লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কাটার দিন শেষ! বাড়িতে বসেই কাটুন টিকিট

টিকিট কাউন্টারের বাইরের লাইন দেওয়ার দিন শেষ। রেলের অসংরক্ষিত কামরার টিকিট এবার অনলাইনেই। ভারতীয় রেলের টিকিট এখন UTS  অ্যাপের মাধ্যমেই লাইনে না দাঁড়িয়েই। গত নভেম্বর মাস থেকে গোটা দেশে লোকাল ট্রেনের টিকিট অনলাইনের মাধ্যমে কাটা শুরু হয়েছে। এর ফলে সাধারণ মানুষকে টিকিট কাউন্টারের সামনে আর লম্বা লাইনে দাঁড়াতে হবে না।

‘‌UTS’‌ অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট কাটতে পারবেন গ্রাহকরা।পাঁচ বছর আগেই এই সুবিধাটি চালু করেছিল রেল। কিন্তু তখন মুম্বই ছাড়া সেরকম সফল হয়নি। রেলের প্রায় ১৫ টি জোনে এই অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট কেনার পরিষেবা চালু রয়েছে। আগে কেবল দূরপাল্লার ট্রেনের জন্য হলেই এখন লোকাল ট্রেনের ক্ষেত্রেও এই সুবিধা পাবেন যাত্রীরা।

এই ‘‌UTS’‌ অ্যাপের মাধ্যমে মান্থলি এবং স্টেশন টিকিটও কাটা যাবে। পাশাপাশি পেমেন্ট করা যাবে ডেবিট-ক্রেডিট কার্ড কিংবা নেট ব্যাকিংয়ের মাধ্যমেও। শেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত পাঁচ বছরে প্রায় এক কোটি মানুষ এই অ্যাপের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। প্রতিদিন এই অ্যাপের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টিকিট বিক্রিতে প্রায় কোটি টাকার আয় হয় বলে জানা গিয়েছে।

ভারতীয় রেলের UTS মোবাইল অ্যাপের সুবিধা নিতে গেলে, যাত্রীকে নির্দিষ্ট ষ্টেশন থেকে ২-৩ কিলোমিটার দূরে থাকতে হবে। এই দূরত্বেই একসঙ্গে চারটি টিকিট কাটা যাবে। নথিভুক্ত ব্যবহারকারী টিকিট কাটার সুবিধা ছাড়াও, প্ল্যাটফর্ম টিকিট কাটতে পারবেন। মাসিক টিকিটও কাটা যাবে এই অ্যাপের মাধ্যমে।

কিভাবে অ্যাপটি ব্যবহার করে টিকিট কাটবেন?

প্রথমে এই অ্যাপটিকে Playstore থেকে মোবাইলে ডাউনলোড করুন। তারপর আপনাকে নিজের নাম দিয়ে রেজিস্টার করে মোবাইল নম্বর ও আইডি কার্ড নম্বর দিতে হবে। এরপরেই আপনার মোবাইল নম্বরে একটি OTP আসবে। আপনার আইডি ও পাসওয়ার্ড পেয়ে যাবেন। এরপর R-wallet-এ আপনাকে টাকা রাখতে হবে অথবা পেমেন্টের আলাদা অপশনও পাবেন। আপনি R-wallet-এ ১০০ টাকা থেকে দশ হাজার টাকা পর্যন্ত রাখতে পারেন। আপনি এই R-Wallet-এ টাকা ভরতে পারবেন Paytm বা অনলাইন ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে। ক্রেডিটকার্ড ও ডেবিট কার্ড দিয়েও টাকা ভরা যাবে। শুধু তাই নয়, টিকিট কাটলে রয়েছে ক্যাসব্যাকের সুবিধাও।

তবে এই টিকিট কাটার ক্ষেত্রে যে নিয়মগুলি আপনাকে মনে রাখতে হবে, তাহলো, প্ল্যাটফর্ম টিকিট কাটার সময় আপনাকে প্ল্যাটফর্ম থেকে দু কিলোমিটারের মধ্যে থাকতে হবে। তাছাড়া টিকিট কাটতে পারবেন না। স্টেশনে ঢুকে যাওয়ার পর কিন্তু আপনি প্ল্যাটফর্ম টিকিট কাটতে পারবেন না।

আরও পড়ুন :- রেলযাত্রীদের জন্য সুখবর ; চালু হচ্ছে ৬টি নতুন লোকাল, সঙ্গে একগুচ্ছ ঘোষণা

concessional tickets কাটার ক্ষেত্রে আপনাকে যেদিনের টিকিট সেদিনই কাটতে হবে। এই টিকিট কাটার পর ট্রেনে যাত্রা অবস্থায় টিটি টিকিট দেখতে চাইলে টিটিকে অ্যাপ খুলে দেখিয়ে দিলেই হবে। কোনও কাগজে ছাপানো টিকিটের দরকার হবে না।

একজন ব্যক্তি এই অ্যাপের মাধ্যমে এক সঙ্গে সর্বাধিক চারটির টিকিট কাটতে পারবেন, তার বেশি পারবেন না। আপানার কনফার্ম টিকিটের জন্য একটি PNR নাম্বার থাকবে। মোবাইলে টিকিট কাটার সময় GPS অন থাকতে হবে, আপনার স্টেশন আসার আগে GPS থেকে আপানাকে নোটিফিকেশন পাঠানো হবে।