মোহর ও শঙ্খের সঙ্গে বেইমানি, প্রতিবাদে সিরিয়াল বয়কটের ডাক দিল ক্ষুদ্ধ দর্শকরা

স্টার জলসায় রাত ৮টার স্লটে দীর্ঘদিন ধরে যে সিরিয়ালটি দর্শকদের মন জিতে নিয়েছিল, সেটি হল ‘মোহর’ (Mohor)। এই সিরিয়ালে নাম ভূমিকায় আছেন সোনামনি সাহা (sonamoni Saha), আর নায়িকার বিপরীতে আছেন প্রতিক সেন (Pratik Sen)। পর্দায় সোনামণি আর প্রতিকের অভিনীত চরিত্রের নাম হল মোহর আর শঙ্খদীপ। মোহদীপের এই জুটি দীর্ঘদিন ধরে ‘মোহর’ সিরিয়ালকে রাত ৮ টার স্লটে সর্বোচ্চ টিআরপি দিয়ে  এসেছে।

কিন্তু বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে এই সিরিয়ালের টিআরপি একেবারেই কমে গেছে। টুইস্টের পর টুইস্ট এনেও  ধারাবাহিকের টিআরপি আর কিছুতেই বাড়ছে না তাই শেষমেষ এই সিরিয়ালের ব্যাপক রদবদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। ৫ এপ্রিল থেকে স্টার জলসার পর্দায় চিরপরিচিত মোহর ধারাবাহিকের সেই বদল বদল চোখে পড়ছে।

৫ এপ্রিল থেকে এই ধারাবাহিক দেখানোহচ্ছে দুপুর ২ টোর স্লটে অন্যদিকে রাত ৮ টার দিকে আসছে নতুন ধারাবাহিক ‘বরণ’। এই খবর শুনে মোহদীপের ভক্তরা অবশ্য বেজায় চটেছেন, স্টার জলসার পেজে তারা রীতিমতো বাক্যবাণ দিয়ে ভরিয়ে দিয়েছেন পাশাপাশি চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে স্লট হারানোর মতো হুমকিও দিয়েছেন।

সোনামণি সাহা ও প্রতীক সেনের মতো তারকা জুটির কাছে এটা ঘোর অপমানের, দাবি ভক্তদের। তাই মোহরের জন্য একদিকে সুবিচার চেয়ে #JusticeforMohor হ্যাশট্যাগে চ্যানেলের ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামের পেজ ভরিয়ে দিচ্ছে ভক্তরা, অন্যদিকে মোহর-এর জায়গায় রাত ৮টায় শুরু হতে চলা ‘বরণ’ ধারাবাহিক বয়কটের ডাক দিয়েছে।

এক নেটিজেন লিখেছেন, ‘যেই জুটি আপনাদের এত সম্মান আর নাম এনে দিয়েছে তাদের সাথে এমন অন্যায় করতে আপনাদের রুচিতে বাধলো না। ছি ছি আর কতো নিচে নামবেন আপনারা?’ অপর একজন লেখেন, ‘মোহরের স্থান থেকে মোহরকে সরিয়ে বরণকে বরণ করেছেন। আমরা মোহর প্রেমীরা মরে যাবো তাও বরণ দেখবো না। আপনারা আমাদের সাথে যে অন্যায় যে অবিচার করেছেন তার দাম আপনাদের দিতে হবে। আপনারা কি করে ভাবতে পারলেন যে সময়ে আমরা টিভির সামনে বসে মোহর দেখতাম আর সেখানে মোহর না দেখে বরণ দেখবো ? এই জীবনে এই আশা অন্তত করবেন না। আপনারা প্লিজ ভাবুন মোহরকে রাতে মোহরের জায়গায় নিয়ে আসার জন্য তাহলে আমরা জলসার সাথে থাকবো’।