বাড়ল গ্যাসের দাম, ভর্তুকি বাড়লো দ্বিগুণ, স্বস্তিতে ২৬ কোটি ভারতীয়

GAS Cylinder

চলতি মাসে দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল বের হওয়ার পরই দেশজুড়ে দাম বাড়ে রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারের। যদিও এই মাসের শুরুতেই ব্যবসায়িক কাজে ব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডারের দাম বাড়ানো হয়েছিল। তবে রান্নার গ্যাসের দাম বাড়লেও স্বস্তির খবর শুনিয়েছে কেন্দ্র।কেন্দ্রীয় সরকার রান্নার গ্যাসে দেওয়া ভর্তুকির পরিমাণ প্রায় দ্বিগুণ করে দিয়েছে চলতি মাসে। বৃহস্পতিবার পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রকের তরফ থেকে এমনই বিবৃতি জারি করা হয়। পাশাপাশি জানানো হয় রান্নার গ্যাসের দাম বাড়ার কারণ।

পেট্রোলিয়াম মন্ত্রকের তরফ থেকে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, ১৪.২ কেজি গ্যাস সিলিন্ডারের ক্ষেত্রে দাম বাড়ার আগে পর্যন্ত কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে ভর্তুকি দেওয়া হতো ১৫৩.৮৬ (দিল্লী), আর এখন সেই ভর্তুকির পরিমাণ করা হয়েছে ২৯১.৪৮ টাকা। একইভাবে দেশের সমস্ত রাজ্যের ভর্তুকির পরিমাণ প্রায় দ্বিগুণ করা হয়েছে।

অন্যদিকে একই ভাবে প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা স্কিমের আওতায় যে সকল রান্নার গ্যাস সিলিন্ডার রয়েছে সেগুলির ক্ষেত্রে আগে ভর্তুকি দেওয়া হতো ১৭৪.৭৬ টাকা। সেই সকল গ্যাস সিলিন্ডারে ভর্তুকি পরিমাণ বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩১২.৪৮ টাকা। সুতরাং দেশজুড়ে ১৪.২ কেজি রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারের দাম বাড়লেও সরকারের ভর্তুকি পেয়ে সেই দাম প্রায় আগের মতোই থেকে যাচ্ছে বলে দাবি করেছে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রক। পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রকের তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে, কেন্দ্র সরকার দেশের ২৬ কোটিরও বেশি রান্নার গ্যাস সংযোগের ক্ষেত্রে ভর্তুকি দিয়ে থাকে।

আরও পড়ুন :- গ্যাস ডেলিভারী দিতে বাড়তি টাকা দেন? কি জানাচ্ছে LPG সংস্থা

রান্নার গ্যাসের দাম বৃদ্ধির কারণ হিসাবে পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে আন্তর্জাতিক বাজারে এলপিজি গ্যাসের দাম উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পায়। সেই কারণে দেশের বাজারেও ১৪.২ কেজি রান্নার গ্যাস ও বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়।

আরও পড়ুন :- লাইনে না দাঁড়িয়ে Online-এ নতুন গ্যাসের কানেকশন নিন এইভাবে

তবে কেন্দ্রীয় সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, এক একজন গ্রাহক বছরে ১২ টি ভর্তুকিযুক্ত গ্যাস সিলিন্ডার পেয়ে থাকেন। আর তারপরে যদি রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারের প্রয়োজন হয় তাহলে সেই গ্রাহককে ভর্তুকিহীন মূল্যেই গ্যাস সিলিন্ডার কিনতে হবে।