অবশেষে মিলল স্বস্তির খবর, বাংলায় করোনায় সুস্থ ৪৭.৭৯% রোগী

সংকটের মাঝেই অবশেষে স্বস্তির খবর, করোনামুক্ত পশ্চিমবঙ্গের দুই জেলা

পরপর দুদিন বাংলায় করোনা সংক্রামিতের সংখ্যাকে ছাড়ালো সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা। আর এর ফলেই একধাক্কায় রাজ্যের সুস্থতার হার বাড়লো অনেকটাই। রাজ্যের সংক্রমণ শুরু হওয়ার বহুদিন পর সুস্থতার হারে স্বস্তি ফিরলো বাংলায়। বর্তমানে সুস্থ হয়ে ওঠার হার পৌঁছে গেল ৪৭.৭৯ শতাংশে।

সোমবার রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের তরফ থেকে যে রিপোর্ট পেশ করা হয় তাদের দেখা গিয়েছে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে রাজ্যে করোনা সংক্রামিত হয়েছেন ৪০৭ জন। আর গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৩৪ জন। অর্থাৎ সংক্রমণের থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার সংখ্যা ২৭ জন বেশি।

তবে শুধু আজ নয়, গতকালও একইভাবে সংক্রামিতের থেকে বেশি সংখ্যক মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। গতকাল অর্থাৎ রবিবারের রিপোর্ট অনুযায়ী রাজ্যে মোট সংক্রামিত হয়েছিলেন ৩৮৯ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন ৫১৮ জন। অর্থাৎ গতকাল সংক্রামিত হওয়ার থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন ১২৯ জন বেশি। পরপর দুদিনের এই ধারাবাহিকতায় রাজ্যে মোট সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৪৯৪।

এদিন হাওড়া জেলা থেকে সব থেকে বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। গত ২৪ ঘন্টায় হাওড়া জেলা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৮৫ জন। তারপরেই হুগলি ও কলকাতা। হুগলিতে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯৯ জন এবং কলকাতায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৪ জন। এখনো পর্যন্ত রাজ্যে মোট সংক্রমণের সংখ্যা ১১ হাজার ৪৯৪। আর বিপুলসংখ্যক মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরায় অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৫৫১৫ তে।

আরও পড়ুন :- সংকটের মাঝেই অবশেষে স্বস্তির খবর, করোনা মুক্ত পশ্চিমবঙ্গের দুই জেলা

রাজ্যজুড়ে এদিন খুশির খবর থাকলেও হতাশার খবর ঝাড়গ্রাম ও পুরুলিয়ার জন্য। কারণ এই দুই জেলায় সংক্রমিত হওয়ার পরও গত রবিবার একপ্রকার করোনামুক্ত হতে পেরেছিল। কিন্তু ২৪ ঘন্টা পেরোতে না পেরোতেই এই দুটি জেলাতেই নতুন করে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। ঝাড়গ্রামে নতুন করে ৮ জন ও পুরুলিয়ায় নতুন করে ১ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে।