শাহরখ খানের স্ত্রী হয়ে বাঁচতে চাই না! বিস্ফোরক মন্তব্য পত্নী গৌরী খানের

শাহরুখের স্ত্রী হয়ে আর থাকতে চান না গৌরী খান, প্রকাশ্যেই করলেন বিস্ফোরক মন্তব্য

Gauri Khan says she is not happy with Shahrukh Khan's wife identity

শাহরুখ খান (Shah Rukh Khan) এবং গৌরী খান (Gouri Khan), বলিউডের এই তারকা জুটির লাভ লাইফও কোনও রোমান্টিক বলিউড সিনেমার থেকে কম আকর্ষণীয় ছিল না। একজন মুসলিম ছেলে আর একজন হিন্দু ব্রাহ্মণের মেয়ের বিয়েটা সহজ ছিল না। কিন্তু শত বাধা, কটুক্তি উপেক্ষা করে আজ ৩০ বছর একসঙ্গে সংসার করছেন কিং খান এবং তার রানী। তাদের জুটি দেখলে ঈর্ষা হয় বৈকি!

কিন্তু আজ এত বছর পরে গৌরী খান আর ‘মিসেস খান’ পরিচয়ে বাঁচতে চান না বলে সরাসরিই দাবি করলেন প্রকাশ্যে। আজ এত বছর বাদে কেন তার মুখে এই কথা শোনা গেল? প্রশ্ন উঠছে বলিউডে। সঙ্গে এই প্রশ্ন উঠছে তবে কি আলাদা হওয়ার কথা ভাবছেন এই সেলিব্রিটি জুটি? গৌরীর একটি মন্তব্য অনেক প্রশ্নেরই জন্ম দিয়েছে।

করণ জোহরের টকশো ‘কফি উইথ করণ’-এ তাকে প্রশ্ন করা হয় তারকার স্ত্রী হতে তার কেমন লাগে? এই প্রশ্ন শুনেই রীতিমতো তেড়েফুঁড়ে ওঠেন গৌরী! তিনি সরাসরি বলেন, ‘‘ওটা আমার পরিচয় নয়। এই প্রসঙ্গটা আমায় পাগল করে দেয়! আমি সত্যিই এক জন সাধারণ মানুষ। বরং আমি যা কিছু ডিজাইন করেছি, যত বাড়ি, অফিস, দোকান, হোটেল সাজিয়েছি সেগুলো সবাই পরখ করে জানান আমি কেমন কাজ করি। তা দিয়েই আমার পরিচয় তৈরি হোক।’’

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ফ্যাশন টেকনোলজি (এনআইএফটি)-র প্রাক্তন ছাত্রী গৌরী আজ ভারতবর্ষের একজন প্রখ্যাত ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। বলিউডের নামিদামি তারকার অন্দরমহল সযত্নে সাজিয়ে তুলেছেন তিনি। করণে ছেলেমেয়েদের নার্সারি থেকে শুরু করে রণবীর কাপুর জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজদের বাড়ির অন্তরসজ্জায় হাত রয়েছে তার।

গৌরী তাই বলেছেন, ‘‘আমি খুব ভাল কাজ করতে চাই। হয়তো বিশ্বখ্যাত ইন্টিরিয়র ডিজাইনার হতে পারব না। তবে জীবনে কিছু করতে খুব বেশি দেরি হয় না। আমি আমার লক্ষ্যে চলছি। সেই লক্ষ্য রোজ পূরণ হচ্ছে। আমার সাজানো সব কিছু যখন স্পর্শ করি, এক জন সফল মহিলা হিসেবে গর্ব অনুভব করি।’’

গৌরী শুধুই যে বলিউড তারকাদের অন্দরমহল সাজিয়ে তোলেন এমনটাই নয়, ভারতের ধনকুবের আম্বানি পরিবারের জন্য একটি পার্টি রুমও সযত্নে সাজিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। তাই তার পরিচয় শুধুই শাহরুখের স্ত্রী নয়, তিনি তার কাজের মাধ্যমে আলাদা পরিচয় গড়ে নিতে চান সারা বিশ্বে। নতুবা সকলে তাকে একজন সাধারণ মানুষ হিসেবে মনে রাখলেও তিনি খুশি হবেন।