আপনজন হারালো খড়ি, প্রয়াত হলেন গাঁটছড়া সিরিয়ালের বর্ষীয়ান অভিনেত্রী

প্রয়াত হলেন গাঁটছড়ার এই বর্ষিয়ান অভিনেত্রী, সিরিয়াল নির্মাতাদের মাথায় হাত

স্টার জলসার (Star Jalsha) ‘গাঁটছড়া’ (Gantchhora) সিরিয়ালের এক গুরুত্বপূর্ণ সদস্য আজ চিরতরে পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেন। প্রয়াত হলেন টলিউডের প্রখ্যাত অভিনেত্রী সোনালী চক্রবর্তী (Sonali Chakraborty)। অভিনেতা শঙ্কর চক্রবর্তীর স্ত্রী গত কয়েক দিন ধরেই ভীষণ অসুস্থ ছিলেন। গত দুদিন ধরে হাসপাতালে জীবন-মৃত্যুর লড়াই লড়ছিলেন তিনি। অবশেষে সোমবার ভোরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন সোনালী।

আনন্দবাজার অনলাইন সূত্রের খবর দীর্ঘদিন ধরে লিভারের জটিলতায় ভুগছিলেন অভিনেত্রী সোনালী চক্রবর্তী। দুদিন আগে সেই অসুস্থতা অনেক বেড়ে যায় যে কারণে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল। ২ দিন হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। তবে সোমবার ভোর ৪ টে নাগাদ মৃত্যুর সঙ্গে লড়াইয়ে হার মেনে নেন সোনালী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। তার মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ গোটা টলিউড।

লিভারের সমস্যাতে দীর্ঘদিন ধরেই ভুগছিলেন সোনালী। এর আগেও অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল অভিনেত্রীকে। তখন অবশ্য চিকিৎসা করে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। সুস্থ হয়ে তিনি আবার শুটিংয়ের কাজও শুরু করেছিলেন। কিন্তু গত শুক্রবার তার শারীরিক পরিস্থিতি আবার খারাপ হয়। এরপর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে হয়। কিন্তু এবারে আর সুস্থ হয়ে ঘরে ফেরা হল না তার।

টলিউডের বেশ কিছু সিনেমাতে এককালে দাপিয়ে অভিনয় করেছেন সোনালী। তারপরে তিনি স্বামী শঙ্কর চক্রবর্তীর মতই ছোট পর্দাতে কাজ করতে শুরু করেন। কিছুদিন আগে ‘গাঁটছড়া’ সিরিয়ালে নায়িকা খড়ির জেঠিমার ভূমিকায় তাকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল। তবে একটি-দুটি পর্বের পর তাকে আর টেলিভিশনের পর্দায় দেখা যায়নি। গল্পের নিরিখে তার চরিত্রটিও বেশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে এখন।

স্ত্রীর মৃত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি আবেগী পোস্ট করেছিলেন শঙ্কর চক্রবর্তী। সেখানে তেমন কোনও কিছুই না লিখে একটি কথায় তিনি লেখেন, “ভরা থাক স্মৃতিসুধায়…”। হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়ার পর সোনালীর মরদেহ তাদের বাসভবনে আনা হয়েছে। কেওড়াতলা মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য হবে। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করছেন টলিউড তারকারা। সেইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীও শোক প্রকাশ করেছেন।

সোনালীর মৃত্যুর খবর পেয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘‘বিশিষ্ট অভিনেত্রী সোনালি চক্রবর্তীর প্রয়াণে আমি গভীর শোকপ্রকাশ করছি।….তাঁর অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র দাদার কীর্তি, সংসার সংগ্রাম ইত্যাদি। চলচ্চিত্র ছাড়াও জননী, গাঁটছড়া ইত্যাদি জনপ্রিয় টিভি সিরিয়ালে তিনি অভিনয় করেছেন।…তাঁর মৃত্যু অভিনয় জগতের এক বড় ক্ষতি। আমি সোনালি চক্রবর্তীর স্বামী শংকর চক্রবর্তী সহ অন্যান্য পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।’’