আপনার পছন্দের টিভি চ্যানেল বাছবেন কীভাবে?

আগে টিভি দেখার জন্য গ্রাহকদের প্রতি মাসে একটি নির্দিষ্ট টাকা প্রদান করতে হত কেবল অপারেটর অথবা ডিটিএইচ সংস্থাগুলিকে। ওই নির্দিষ্ট টাকার বদলে অনেকগুলি চ্যানেল দেখতে পেত গ্রাহকেরা। ডিটিএইচ ব্যবহারকারীরা রিচার্জ না করলেও ফ্রি টু এয়ার চ্যানেলগুলি দেখতে পেতেন। কিন্তু আগামী পয়লা ফেব্রুয়ারি থেকে ফ্রী বলে কোন চ্যানেল আর থাকবে না। আপনাকে সমস্ত চ্যানেল এর জন্যই কিছু না কিছু মূল্য প্রদান করতেই হবে। ট্রাই-এর বক্তব্য অনুযায়ী এই নতুন নিয়মে দর্শকদের চ্যানেল বেছে নেওয়ার স্বাধীনতা রয়েছে পূর্ণাঙ্গ।

যেটা আগেই বলা হচ্ছিল অর্থাৎ গত ডিসেম্বর মাসে যা বলা হয়েছিল, ফ্রী বলে আর কোন চ্যানেল থাকছে না, কোন না কোন কিছু দেখার জন্য মাসে অন্ততপক্ষে ১৫৩ টাকা গ্রাহককে দিতেই হবে। এই ১৫৩ টাকার মধ্যে যে ১০০ টি ফ্রি টু এয়ার চ্যানেল দেখতে পাওয়া যাবে সেগুলি দর্শকদের আগামী ৩১ শে জানুয়ারির মধ্যেই বেছে নিতে হবে।

সূত্রের খবর, জিএসটি সহ এই ১৫৩ টাকার চ্যানেল গুলির মধ্যে কোন এইচডি চ্যানেল থাকছে না। অন্যদিকে বেশকিছু খবরে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী ওই টাকাতে এইচডি চ্যানেলও বেছে নিতে পারেন দর্শকরা বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু একটি এইচডি চ্যানেলকে দুটি নন এইচডি অর্থাৎ এসডি চ্যানেলের সমান গণ্য করা হবে। যদিও এ বিষয়ে দর্শকেরা তাদের সংস্থার সাথে আগেই যোগাযোগ করে নিতে পারেন।

অন্যদিকে এই নতুন নিয়মের বিষয়টি সকল দর্শকদের জানানোর জন্য প্রায় ১২ ই জানুয়ারি এসএমএস প্রদান করেন দেশের গ্রাহকদের মোবাইল নাম্বারে। এই এসএমএস এর মাধ্যমে ট্রাই দর্শকদের এই নতুন নিয়মের বার্তা প্রদান করছে। এছাড়াও ট্রাইয়ের তরফে দুটি হেল্পলাইনও চালু করা হয়েছে 011-23220209 এবং 011-23237922.

দ্য টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া বা ট্রাই সম্প্রতি জানিয়েছে, কেবল টিভির ক্ষেত্রে গ্রাহক নিজের পছন্দ অনুযায়ী ১০০টি কিমবা তার বেশি চ্যানেল বেছে নিতে পারবেন। এবং তার জন্য সম্প্রচারক নির্ধারিত মূল্য দিতে হবে গ্রাহককে। নতুন নিয়ম লাগু হচ্ছে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের পয়লা তারিখ থেকে।

ট্রাই-এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে দর্শকদের একটি চ্যানেলের জন্য সর্বাধিক ১৯ টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে। এছাড়াও একটি প্যাকেজে অনেকগুলি চ্যানেল থাকলেও প্রতিটি চ্যানেলের আলাদা আলাদা মূল্য নির্ধারণ করতে হবে। যাতে করে দর্শকেরা স্বতন্ত্রভাবে তাদের পছন্দের চ্যানেলটি বেছে নিতে পারে। কেবল অপারেটর অথবা ডিটিএইচ সংস্থাগুলি যেন দর্শকদের উপর কোন রকম বাধ্যবাধকতা চাপিয়ে দিতে না পারে। আখি এই নিয়ম ২৯ শে ডিসেম্বর শুরু হওয়ার কথা থাকলেও পরে তার পয়লা ফেব্রুয়ারি করা হয়েছে।

মাসিক বিল কত হতে পারে ?

 ১০০টি বেসিক এসডি চ্যানেলের জন্য আপনার ন্যূনতম বিল হতে পারে মাসিক ১৩০ টাকা। প্রত্যেক ভাষার জন্যই ট্রাই তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে কিছু পরামর্শ দিয়েছে, কোন অফার নিলে আপনার ট্যাঁকের পক্ষে সহজ হবে সেই সংক্রান্ত। হিন্দিভাষীদের জন্য করসমেত ১৮৪টাকায় একটি প্যাকেজ পাওয়া যাবে, যেখানে থাকছে ২৫টি পেইড, ৫০টি ফ্রি এবং ২৫টি দূরদর্শন চ্যানেল।

নতুন নিয়মে কতগুলি চ্যানেল দেখা যাবে?

মনে করুন, আপনি ১০০টি ফ্রি চ্যানেল নিয়েছেন ন্যূনতম ১৩০ টাকার প্যাকেজে। সেক্ষেত্রে আপনি সর্বাধিক ২৫টি বাড়তি চ্যানেল নিতে পারেন। ২৫টি বাড়তি চ্যানেলের জন্য দিতে হবে ২০টাকা। এছাড়া ২৫টি চ্যানেলের নির্ধারিত মূল্য এবং তার সঙ্গে ১৮ % জিএসটি।

চ্যানেলের দাম জানবেন কীভাবে?

ট্রাই-এর নিজস্ব ওয়েবসাইট  channeltariff.trai.gov.in এ গেলে সমস্ত পেইড চ্যানেলের দামের তালিকা পাওয়া যাবে। তবে কোনো চ্যানেলের দামের একটি  উর্ধসীমা বেঁধে দিয়েছে ট্রাই। সেটি ১৯ টাকা। অর্থাৎ একটি চ্যানেলের দাম ১৯ টাকার বেশি হতে পারবে না।

কিভাবে চ্যানেল বাছবেন?

চ্যানেল বাছা এবং সেগুলিকে নির্ধারণ করার জন্য ট্রাই-এর তরফ থেকে ৪ টি লিংক দেওয়া হয়েছে। যে গুলি হল-

১) https://channeltariff.trai.gov.in/data/List_of_FTA_Channels.pdf

এই লিংকে আপনি পাবেন ফ্রি টু এয়ার চ্যানেলগুলি। প্রথমেই এই লিংক থেকে আপনাকে বেছে নিতে হবে ১০০ টি চ্যানেল, যেগুলি আপনি ফ্রি টু এয়ার হিসাবে জিএসটি ১৫৩ টাকায় প্রতি মাসে পাবেন।

২) https://channeltariff.trai.gov.in/data/Bouquets27122018.pdf

এই লিঙ্কে ক্লিক করে আপনি চ্যানেলের লিস্ট পেয়ে যাবেন। সেগুলি এখানে গ্রুপ হিসাবে আছে এবং তাদের মূল্য রয়েছে।

৩) https://channeltariff.trai.gov.in/data/MRP_of_Pay_Channels.pdf

এই লিঙ্কেকেও দেওয়া হয়েছে চ্যানেলের একটি লিস্ট। যে লিস্টে চ্যানেলের পিছনে সর্বাধিক খরচ জানতে পেরে বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দের চ্যানেল।

৪) https://channeltariff.trai.gov.in/data/SuggestiveBouquet19122018.pdf 

এই লিংকটি এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে আপনার যদি চ্যানেল বাছতে অসুবিধা হয় তাহলে সাহায্য করবে।