প্রেম করছেন ‘রাণী রাসমণি’-র দিদিমা ও নাতি, টলি পাড়ায় জোর গুঞ্জন

টলিপাড়ায় আবার প্রেম গুঞ্জন।এবার প্রেম গুঞ্জন উঠলো অনস্ক্রিন দিদিমা এবং নাতির অফস্ক্রিন সম্পর্ক নিয়ে।জানা যাচ্ছে বন্ধুত্বের থেকেও সম্প্রতি বেশ গভীর হয়ে উঠেছে টেলি অভিনেত্রী দিতিপ্রিয়া রায় (Ditipriya Roy) ও বিশ্ববসু বিশ্বাসের (Biswabasu Biswas) সম্পর্ক। তবে শুধু টলি টাউনের অন্দরেই নয় বরং নেট নাগরিকদের মধ্যেও এই বিষয় নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে।

অনস্ক্রিনে জনপ্রিয় ধারাবাহিক “‘করুণাময়ী রাণী রাসমণি’তে দিদিমা এবং নাতির চরিত্রে অভিনয় করেন তারা। ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অর্থাৎ রাণীমার ভূমিকায় আছেন দিতিপ্রিয়া রায় এবং তার নাতি ভূপাল চন্দ্রের ভূমিকায় আছেন বিশ্ববসু বিশ্বাস। তবে অফ স্ক্রিনে খুব ভালো বন্ধু তারা। সম্প্রতি তাদের বন্ধুত্ব বেশ গণ্ডি পেরিয়ে বেশ কিছুদূর এগিয়েছে বলেই কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় একসাথে মাঝেমধ্যেই ছবি পোস্ট করতে দেখা যায় তাদের। বিশ্ববসুকে মজা করে বিশ্ববাংলা নাম দিয়েছেন নায়িকা। অন্যদিকে বিশ্ববসুও কম যান না, রানীমাকে ভিকি নামেই ডাকেন তিনি। অবশ্য দোষী মিডিয়া পোস্টে ফ্রেন্ডস কথাটা সবসময়ই উল্লেখ করেন দুজনেই। তাহলে কি শুধুই ফ্রেন্ডস! এটা কিন্তু একদমই ভাবতে নারাজ নেট নাগরিকরা।তাদের ছবি এবং বেশ কিছু ক্যাপশন দেখে অন্য মানে খুঁজে পাচ্ছেন তারা।

সম্প্রতি নিজের অফস্ক্রিন দিদিমা এবং অনস্ক্রিন দিদিমা অর্থাৎ দিতিপ্রিয়ার সাথে ছবি পোস্ট করেন বিশ্ববসু। ক্যাপশনে লেখেন, “আমি আমার দিদিমা এবং আমার দিদিমা।”ইনস্টাগ্রাম ঘাটলেই তাদের মিরর সেলফির ছবি, একসাথে ঘুরতে যাওয়ার ছবি সহ অনেক ছবিই পাওয়া যাবে।

দুজনের একসাথে একটি ছবির ক্যাপশনে লেখা “কারণ আমরা অন এবং অফ স্ক্রীন শেয়ার করতে ভালোবাসি..”এছাড়াও একদিন লকডাউনে ওয়ার্ক ফ্রম হোম চলার সময় বিশ্ববসুকে প্রায় ৩০ মিনিট ধরে মেকাপের ট্রেনিং দিয়েছিলেন নায়িকা।

তবে এখনই সম্পর্কের বিষয় কিছুই জানাতে নারাজ।বর্তমানে ছোট পর্দায় রানী রাসমণির পাশাপাশি বড় পর্দায় শুভ্রজিৎ মিত্রের ছবি ‘অভিযাত্রিক’ এর কাজে ব্যস্ত দিতিপ্রিয়া। সম্প্রতি কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে এই ছবির স্ক্রিনিং হয়েছে এবং এবার এই ছবি ভারতীয় আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের জন্য গেছে।অন্যদিকে ছোটপর্দায় নতুন ধারাবাহিক ‘মিঠাই’-এর কাজে ব্যস্ত বিশ্ববসু বিশ্বাস।