Breaking News : ফের জঙ্গি হামলা কাশ্মীরে, খতম ৩ জঙ্গি, শহিদ DSP

গত কয়েকদিন আগে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটেছে কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে। সেই ঘটনায় গোটা দেশ গর্জে উঠেছে। বদলা নেওয়ার দাবিতে ফুঁসছে দেশবাসী। ফের জঙ্গি হামলা জম্মু-কাশ্মীরে। আজ দুপুর থেকে শ্রীনগরে শুরু হয়েছে সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই।

কুলগাম জেলাতে জঙ্গি এবং সেনাবাহিনীর মধ্যে শুরু হয়েছে গুলির লড়াই। তিন জইশ জঙ্গিকে খতম করল সেনাবাহিনী। আজ রবিবার সকাল থেকে জম্মু-কাশ্মীরের কুলগাম জেলার তারিগ্রামে সেনা-জঙ্গিদের মধ্যে গুলির লড়াই শুরু হয়। দুপক্ষের মধ্যে ব্যাপক লড়াইয়ে তিন জইশ জঙ্গিকে খতম সেনা।

যদিও জঙ্গিদের ছোঁড়া গুলিতে কাশ্মীর পুলিশের ডিএসপি শহিদ হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। শুধু তাই নয়, ভারতীয় সেনার একজন মেজর সহ দুই জওয়ানও গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।তিন জঙ্গিকে খতম করলেন, এখনও বেশ কয়েকজন জইশ জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে বলে মনে করছে পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর আধিকারিকরা। আর তাদের খোঁজে শুরু হয়েছে জোর তল্লাশি অভিযান। পুরো এলাকা ঘিরে ধরে চলছে এই অভিযান।

গ্রামের একটি বাড়িতে জঙ্গিরা লুকিয়ে রয়েছে বলে খবর আসে। সেই মতো গোটা গ্রাম ঘিরে ফেলেন সেনাবাহিনীর জওয়ানরা। চলছে গুলির লড়াই। অন্যদিকে, বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে গোটা এলাকা ঘিরে ফেলেছে সেনাবাহিনী। চলছে ব্যাপক তল্লাশি।

গোটা কাশ্মীর জুড়ে ধরপাকড় ও তল্লাশি শুরু করেছে জম্মু কাশ্মীর পুলিশ৷ মূলত বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা ও বিভিন্ন সন্দেহের তালিকায় থাকা সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের আটক করা হচ্ছে৷গত দুদিনে এই আটকের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫০৷ আটকদের মধ্যে জামাত ই ইসলামি জম্মু কাশ্মীরের সদস্যই বেশি৷ এই গোষ্ঠীর প্রধান আবদুল হামিদ ফওয়াজকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে৷

Read More : ৩৭০ ধারা কি? ভারতের জন্য এটা কতটা ক্ষতিকর? জানুন বিস্তারিত

শ্রীনগরের ৫টি থানা এলাকা জুড়ে জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা৷ নৌহাট্টা, খানওয়ার, রাইনাওয়ারি, এমআর গঞ্জ ও সাফাকদাল থানা এলাকায় জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা৷ বেশ কিছু এলাকায় টহল দিচ্ছে সেনা৷ এদিকে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ডাকা বনধে কার্যত শুনশান কাশ্মীরের ব্যস্ত এলাকাগুলি৷

দোকান পাট, পেট্রেল পাম্প ও অন্যান্য ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ রয়েছে৷ পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে রাস্তার মোড়গুলিতে৷ পুলিশ সূত্রে খবর, কিছু প্রাইভেট গাড়ি ছাড়া রাস্তায় নামেনি বাস বা অন্যান্য পরিবহণ৷ এদিকে, বিভিন্ন বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতার বাড়ির ওপর নজর রেখেছে পুলিশ৷ চলছে তল্লাশি অভিযান৷