ব্যাঙ্ক ছেড়ে পোস্ট অফিসে টাকা রাখুন; জেনে নিন ৯ টি স্কিম

চাকরিজীবীদের অধিকাংশই অবসরের পর পাওয়া এককালীন টাকা পোস্ট অফিসে রেখে মাসিক রোজগার যোজনার (এমআইএস) মাধ্যমে সংসার চালান৷ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের চেয়েও পোস্ট অফিসে সুদের হার একটু বেশি এবং গ্রামে ডাক ও তার বিভাগ থাকায় তা প্রবীণ নাগরিকদের কাছে খুবই আকর্ষণীয়৷ এছাড়াও কিষান বিকাশ পত্র, পোস্টাল সিনিয়র সিটিজেন স্কিম ও ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট এবং রেকারিং ডিপোজিট স্কিমেও টাকা রাখেন লক্ষ লক্ষ গ্রাহক৷ ব্যাঙ্কের পাশাপাশি ডাক বিভাগও সাধারণ মানুষের আর্থিক সুরক্ষার্থে টাকা রাখার বেশ কিছু স্কিম চালু করেছে যা আমাদের অনেকেরই অজানা।এই স্কিমগুলোতে ভালো হারে সুদও দেয় তারা।ডাক বিভাগের এই স্কিমগুলোর ব্যাপ্পারে জানেন কি ?

টাইম ডিপোজিট (টিডি) অ্যাকাউন্ট

এই স্কিমে প্রথম থেকে পঞ্চম বছর পর্যন্ত সুদ দেওয়া হয় যথাক্রমে-

এক বছরের জন্য- ৬.৬%

দুই বছরের জন্য- ৬.৭%

তিন বছরের জন্য-৬.৯%

পাঁচ বছরের জন্য-৭.৪%

 রেকারিং ডিপোজিট (আরডি) অ্যাকাউন্ট

এই স্কিমে সুদ দেওয়া হয় ৬.৯ শতাংশ। টাকা জমার সর্বোচ্চ কোনো সীমা নেই। প্রথম ৬টা ইনস্টলমেন্টের ক্ষেত্রে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থাও রয়েছে।

সেভিং অ্যাকাউন্ট

এই অ্যাকাউন্টে ৫০০ টাকা ন্যূনতম ব্যালান্স রাখা বাধ্যতামূলক। এই স্কিমে চার শতাংশ সুদ দেওয়া হয়। ৫০০ টাকা দিয়ে অ্যাকাউন্ট খুললে চেকের পরিষেবাও দেওয়া হয়। কোর ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থার (সিবিএস) মাধ্যমে টাকা তোলা এবং জমা দেওয়া যাবে। এটিএম পরিষেবাও পাওয়া যাবে।

জাতীয় সেভিং সার্টিফিকেট (এনসিএস)

বর্তমানে এই স্কিমে ৭.৬ শতাংশ হারে সুদ দেওয়া হয়। টাকা রাখার সর্বোচ্চ কোনো সীমা নেই।

পিপিএফ

এই স্কিমে সুদ দেওয়া হয় ৭.৬% হারে। এখানে ১৫ বছরের জন্য ম্যাচিওরিটি পিরিয়ড রয়েছে। টাকা ধার নেওয়ার সুবিধাও দেওয়া হয়েছে এই অ্যাকাউন্টে।

মান্থলি ইনকাম স্কিম অ্যাকাউন্ট (এমআইএস)

এই অ্যাকাউন্টে ৭.৩ শতাংশ হারে সুদ দেওয়া হয়। এই স্কিমে সিঙ্গল এবং জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে। সিঙ্গল অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে টাকা রাখার সর্বোচ্চ মাত্রা সাড়ে চার লক্ষ টাকা, এবং জয়েন্টের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ মাত্রা ন’লক্ষ টাকা।

সুকন্যা সমৃদ্ধি অ্যাকাউন্ট

এই স্কিম শুধুমাত্র মেয়েদের জন্য। কোনো মেয়ে যত দিন না দশ বছর বয়সে পদার্পণ করছে, তত দিন এই স্কিমে অ্যাকাউন্টটা দেখভাল করার দায়িত্ব অভিভাবকদের। এই অ্যাকাউন্টে সুদ দেওয়া হয় ৮.১ শতাংশ হারে।

প্রবীণ নাগরিক সেভিং স্কিম (এসসিএসএস)

প্রবীণ নাগরিকদের জন্য এটি খুব জনপ্রিয় একটা স্কিম। ৬০ বছর বা তার বয়স্ক ব্যক্তি এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। ১৫ লক্ষ টাকার বেশি টাকা এই অ্যাকাউন্টে জমা রাখা যাবে না। এই স্কিমের ম্যাচিওরিটি পিরিয়ড ৫ বছর।

কিষান বিকাশপত্র

এই স্কিমে সুদ দেওয়া হয় ৭.৩ শতাংশ। টাকা জমা দেওয়ার সর্বোচ্চ কোনো সীমা নেই।