আগুন দেখে চিৎকার! ৩০ জনকে প্রাণে বাঁচিয়ে পুড়ে মরল কুকুরটিই

99

শুক্রবার রাতে বান্দারে একটি বাড়িতে ভয়াবহ আগুন লাগে। সেই আগুন দেখে বাড়িতে থাকা পোষ্য কুকুর প্রচণ্ড চিৎকার করতে থাকে। সে সময় বাড়ির সকলেই ছিল নিদ্রাবস্থায়। প্রচন্ড চিৎকারে বাড়ির সকলে ঘুম থেকে উঠে নিজেদের প্রাণ রক্ষা করলেও, শেষমেষ প্রাণ রক্ষা হয়নি ওই পোষ্য কুকুরের।

যে বাড়িতে গতকাল রাতে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে, সেই বাড়িতে কাল রাতে কমপক্ষে ৩০ জন মানুষ ঘুমাচ্ছিলেন। কুকুরের চিৎকারে তাদের ঘুম ভেঙ্গে গেলেও শেষমেষ নিজের প্রাণটি বাঁচাতে পারেনি ওই সারমেয়।

এমন ভয়ানক দুর্ঘটনাটি ঘটে গতকাল রাতে উত্তরপ্রদেশের বান্দারে। বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে বাড়ির একটি বড় অংশ। ভয়ানক আগুনের পর ওই বাড়ির পোষা কুকুরের চিৎকারে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন ৩০ জন ব্যক্তি। কিন্তু তারপরই ভয়ঙ্কর আওয়াজ করে বিস্ফোরণ হয় বাড়িতে থাকা রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারের। সেই বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় ওই পোষ্য কুকুরের।

পোষ্য কুকুরের প্রভুভক্তি এই প্রথম নয়, এর আগেও আমরা এমন ঘটনার সাক্ষী হয়ে ছিলাম উড়িষ্যার এক ঘটনাকে কেন্দ্র করে। সেখানে ভুবনেশ্বরের একটি বাড়িতে ঢুকে যায় কেউটে সাপ। সেই সাপের সাথে লড়াই করে পরিবারের সকলকে বাঁচাতে সক্ষম হলেও শেষমেশ আত্মাহুতি দিতে হয় ওই কুকুরটিকেও।

বিশ্বে মানুষ একে অপরের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা, হানাহানির ব্যস্ততার মাঝে এমন পোষ্যদের নজির আঙ্গুল তুলে মনুষ্যত্বকে।

Loading...