে দিন। এরপর ভাত রান্না করার সময় এর মধ্যে এক চা চামচ পরিমাণ সরষের তেল মিশিয়ে রান্না হতে দিন। তাহলেই ভাত হবে ঝরঝরে, গলে যাবে না। আবার সবজিতে সবুজ রং ধরে রাখতে হলে তেলের উপর এক চিমটে চিনি দিয়ে দিন। তাহলেই সুস্বাদু হওয়ার পাশাপাশি লোভনীয় দেখতে লাগবে সাধারণ সবজি।

রান্নাতে কর্নফ্লাওয়ারের ব্যবহার : তরকারি যদি খুব বেশি পাতলা হয়ে গিয়ে থাকে তাহলে ঘন করতে ব্যবহার করুন কর্নফ্লাওয়ার। এরজন্য একটি পাত্রে অল্প একটু জলের মধ্যে কর্নফ্লাওয়ার গুলে তরকারিতে মিশিয়ে নিন। তরকারি রান্নার সময় খেয়াল রাখবেন যেন সবসময় গরম জলই ব্যবহার হয়।

রান্নাতে অতিরিক্ত তেল কমানোর উপায় : যদি দেখেন কোনও কিছু ভাজতে গিয়ে তেলটা বেশি হয়ে গিয়েছে তখন ভাজাটা কড়াইয়ের একদিকে সরিয়ে কড়াইটা অল্প কাত করে নিন। এবার ভাজা থেকে সব তেল ঝরে গেলে সেটা তুলে অন্য পাত্রে রেখে দিন। মাছ রান্না হয়ে গেলে উপর থেকে ধনে পাতা কুচি ছড়িয়ে দিলে রান্নার স্বাদ সুন্দর হবে।

Mughlai Handy Chicken

মাংস হোক আরও সুস্বাদু : মাংস রান্না করবেন তখন তার মধ্যে অবশ্যই কয়েকটা কাঁচা পেঁপের টুকরো দিয়ে দেবেন। এতে মাংস তাড়াতাড়ি সেদ্ধ হয়। মুরগির মাংস বা মেটে রান্নার সময় এক চা চামচ ভিনিগার মিশিয়ে দিন। এতে মাংসের গন্ধ দূর হয়ে যায়। রেজালা বা দোপেঁয়াজা জাতীয় রান্নার ক্ষেত্রে লবণ বেশি হয়ে গেলে একটি পাত্রে টক দই এবং চিনি একসঙ্গে ফেটিয়ে রান্নাতে মিশিয়ে দিন।

রান্নার খুঁটিনাটি : বেরেস্তা ভাজার সময় অল্প জলের ছিটে দিয়ে দেবেন। এতে বেরেস্তাতে তাড়াতাড়ি লালচে রং ধরে যাবে।

  • ডাল রান্নার জন্য আগের দিন রাতে ভিজিয়ে রেখে পরের দিন রান্না করলে তাড়াতাড়ি হবে। ডাল সেদ্ধ করে উপর থেকে সামান্য রসুন ভাজা তেল দিলে রান্না হবে তাড়াতাড়ি আবার ডাল হবে সুস্বাদু।
  • স্যুপ যদি ঘন করতে চান তাহলে একটু সেদ্ধ আলু ম্যাশ করে এর মধ্যে মিশিয়ে নিন।
  • ডিম সেদ্ধ করার সময় জলের মধ্যে অল্প একটু লবণ দিন। এতে খোসা ছাড়াতে সুবিধা হয়।
  • মশলার কৌটোর গায়ে নাম লিখে রাখলে খুঁজতে সুবিধা হবে আপনারই।
  • আর রাতেই ঠিক করে রাখুন আগামী দিনের সকালে কী কী রান্না হবে।