ওয়াই ফাই এর স্পিড বাড়ানোর ১০টি সহজ পদ্ধতি

বর্তমানে আনলিমিটেড ইন্টারনেট পাওয়ার জন্য বাড়িতে Wi-Fi কানেকশন নেওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। হাই স্পিড ইন্টারনেট পাওয়ার জন্যই এটি ব্যবহার করা সেখানে আচমকা ইন্টারনেট ডাউন বা নেট স্লো হয়ে গেলে সমস্যায় পড়তে হয়।বিশেষত এই লক ডাউনের সময় যখন কাজ চলছে ওয়ার্ক ফ্রম হোম, ক্লাস হচ্ছে অনলাইন, এক কথায় এখন জীবন ইন্টারনেট সর্বস্ব।সেই কারণেই আজ আমরা এমন ১১ টি টিপস শেয়ার করে নেব যাতে ইন্টারনেটের স্পিড বাড়বে।

১.কানেকশন নেওয়ার ক্ষেত্রে এমন সংস্থা বেছে নেবেন যে কমপক্ষে 10MB/S উপরে ইন্টারনেট স্পিড দেয়।অনেক সময় দীর্ঘ্য সময় ধরে কাজ করার প্রয়োজন হয়। সেক্ষেত্রে ৭৫০ টাকার ওপরের প্ল্যান ব্যাবহার করা যেতে পারে।তবে বেশিরভাগ বেশী দামী প্ল্যানের ক্ষেত্রে এফইউপি থাকে।

২. কিছু কিছু সময় হঠাৎই রাউটারের স্পিড একদমই কমে যায়। তখন ট্রাবলশুটিং উইজার্ড চালিয়ে আপনি নিজেই দেখে নিতে পারেন আপনার রাউটারে কি সমস্যা হচ্ছে। সেই সমস্যা বুঝে তার সমাধান করে দিতে পারলেই আগের মতন চলবে রাউটার।

৩. প্রতিদিন নিয়ম করে রাউটার মিনিট দশেকের জন্য বন্ধ রাখুন। এতে রাউটার ভালো থাকে।

৪. অনেকসময় হয় একই অঞ্চলে একাধিক রাউটার থাকে। সেক্ষেত্রে সঠিক নেটওয়ার্ক নিশ্চিত করে নেওয়া দরকার।একটা কথা মনে রাখতে হবে যে সর্বজনীন ওয়াই ফাই এর ক্ষেত্রে নেটওয়ার্কের স্পিড কম থাকে।

৫. যে ইলেকট্রনিক ডিভাইসে আপনি নেটওয়ার্ক চান তা যদি রাউটারের খুব কাছাকাছি হয় তবে ইন্টারনেটের স্পিড কম থাকে। সেক্ষেত্রে ডিভাইসের ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক তরঙ্গগুলি রাউটারের স্পিড কমিয়ে দেয়।সেক্ষেত্রে ডিভাইসটির সাথে রাউটারের অবস্থানের বিষয় নজর রাখতে হবে।

৬ যে অ্যাপলিকেশন গুলি ব্যান্ডউইথ গ্রহণ করে ( যেমন ইউটিউব বা নেটফ্লিকস) সেগুলি ব্যাকগ্রাউন্ডে চালিয়ে রাখবেন না। সেগুলি ব্যাবহার না করলে বন্ধ করে রাখুন।

৭. ওয়াই ফাই সবসময় সিকিউরিটি পাসওয়ার্ড দিয়ে সুরক্ষিত রাখবেন এবং যতটা সম্ভব জটিল পাসওয়ার্ড ব্যাবহার করুন। অনেক সময় একাধিক ডিভাইস যদি রাউটারে যুক্ত হয় তবে তার স্পিড কমে যায়। স্পিড ভালো রাখতে ওয়াই ফাই সুরক্ষিত রাখুন।

৮. অনেক সময় ওয়াইফাই বা রাউটারের সাথে সংযোগকারী তারগুলি আলগা হয়ে যায় যার প্রভাব পড়ে ইন্টারনেট স্পিডের ওপরে। ফলে তার ঠিকভাবে যোগ করা আছে কিনা সেটা সময়মত পরীক্ষা করে নিন।

৯. যদি আপনার দৈনন্দিন কাজের জন্য খুব বেশী ইন্টারনেট স্পিডের প্রয়োজন হয় সেক্ষেত্রে LAN কেবিল ব্যাবহার করুন।তবে এক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে তা যেন পুরোনো না হয়। Cat-6 এবং Cat-6a জাতীয় কেবিল ব্যাবহার করলে সবথেকে ভালো স্পীড পাওয়া যায়।

১০. আপনার বাড়ির পরিধি যদি খুব বড় হয় সেক্ষেত্রে বাড়ির সবখানে হাই স্পিড ইন্টারনেট পেতে ওয়াই ফাই রিপিটার বা এক্সটেন্ডার বা বুস্টার ব্যাবহার করুন। ল্যাপটপেও বর্তমানে একটি সফটওয়্যার আছে যা এই কাজ করে দিতে পারে।

১১. আপনি যে ডিভাইসে নেট ব্যবহার করেন ওয়াই ফাই থাকায় অনেক ক্ষেত্রেই সেখানে হোম ইন্টারনেট, মোবাইল ডেটা বা পাবলিক ওয়াইফাই এর মতন কানেকশনের অ্যাক্সেস থাকলেও তা নষ্ট হয়। সেক্ষেত্রে Speedify-এর মতো সরঞ্জামের ব্যবহারে সেই সব কানেকশন একত্রিত করে অত্যন্ত হাই স্পিড ব্যাবহার করতে পারবেন।