কীভাবে আধার কার্ডের স্টেটাস জানবেন এবং ডাউনলোড করবেন ?

ব্যাঙ্কের খাতা খোলা থেকে গ্যাসের সিলিন্ডার নেওয়ার ক্ষেত্রে, ট্রেনের টিকিট সংরক্ষণ থেকে তৎকাল বুকিং সবেতেই অত্যন্ত প্রয়োজনীয় হয়ে উঠছে আধার কার্ড। আর তাই আধার কার্ডের গুরুত্ব এখন ভোটার কার্ডের চেয়ে কোন অংশে কম নয়। কিন্তু আধার কার্ড অনেক ক্ষেত্রে ভোটার কার্ডের গুরুত্বকেও  ছাপিয়ে গিয়েছে। আর যাদের কাছে নেই বা যারা কোন কারনে আধার কার্ড করাতে পারেন নি তারা অবশ্যই নিকটবর্তী আধার সহায়ক সেন্টারে গিয়ে আধার কার্ডের জন্য অবশ্যই নাম নথিভুক্ত বা এনরোলমেন্ট করেছেন। কিন্তু নাম নথিভুক্ত করলেই তো আর হাতে পাচ্ছেন না আধার কার্ড।
আর তাই  কত দিন পর আপনি আপনার আধার কার্ড পাবেন বা বর্তমানে আপনার নথিভুক্ত করা আধার কার্ডের বর্তমান অবস্থা কীরূপ তা জানবেন কীভাবে তা নিয়ে আলোচনা করব। কারণ আধার কার্ডের গুরুত্ব আমরা সকলেই বুঝি।আর তাই চাই যারা আধার কার্ড পাওয়ার জন্য নাম নথিভুক্ত করেছেন তারা যেন তা অতি সত্বর তা পেয়ে যান, বা জানতেও পারেন কত তাড়াতাড়ি আপনি তা পাবেন।

বর্তমানে অনলাইন ব্যবস্থার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই ঘরে বসে জানতে পারেন আপনার আবেদন করা আধার কার্ডের বর্তমান অবস্থা বা স্ট্যাটাস কী।এরজন্য যা আপনাকে করতে হবে তা হল, আধার কার্ডের বর্তমান স্ট্যাটাস অর্থাৎ যারা এখনও হাতে আধার কার্ড পান নি কিন্তু পাওয়ার জন্য আবেদন করেছেন এবং তার জন্য নাম নথিভুক্ত করেছেন এবং বায়োমেট্রিক তথ্য দিয়ে দিয়েছেন তাদের জন্য প্রথমেই যা দরকার হল তা হল এনরোলমেন্ট নাম্বার  বা নথিভুক্তকরণ নাম্বার।

এরপর আপনাকে যেতে হবে আধারের সরকারি ওয়েবসাইট বা UIDAI  পোর্টালে বা ওয়েবসাইটে। আপনাদের সুবিধার্থে এই ওয়েবসাইটটি জানিয়ে দিচ্ছি তা হল  uidai.gov.in.


এই ওয়েবসাইটে গিয়ে ক্লিক করলে উপরের দিকে অংশে অনেকগুলি অপশন পাবেন। যাদের মধ্যে  একটি অপশন থাকবে” check Aadhaar Status”

এই অপশনে ক্লিক করলে আপনি পৌঁছে যাবেন check Aadhaar Status নামের ওয়েব পেজে।
এই ওয়েব পেজ এলে আপনাকে আপনার কাছে থাকা ১৪ সংখ্যার এনরোলমেন্ট নাম্বার  জানাতে হবে।তার সাথে আপনি যে সময় আপনার আধার এনরোলমেন্ট করেছিলেন সেই নির্দিষ্ট তারিখ এবং  সময় দিন ,মাস ,বছর ,এবং ঘন্টা ,মিনিট, সেকেন্ডের সূক্ষ হিসেবে বসাতে হবে।যা কিন্তু আপনার কাছে থাকা এনরোলমেন্ট কাগজেই দেওয়া আছে।

আরও পড়ুন : সময় থাকতে এই ৬ ডকুমেন্ট আধার লিংক করিয়ে নিন এবং জেনে নিন কিভাবে করবেন

    • তারপর আপনি নির্দিষ্ট জায়গায় সিকিউরিটি কোড বসাবেন।এবং তারপর আপনি ক্লিক করবেন” Check Statas”অপশনে।
    • ক্লিক করলেই আপনার আধার কার্ডের বর্তমান স্ট্যাটাসের কথা কম্পিউটার বা মোবাইল স্ক্রিনে ভেসে উঠবে।
    • যদি স্ট্যাটাসে দেখেন যে আপনার নামে আধার কার্ড ইস্যু করা হয়ে গিয়েছে ,তাহলে তা আপনি ডাউনলোড করে নিতেও পারেন অনলাইনে।
    • তাই এই গোটা প্রক্রিয়া করার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাগজ হল আধার নথিভুক্তকরন কাগজ।অর্থাৎ আপনি যদি এখনও আধার কার্ড করেন নি বা নাম নথিভুক্তকরন করেছেন সব ক্ষেত্রেই আপনাকে ঠিক করে অবশ্যই রাখতে হবে এনরোলমেন্ট স্লিপ। এই স্লিপ না থাকলে আপনার আবেদন করা আধার কার্ডের স্ট্যাটাস জানা খুবই মুশকিল হয়ে পড়ে।
    • অনেকের ক্ষেত্রেই আধার কার্ড করানোর পরও নানা ভুল খুঁজে পাওয়া যায় আধার কার্ডে।যেমন নামের বানান ভুল ,জন্ম তারিখ ভুল বা জন্ম স্থানের নামে ভুল বাবা মায়ের নামে ভুল বা মোবাইল নাম্বারের সংখ্যায় ভুল।এইসব ক্ষেত্রে অবশ্যই করতে হয় আধার কার্ড সংশোধন।
      আর এই সংশোধনের প্রক্রিয়াটি অনলাইনে করা যায় ।এবং তার পর তার স্ট্যাটাসও অনলাইনে জানা যায়।

আরও পড়ুন : আধার কার্ডের বদলানো তথ্য ডিজি লকারে রাখতে চান? কিভাবে রাখবেন ?

    • আধার কার্ড সংশোধনের স্ট্যাটাস জানার জন্য যা করতে হবে তা হল
      প্রথমেই আপনাকে যেতে হবে আধারের সরকারি ওয়েবসাইট বা UIDAI পোর্টালে বা ওয়েবসাইটে।তা হল
      https://uidai.gov.in/
    • এই ওয়েবপেজের লিঙ্কে ক্লিক করার পর “হোম” ট্যাব এ গিয়ে আপনি পাবেন  ‘Aadhaar Online Services’ নামের একটি অপশন।এখানে একবার ক্লিক করবেন আরেকটি নতুন অপশন ‘Check Status – Updating done Online’ নামে।
    • এরপর আবার একটি নতুন পেজ খুলবে
      https://ssup.uidai.gov.in/web/guest/check-status
    • এখন আপনার আধার নাম্বার দিতে হবে এবং দিতে হবে URN (unique reference number) বা SRN যা আপনি যখন আপনার আধার কার্ড সংশোধন করেছিলেন তখন দেওয়া হয়েছিল আপনাকে  আপনারা রেজিস্টার্ড মোবাইল নাম্বারে।
    • প্রথমের শূন্যস্থানে আপনার আধার নাম্বার ,দ্বিতীয় শূন্যস্থানে URN নাম্বার বসাতে হবে।
      তৃতীয় শূন্যস্থানে নির্দিষ্ট ক্যাপচা কোড বসাতে হবে।যদি ক্যাপচা কোড আপনি ঠিক বুঝতে না পারেন তাহলে তার সামনে রিফ্রেস অপশন ক্লিক করলে নতুন ক্যাপচা কোড পাবেন।তবে আপনাকে অবশ্যই ক্যাপচা কোড সঠিক বসাতে হবে।

আরও পড়ুন : প্যান কার্ড সম্পর্কে ১০ টি আকর্ষনীয় তথ্য যা আপনি জানেন না

    • এইসব শুন্যস্থানে ঠিক ঠিক করে বসিয়ে “Get Status”বাটান ক্লিক করতে হবে।
      এরপর আপনার আধার কার্ডের সংশোধনের বর্তমান স্ট্যাটাস আপনার কম্পিউটার বা স্মার্টফোনের স্ক্রিনে ভেসে উঠবে।
    • এক্ষেত্রে আপনি তিনটি অপশন দেখতে পারেন।সেই তিনটি অপশন হল Under Review’, ‘Rejected’ এবং ‘Successful’.
      যদি আপনার ক্ষেত্রে” Under Review “অপশন ওঠে তাহলে আপনাকে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।
      ততারপর আবার আপনাকে একই রকমভাবে  আবার স্ট্যাটাস দেখতে হবে।
    • যদি আপনার ক্ষেত্রে “Rejected”অপশন আসে তাহলে জানতে হবে আপনি কিছু ভুল করেছেন
      যেমন  আপনার সম্বন্ধে সকল তথ্য  সঠিক দেন নি।
      বা  যেসব ডকুমেন্ট দিতে হতো সংশোধনের জন্য তা আপনি দেন নি বা দিতে পারেন নি।
      বা তথ্য দেওয়ার সময় কিছু ভুলভাল তথ্য দেওয়া হয়েছে।
      এইসব হলে আপনাকে আবার নতুন করে আধার সংশোধন করার জন্য আবেদন জানাতে হবে।

আরও পড়ুন : ভোটার কার্ড কীভাবে আবেদন, ট্র্যাক এবং সংশোধন (অনলাইন / অফলাইন) করবেন ?

  • যদি দেখেন আপনার স্ট্যাটাস সাকসেসফুল তাহলে আপনার আধার কার্ড সংশোধন সফল হয়েছে এবং আপনি তা অনলাইনে ডাউনলোড করতে পারেন।

ই আধার কার্ড ডাউনলোড করার পদ্ধতি

  • প্রথমেই আপনাকে যেতে হবে ই আধার কার্ড তৈরি করার জন্য নির্দিষ্ট পোর্টালে।
  • সেই নির্দিষ্ট পোর্টালে যাওয়ার পর আপনি ওই পেজে দুটি অপশন দেখতে পাবেন।একটি হবে এনরোলমেন্ট আইডি এর জন্য এবং অন্যটি হবে আধার কার্ডের জন্য।
  • আপনি তখন নিজের পছন্দ মতো অপশন বেছে নিয়ে আপনার আধার কার্ড ডাউনলোড করতে পারেন।তাহলে যদি আপনি আপনার এনরোলমেন্ট আই ডি এর সাহায্যে আধার কার্ড ডাউনলোড করতে চান তাহলে প্রথমের অপশন ক্লিক করুন।
  • এই অপশনে ক্লিক করার পর আপনি আপনার এনরোলমেন্ট আইডি বা আধার কার্ডের নাম্বার বসিয়ে পরবর্তী অংশে  নিজের নাম ,পিন কোড ,বাড়ির ঠিকানা এবং সিকিউরিটি কোড  বসাতে হবে।
    এইসব বসানোর পর আপনার রেজিস্টার করা মোবাইল নাম্বারে একটি OTP আসবে এবং সেই OTP আপনাকে কম্পিউটারের বা মোবাইল স্ক্রিনের নির্দিষ্ট জায়গায় বসাতে হবে।তাহলেই আসবে Validate এবং Download অপশন।তারপর ক্লিক করুন সেই অপশনে।
  • আপনার Validation যদি সফল হয় তাহলে আপনার2 আধার কার্ডের একটি Pdf কপি আপনার কম্পিউটারে সেভ হয়ে যাবে বা ডাউনলোড হয়ে যাবে।এবার যখন তখন নিজের ইচ্ছামতো আপনি আপনার আধার কার্ড সংগ্রহ করুন ডাউনলোড করা আধার কার্ড থেকে।

আরও পড়ুন : মোবাইল নম্বরের সঙ্গে আধার নম্বর যোগ করুন ঘরে বসেই

তবে মনে রাখবেন এইভাবে ডাইনলোড হওয়া আধার কার্ড  সুরক্ষিত রাখা থাকে পাসওয়ার্ড দিয়ে যা সাধারণত আপনার নামের প্রথম চারটি অক্ষর এবং আপনার   জন্ম সাল মিলে তৈরি হয়। যেমন ধরুন আপনার নাম BISHNU এবং জন্ম সাল 1998 হলে তার পাসওয়ার্ড হবে BISH1998.এইভাবে আপনি পাসওয়ার্ড বসিয়ে পেতে পারেন আপনার আধার কার্ড এবং পরে তা  প্রিন্ট করিয়ে নিতে পারেন।