করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের তুলনায় পশ্চিমবঙ্গে অনেক বেশি

all-you-need-to-know-about-covid-19-medical-service-in-west-bengal

করোনা সংক্রমণের হার পশ্চিমবঙ্গে নিয়ন্ত্রণে এলেও করোনা সংক্রমণে দেশের তুলনায় মৃত্যুর হার বৃদ্ধি বেশি পশ্চিমবঙ্গে। নতুন সংক্রমণ বৃদ্ধির নিরিখে রেকর্ড গড়ল বাংলা। আক্রান্তের নিরিখে দেশের প্রথম দশ রাজ্যের তালিকায় দখল করে নিল অষ্টম স্থান।  এই মৃত্যুর হার বৃদ্ধির জন্য রাজ্যে কম নমুনা পরীক্ষা ও চিকিৎসা পরিকাঠামোর গাফিলতির দিকেই আঙুল তুলেছেন বিশেষজ্ঞরা।

যে সকল পরিযায়ী শ্রমিকরা রাজ্যে ফিরে আসছেন তাদের নমুনা পরীক্ষা ঠিকমতো হচ্ছে না। নমুনা পরীক্ষা ঠিকমতো হচ্ছে না বলে কারা সংক্রামিত তাও ধরা যাচ্ছে না! আবার যারা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ছুটছেন তারাও সব সময় বেড পাচ্ছেন না। আবার যারা বেড পাচ্ছেন তারা উপযুক্ত চিকিৎসা পরিকাঠামো পাচ্ছেন না। কারণ সব হাসপাতালগুলিতে পর্যাপ্ত চিকিৎসা পরিকাঠামো নেই। ফলস্বরূপ মৃত্যু হার বৃদ্ধি পাচ্ছে।

উল্লেখ্য রাজ্যে মোট করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১০,২৪৪। গত শুক্রবারের পাওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী করোনাতে মৃতের সংখ্যা ৪৫১ জন। সংক্রমিতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে, ভবিষ্যতে এই সংখ্যা দিনে দিনে আরও বৃদ্ধি পাবে এটাই স্বাভাবিক। তখন বিনা চিকিৎসায় অনেকেই মারা যাবেন বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা। বিরোধীদের একাংশও এই বিষয়ে সরকারের সদিচ্ছা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন।

তবে রাজ্যে মৃত্যুর হার সর্বভারতীয় মৃত্যু হারের তুলনায় বেশি হলেও ধীরে ধীরে পশ্চিমবঙ্গে সুস্থ হয়ে ওঠার হারও বাড়ছে। দেখতে দেখতে পশ্চিমবঙ্গে সুস্থ হয়ে ওঠার হার পৌঁছে গেছে ৪১.০৫ শতাংশে। আর এই সুস্থ হয়ে ওঠার হারের উপর ভর করে আশার আলো দেখছে রাজ্যের কোটি কোটি মানুষ।

গত শুক্রবারের রেকর্ড অনুযায়ী একদিনেই করোনা সংক্রমণের ফলে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৯। আর রাজ্যে মোট মৃতের সংখ্যা ৪৫১। সেই হিসাবে রাজ্যে মৃত্যুর হার ৪.৪০%। গোটা দেশে সেই হারটা ২.৮৮%। স্বাভাবিকভাবে ঘটনার গুরুত্ব বুঝতে পেরে চিকিৎসক মহল উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন।

দেশে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৯৭ হাজারের বেশি। ও মৃত্যু হয়েছে ৮,৪৯৮ জনের। শুধুমাত্র গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৯৫৬ জন। ও গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৯৬ জনের।

স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় বাংলায় মোট ৪৬৭ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। অর্থাৎ এখন বাংলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০ হাজার ২৪৪ এর বেশি।  গত ২৪ ঘন্টায় বাংলায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। ফলে এখন বাংলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৫১।

শুক্রবার পর্যন্ত রাজ্যে মোট করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৫৮৭।  বাংলায় এখনও পর্যন্ত করোনা মুক্ত হয়েছেন ৪ হাজার ২০৬ জন। সংক্রমণের নিরিখে এগিয়ে রয়েছে কলকাতা। কলকাতায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১১১ জন। বর্তমানে কলকাতায় মোট করোনায় অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ১৭৫০।

এরপরেই রয়েছে হাওড়া। হাওড়ায় করোনা অ্যাক্টিভ কেস ১০০১। তারপর রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা। সেখানে করোনা অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ৮৮৭।  উত্তর ২৪ পরগণার পর রয়েছে হুগলি। হুগলিতে করোনা অ্যাক্টিভ কেস ৪৫৮। ও সব শেষে রয়েছে দক্ষিন ২৪ পরগণা। সেখানে করোনা অ্যাক্টিভ কেস ২৩৭।