দ্য কাশ্মীর ফাইলস নাকি RRR, অস্কার পাচ্ছে একমাত্র ভারতীয় ছবি, হয়ে গেল ঘোষণা

কাশ্মীর ফাইলস নাকি আর আর আর, অস্কারের মনোনয়ন পেল একমাত্র ভারতীয় ছবি

বিগত কয়েকদিন ধরেই অস্কার (Oscar) প্রতিযোগিতা নিয়ে জোর জল্পনা চলছিল বলিউডের (Bollywood) অন্দরমহলে। ২০২৩ সালের অস্কার একাডেমী পুরস্কার (Oscar Academy Award 2023) অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের সেরা ছবিগুলোর সঙ্গে ভারতের কোন ছবি লড়াই করার সুযোগ পাবে বা আদেও সুযোগ পাবে কিনা সেই নিয়ে চলছিল জোর গুঞ্জন। বিশেষত ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ এবং আর আর আর এর‌ অস্কার পাওয়া নিয়ে বিভিন্ন জন বিভিন্ন মতবাদ দিচ্ছিলেন।

শেষমেষ এসে গেল সেই বহু প্রতীক্ষিত মুহূর্ত। ২০২৩ সালে একাডেমি পুরস্কার অনুষ্ঠানের সেরা আন্তর্জাতিক কাহিনী চিত্র বিভাগে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করতে চলেছে যে ছবি, সেই ছবির নাম ঘোষণা হয়ে গেল। বলিউড এবং কলিউডকে পেছনে ফেলে অস্কারের জন্য মনোনীত হল গুজরাটের ছবি ‘চেলো শো’ (Chhello Show)। কী এমন আছে এই ছবিতে যা আর আর আর, দ্য কাশ্মীর ফাইলসকেও পেছনে ফেলে দিতে পারে?

প্যান নলিন পরিচালিত এই ছবিতে বয়ঃসন্ধিকালের গল্প তুলে ধরা হয়েছে। তার সঙ্গে রয়েছে সূক্ষ্ম জাদুর ছোঁয়া। গল্পটা অনেকটা আত্মজীবনীমূলক উপকথার মত। ছবিতে অভিনয় করেছেন ভবিন রাবারি, ভবের শ্রীমালি, রিচা মিনা, দিপেন রভল এবং পরেশ মেহতা। মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন ২ জন, ছোটবেলা এবং পরিণত বয়স হিসেবে সারজিও লিওনি এবং টেরেন্স মালিক নিখুঁত অভিনয় করেছেন।

৯ বছরের বালক সময় রেল লাইনের পথ ধরে হাঁটতে থাকে। তার সঙ্গে সঙ্গে এগিয়ে চলে তার স্বপ্ন। সময়ের বাবা ট্রেনে চা বিক্রি করেন। যেন তাদের পাশ দিয়েই বয়ে যাচ্ছে গোটা জীবন। ২০২১ সালে ট্রিবেকা চলচ্চিত্র উৎসবে ছবিটির প্রদর্শন হয়েছিল। সেই ছবি আজ অস্কারের দরজায় দাঁড়িয়ে আছে। এই খবর পেয়ে আপ্লুত পরিচালক নলিন।

সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে পরিচালক বলেছেন তিনি কখনও স্বপ্নেও ভাবেননি তার ছবি অস্কারের জন্য মনোনয়ন পাবে। তার কাছে এই খবর যেন উৎসবের আলো এনে দিয়েছে। এই মুহূর্তটা সত্যিই উদযাপন করার মত। মুক্তির আগে থেকেই ‘চেলো শো’ ভালোবাসা পেয়ে এসেছে। ছবিটি আন্তর্জাতিক মঞ্চেও প্রশংসা পাবে, এমনটাই আশা করছেন পরিচালক।

তবে তার মনে একটা কষ্টের জায়গাও রয়ে গিয়েছে। যে দেশের মাটিতে, যে দেশের উপাদান দিয়ে এই ছবি তৈরি হয়েছে সেই দেশ কি আদেও এই ছবিটা আপন করে নেবে? আন্তর্জাতিক স্তরে প্রশংসা পাচ্ছে যে ভারতীয় ছবি, ভারতে কি সেই ছবি আদেও কোনও মর্যাদা পাবে? তবে পরিচালক খুশি এই ভেবে যে তার সিনেমা উদ্বুদ্ধ করতে পারবে। অনুপ্রেরণা যোগাতে পারবে। এর জন্য তিনি বিচারকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।