এই একটি কারনেই প্রসেনজিৎকে বিয়ে করেই অভিনয় থেকে সরে আসেন অর্পিতা

প্রসেনজিতকে বিয়ে করেই কেন টলিউড থেকে হারিয়ে যান অর্পিতা, অবশেষে এতদিনে জানা গেল কারণ

Here is Why Arpita Chatterjee Stepped back from Acting after Her Marriage With Prasenjit Chatterjee

অর্পিতা পাল (Arpita Paul), এককালে টলিউডের (Tollywood) একজন নামকরা অভিনেত্রী ছিলেন। তবে তার নামের পাশে যেদিন থেকে চট্টোপাধ্যায় উপাধি যুক্ত হলো, তারপর থেকেই টলিউডকে বিদায় জানালেন অর্পিতা। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে (Prasenjit Chatterjee) বিয়ে করার পর থেকে আর কখনও কোনও ছবিতে অভিনয় করতে দেখা যায়নি অর্পিতাকে। এর পেছনে প্রকৃত কারণ কি? ভাবিয়েছে ভক্তদের। প্রশ্নের আঙ্গুল উঠেছে প্রসেনজিতের দিকে।

অর্পিতা ১৯৯৭ সানন্দা তিলোত্তমা জিতে নিয়ে পরিচালক প্রভাত রায়ের নজরে পড়ে যান। সেই থেকে টলিউডে তার যাত্রা শুরু। ল্যাবরেটরি, পারমিতার একদিন, অসুখের মত অন্য ধাঁচের ছবিতে যেমন তিনি অভিনয় করেছেন, তেমনই প্রসেনজিতের বিপরীতে একাধিক বাণিজ্যিক ছবিতেও তাকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। তবে টলিউডে তার কেরিয়ার ছিল সীমিত। অর্পিতা এরপর প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জীকে বিয়ে করে নেন। ২০০৩ সালে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর আর কখনও ক্যামেরার সামনে দেখা যায়নি তাকে। প্রায় ১৮ বছর পর অভিনয়ে ফিরলেন অর্পিতা।

‘আবার বছর ২০ পর’ ছবির হাত ধরে অভিনয়ের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করছেন তিনি। সদ্য জি বাংলার দিদি নাম্বার ওয়ান রিয়েলিটি শোতে অংশগ্রহণ করে তিনি অভিনয় থেকে এতদিনের সন্ন্যাস জীবনের কারণ ফাঁস করলেন। অর্পিতার জানিয়েছেন, “কাজ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত একান্ত আমার ছিল। আমি নিজের ইচ্ছেতেই অভিনয় থেকে নিজেকে দূরে রেখেছিলাম।” অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন তিনি যখন অভিনয় না করার সিদ্ধান্ত নেন তখন তার হাতে ছিল বেশ কিছু ছবির প্রস্তাব।

তার অভিনয় থেকে সরে আসার এই সিদ্ধান্তে বিপাকে পড়েছিলেন পরিচালক-প্রযোজকরা। সেইসময় মুশকিল আসান হয়েছিলেন খোদ রচনা ব্যানার্জি। রচনা এবং অর্পিতার মধ্যে বেশ ভালো বন্ধুত্বের সম্পর্ক রয়েছে। অর্পিতা রচনাকে বিশেষভাবে অনুরোধ করেন তার ছেড়ে দেওয়া ছবিতে কাজ করার জন্য। রচনা সেই সময় বাইরের ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতেন। তবে অর্পিতার প্রস্তাব তিনি ফেরাননি। এই কারণে রচনার কাছে আজীবন কৃতজ্ঞ থাকবেন অর্পিতা।