করোনার সঙ্গে লড়তে সহকর্মীদের উজ্জীবিত করে চিকিৎসকদের গান ভাইরাল

করোনা ভাইরাসের দাপট চীনের উহান প্রদেশ থেকে শুরু হয়ে ধীরে ধীরে তা গ্রাস করেছে ইতালি, স্পেন, আমেরিকা, ইরান, ভারত সহ বিশ্বের বেশিরভাগ দেশকে।আর এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানোর শত চেষ্টা করলেও কোনোমতেই বাগে আনা যাচ্ছে না। পরিস্থিতি দেখে আঁতকে উঠছে বিশ্বের মানুষ, আঁতকে উঠছে ভারত। ভারতে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে শুরু হয়েছে ২১ দিনের লকডাউন। আর এই লকডাউন সফল করতে উঠে পড়ে লেগেছে প্রশাসন। দিনরাত এক করে পুলিশকর্মীরা কাজ করে চলেছেন। আর অন্যদিকে সকলের নজরের আড়ালে কাজ করে চলেছেন একদল চিকিৎসক।

লকডাউনের কারনে আজ বন্ধ মন্দির, মসজিদ, গির্জার মত ধর্মীয় স্থানগুলি। তবে এই সকল স্থানের ভগবান, আল্লাহ, গড সবাই যেন ওই চিকিৎসকদের বেসে সকলের অন্তরালে নিজেদের কাজ করে চলেছেন। এক এক করে সুস্থ জীবন ফিরিয়ে দিচ্ছেন করোনা আক্রান্ত লক্ষ লক্ষ রোগীকে। আবার কখনও কখনও তাদের হতাশ হতে হচ্ছে এই রোগে হাজার হাজার মানুষকে বাঁচাতে না পেরে। তবে হতাশ হলেও তারা যুদ্ধ থেকে পিছপা হতে নারাজ।তাইতো তারা আজও মৃত্যুর হাতছানিকে উপেক্ষা করে গেয়ে চলেছেন জীবনের জয়গান। চিকিৎসকদের এমন জয়গানে আপ্লুত গোটা বিশ্ব, আপ্লুত ভারত।

রাজস্থানের একদল চিকিৎসকের এমনই জীবনের জয়গান সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যে জয়গান সাধারণ মানুষদের অসম যুদ্ধের জন্য উজ্জীবিত করছে। তাদের এই জয়গান যেন তাজা অক্সিজেন সরবরাহ করছে সমাজে। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই জয় গানের ভিডিও দেখে আপ্লুত সোশ্যাল মিডিয়ার নেটিজেনরা, ওই একদল চিকিৎসকের প্রশংসায় পঞ্চমুখ তারা।

রাজস্থানের অতিরিক্ত স্বাস্থ্য সচিব রোহিত কুমার সিং গত ২৫ শে মার্চ রাজস্থানের ভিলওয়াড়া হাসপাতালের একদল চিকিৎসকের সেই জয়গানের ৫৭ সেকেন্ড একটি ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। ভিডিওটি শেয়ার করার সাথে সাথে তিনি ক্যাপশনে লিখেছেন, “রাজস্থানের ভিলওয়াড়া সরকারি হাসপাতালের ডাক্তার মুস্তাক, গৌর, প্রজাপত, মুকেশ, জ্ঞান, ঊর্বশী, সরফরাজ ও জালাম ২৪ ঘণ্টা ধরে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করছেন। আপনারাই হলেন আমাদের আসল নায়ক। এটাই নতুন ভারতের স্পিরিট।”

আরও পড়ুন :- বিশ্বে প্রথম করোনা ভাইরাস ছড়ানো ব্যক্তিকে অবশেষে খুঁজে পাওয়া গেল

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে সকল চিকিৎসকদের নাম রাজস্থানের অতিরিক্ত স্বাস্থ্যসচিব তুলে ধরেছেন তারা করোনায় সংক্রমিত মুমূর্ষ রোগীদের চিকিৎসার পাশাপাশি নিজেদের আত্মবিশ্বাস ও দেশের আত্মবিশ্বাস অটুট রাখার জন্য সুরক্ষিত পোশাক, চশমা, মাস্ক পরে হাসপাতালে মধ্যেই গেয়েছেন ‘হাম হিন্দুস্থানি’ সিনেমার ‘ছোড়ো কাল কি বাতে, কাল কি বাত পুরানি’ গানটি। আর সেই গানের ভিডিওটি নিমেষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। হাজার হাজার মানুষ সেই ভিডিওকে রিট্যুইট করেন। চোখে জল এনে আত্মবিশ্বাস জুগিয়ে ভিডিওটি দেখে ফেলেন দেড় লক্ষের বেশি মানুষ।