অল্পতেই সন্তুষ্ট মহাদেব, শ্রাবণ মাসে এইভাবে শিবের আরাধনা করলে কৃপা পাবেন ১০০%

শ্রাবণ মাসে এইভাবে শিবের আরাধনা করলে সুখশান্তিতে ভরবে জীবন, মহাদেবের কৃপা পাবেন ১০০%

শ্রাবণ (Sawan) মাস মহাদেবের (Mahadev) উপাসকদের কাছে অত্যন্ত পবিত্র মাস। সারা বছরভর এই মাসের জন্য প্রতীক্ষা করেন শিবভক্তরা। খুব অল্পতেই সন্তুষ্ট করা যায় দেবাদিদেবকে। বিশেষত শ্রাবণ মাসে ভক্তি ভরে তাঁর পুজো করলে শিবের কৃপা সব সময় থাকে তার ভক্তদের উপর। বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে ১লা শ্রাবণ থেকেই শুরু হয়ে যায় শিবের উপাসনার সেই মাহেন্দ্রক্ষণ।

শিব পুরাণের রুদ্র সংহিতায় মহাদেবের আরাধনার জন্য বেশ কিছু নিয়মের উল্লেখ আছে। অন্ন-শস্য দিয়ে শিব পূজার বিধান আছে এই শাস্ত্রে। আজ এই প্রতিবেদনে রইল সেই উপায়গুলি। জেনে নিন শিব পুজোর অবশ্য পালনীয় বিধিগুলি :

Why Every Girl wants Husband like Shiva

প্রতিদিন ২১ টি বেল পাতায় চন্দন মাখিয়ে ‘ওম নমঃ শিবায়’ লিখে শিবলিঙ্গে অর্পণ করতে হবে। রোজ সকালে স্নানের পর শিব মন্দিরে গিয়ে শিবের জলাভিষেক করতে হবে। কালো তিল অর্পণ করতে হবে। সেই সঙ্গে মন্দিরে কিছুক্ষণ ‘ওম নমঃ শিবায়’ মন্ত্র জপ করতে হবে।

শ্রাবণ মাসের যে কোনও একটি সোমবারে জলে দুধ এবং কালো তিল মিশিয়ে শিবলিঙ্গের অভিষেক করুন। অভিষেকের জন্য তামার পাত্রের পরিবর্তে অন্য কোনও ধাতুর পাত্র ব্যবহার করতে হয়। অভিষেক করার সময়ও ‘ওম নমঃ শিবায়’ মন্ত্র জপ করতে হবে।

shivalinga-abhishek-on-mahashivratri-according-to-zodiac

যদি বিবাহে বাধা আসে তাহলে শ্রাবণ মাসে প্রতিদিন শিবলিঙ্গে জাফরান মিশ্রিত দুধ অর্পণ করার বিধি রয়েছে। তাহলেই শীঘ্র বিবাহের যোগ দেখা দেয়।

History of Shivaratri

শিবের আরাধনা করলে কী কী ফল মেলে : সমস্ত বিধি মেনে যদি গোটা শ্রাবণ মাসের শিবের পূজা করা যায় তাহলে ভক্তের সব মনষ্কামনা পূরণ হবে। মানসিক শান্তি পাবেন এবং রোগ-শোক দূর হবে। শরীরে কোনও জটিল রোগ থাকলে তার থেকে মুক্তি পাবেন। শ্রাবণ মাসে শিবলিঙ্গে জাফরান মিশ্রিত দুধ অর্পণ করলে বিবাহের বাধা কেটে গিয়ে শীঘ্র বিবাহযোগ দেখা দেয়।