প্রতিদিন ১০০ টাকা জমিয়ে কোটিপতি! এই ফর্মুলায় টাকা রাখলে আপনিও হবেন কোটিপতি

প্রতিদিন ১০০ টাকা জমিয়েও কোটিপতি হওয়া যায়, যদি জানা থাকে এই ফর্মুলা

Turn Rs 100 into over Rs 1 cr : আপনি যদি গাণিতিক নিয়মে সঠিকভাবে অর্থ উপার্জন করতে পারেন তাহলে মাত্র কয়েক বছরের মধ্যে আপনি হয়ে যেতে পারেন কোটিপতি। অনেকেই আছেন যারা সঠিক উপায় অর্থ সঞ্চয় করতে পারেন না তাই ভালো অর্থ উপার্জন করেও দিনের শেষে তাদের কাছে থাকে না কোন অর্থ। কিন্তু আপনি যদি সঠিক নিয়মে অর্থ সঞ্চয় করতে পারেন তাহলে কয়েক বছরের মধ্যেই আপনি হতে পারেন কোটিপতি (How to Become Crorepati)। চলুন একটু হিসেব করে নেওয়া যাক।

How to Become Crorepati

আমরা মধ্যবিত্ত। প্রতিদিন সকালে টুকটাক কেনাকাটা থেকে শুরু করে সিগারেট বিড়ি সবকিছুতেই মোটামুটি খরচ হয়ে যায় ১০০ টাকার কাছাকাছি। কিন্তু এই ১০০ টাকা যদি খরচ না করে আপনি প্রতিদিন জমাতে পারেন তাহলে আপনি কোটি টাকার মালিক হতে পারেন (How to Become a Crorepati with Just Rs 100) মাত্র কয়েক বছরের মধ্যে। তবে এই অর্থ জমানোর জন্য আপনার পাওয়ার অফ কম্পাউন্ডিং (Compound Interest) বিষয়টি জানা ভীষণ দরকার।

compund interest

Turn Rs 100 into over Rs 1 cr

ধরুন আপনি প্রতিদিন ১০০ টাকা করে জমাচ্ছেন, সেক্ষেত্রে মাসে আপনি ৩ হাজার টাকা জমাতে পারবেন। আবার আপনি যদি মাসে ৩০০০ টাকা করে সঞ্চয় করতে পারেন সে ক্ষেত্রে আপনি বছরে শেষে ৩৬ হাজার টাকা জামাতে পারবেন। এই অর্থটি আপনি যদি কোন মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করেন তাহলে কয়েক বছরের মধ্যেই আপনি হয়ে যাবি না ১ কোটি টাকার মালিক। এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে সঠিক নিয়মে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করবেন আপনি।

Power of Compounding Interest

আপনি যদি প্রতিদিন ১০০ টাকা করে বিনিয়োগ করতে শুরু করেন সেক্ষেত্রে ২৫ বছর থেকে আপনাকে বিনিয়োগ করতে হবে। এইভাবে ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত বিনিয়োগ করলে আপনি ৩৫ বছরের মধ্যে জমিয়ে ফেলতে পারবেন ১২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা। এবার অন্যভাবে হিসেব করলে দেখা যাবে আপনি যদি ৩৫ বছরের জন্য প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা করে মিউচুয়াল ফান্ডে জমা দিতে পারেন তাহলে ১০% সুদের হারে আপনি ৩৫ বছরের মধ্যেই ৩ কোটি টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

Simple vs compound interest

মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করলে আপনি কম্পাউন্ডিং হারে সুদ পাবেন অর্থাৎ আপনি আপনার জমানো টাকার উপর একটি সুদ পাবেন আবার সুদের ওপরেও একটি সুদ পাবেন। এভাবে সুদের ওপর সুদ পেলে আপনি মাত্র ৩৫ বছরের মধ্যেই ১ কোটি টাকার মালিক হয়ে যাবেন। আপনার বয়স যদি ২৫ বছর ছাড়িয়ে যায় তাহলে আর একদম দেরি না করে এখনই এই ক্ষুদ্র বিনিয়োগ হাত ধরেই তৈরি করে নিন কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন পূরণের রাস্তা।

আরও পড়ুন : প্রতি মাসে ৬০ হাজার টাকা পাকা, নামমাত্র বিনিয়োগে শুরু করুন এই ব্যবসা

mutual fund

আরও পড়ুন : কয়েক মাসেই টাকা দ্বিগুণ! দেখুন পোষ্ট অফিসের টাকা ডাবল করার দুর্ধর্ষ ৫ স্কিম

তবে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে গেলে সমস্ত ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়গুলি আগে থেকে জেনে নেবেন। বিশ্বাসযোগ্য মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করবেন কখনো চিট ফান্ডে বিনিয়োগ করতে যাবেন না। চিটফান্ডে হয়তো খুব সহজেই আপনি টাকা উপার্জন করতে পারবেন কিন্তু আপনার টাকা চোট যাওয়ার সম্ভাবনাও থেকে যাবে দ্বিগুণ। তাই বিনিয়োগ করার আগেই সমস্ত কাগজপত্র ভালো করে পড়ে তবেই বিনিয়োগ করবেন।