করোনা ভাইরাস এর বিরুদ্ধে লড়াইতে কোন ভারতীয় ক্রিকেটার কত অনুদান দিয়েছেন

Cricketers who have donated to help India fight the coronavirus pandemic

বর্তমানে সারা বিশ্বে ত্রাসের ওপর নাম করোনা ভাইরাস। গত এক বছর করোনার থাবায় পড়েনি এমন দেশ খুঁজে বের করা খুব মুশকিল। দেশগুলিতে ধ্বংসলীলা চালানোর পর প্যান্ডেমিক আখ্যা নিয়ে করোনা ভাইরাস থাবা বসিয়েছে ভারতবর্ষে। এমন পরিস্থিতিতে ভারতের প্রভাবশালী এবং বিত্ত শালী মানুষেরা এই সঙ্কটকালীন পরিস্থিতিতে লড়াই করার জন্য অনুদান দিয়েছিলেন। বাদ যায়নি ভারতের ক্রিকেটাররাও। দেখে নিন কোন ভারতীয় ক্রিকেটার করোনা ভাইরাস এর বিরুদ্ধে লড়াইতে কত অনুদান দিয়েছেন।

১. শচীন টেন্ডুলকার (৫০ লক্ষ) :- মাস্টার ব্লাস্টার মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিল এবং প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলকে প্রত্যেকে টিতে  ২৫ লক্ষ ডলার অনুদান দিয়েছিলেন।  টেন্ডুলকার উত্তরাখণ্ড বন্যার ত্রাণ তহবিল এবং সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ান রেড ক্রসকে অনুদান দিয়েও দাতব্য কর্মকাণ্ডে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন।

২. সৌরভ গাঙ্গুলি (চালের মূল্য ৫০ লক্ষ) :- বিসিসিআই সভাপতি, সৌরভ গাঙ্গুলিও ২১ দিনের লকডাউনের সময় অভাবীদের জন্য ৫০ লাখ চাল দান করে নিজের কাজটি করেছেন।  ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল এক বিবৃতিতে উল্লেখ করেছে যে প্রাক্তন অধিনায়ক চাল ব্র্যান্ড লাল বাবা রাইসের সহায়তায় চাল বিতরণ করবেন।

৩. ইরফান পাঠান এবং ইউসুফ পাঠান (৪,০০০ ফেস মাস্ক):- ইরফান পাঠান ২৩ শে মার্চ নিজের টুইটারে ঘোষণা করেন যে তিনি এবং তাঁর ভাই ইউসুফ পাঠান তাদের বাবার পরিচালিত সংস্থা মেহমুদ খান পাঠান চ্যারিটেবল ট্রাস্টের ব্যানারে স্বাস্থ্য বিভাগকে ৪,০০০ ফেস মাস্ক দান করছেন। লিঙ্কে ক্লিক করে দেখুন সেই টুইট।

৪. শিখর ধাওয়ান :- ভারতীয় ক্রিকেট দলের ওপেনার শিখর ধাওয়ান টুইটারে একটি ভিডিওতে জনগণকে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল এবং তাদের মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে অবদান রাখার এবং অভাবীদের সাহায্য করার আহ্বান জানিয়েছেন।  ধাওয়ান ভক্তদের হাত মিলিয়ে করোনার ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য অনুরোধ করেছিলেন।

৫. গৌতম গম্ভীর (৫০ লক্ষ) :- প্রাক্তন ভারতীয় উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান গৌতম গম্ভীর করোনভাইরাসকে ছড়িয়ে দিতে সরকারের চাপে দ্রুত চিকিত্সা ও ত্রাণ প্রচেষ্টা সহজ করতে তার এমপি এলএডি তহবিল থেকে ৫০ লক্ষ অবদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। ২৮ শে মার্চ, গম্ভীর টুইটারেও ঘোষণা করেছিলেন যে তিনি তার এমপি এলএডি ফান্ড থেকে ১ কোটি টাকা সেন্ট্রাল রিলিফ ফান্ডে দেবেন।

৬. লক্ষ্মী রতন শুক্লা :- ওয়ানডে ফরম্যাটে ভারতের প্রতিনিধিত্বকারী বেঙ্গল অলরাউন্ডার লক্ষ্মী রতন শুক্লা টুইটারে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন যাতে তিনি জনগণকে যে কোনও উপায়ে অবদান রাখতে অনুরোধ করেছেন।  ৩৮ বছর বয়সী এই ব্যক্তি তার বেতনের তিন মাস মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে অবদান রেখেছেন বলে জানা যায়।

 ৭. অজিংক্যা রাহানে (১০ লক্ষ) :- এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে ১০ লক্ষ  অনুদান দিয়েছিলেন , ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের প্রচেষ্টাকে সহায়তা করার প্রয়োজনের বার্তাটি সক্রিয় ভাবে প্রচার করেছেন তিনি।

 ৮. সুরেশ রায়না (৫২ লক্ষ) : – বাম হাতি-ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়নাও প্রধানমন্ত্রী কেয়ারস তহবিলে ৩১ লাখ এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে ২১ লাখ টাকা বিভক্ত করার কথা জানান।

৯. রিচা ঘোষ (১ লক্ষ) :- কিশোর ব্যাটিং সেনসেশন রিচা ঘোষ, যিনি মহিলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী এর ত্রাণ তহবিলে ১ লক্ষ অনুদান দিয়েছিলেন।