লজ্জার মাথা খেয়ে ঠাকুমা হওয়ার বয়সে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন এই ৫ বলিউড অভিনেত্রী

বয়স ৩ কাল পেরিয়ে ঠেকেছে ১ কালে, লজ্জার মাথা খেয়ে ৫০ পেরিয়ে বিয়ে করেছেন এই ৫ বলিউড অভিনেত্রী

Bollywood actress who married After 40

সাধারণত প্রেম কিংবা বিয়ের বয়স হয় না কোনও। তবে সমাজ স্বীকৃত নিয়মে ৩০ বছর বয়সটাকেই বিয়ের উপযুক্ত বলে নিয়মে বেঁধে দেওয়া হয়েছে। তবে বলিউডের (Bollywood) তারকারা কোনও নিয়মেরই ধার ধারেন না। প্রেম, বিয়ে কিংবা সন্তানের বিষয়ে বয়সের কোনও ছুঁতমার্গ নেই তাদের। বলিউডে এমন অনেক অভিনেত্রী রয়েছেন যারা ৪০, ৫০ এমনকি ৬০ বছর বয়সের পরেও বিয়ে করেছেন। এই তালিকায় রয়েছেন কোন কোন নায়িকা, দেখে নিন এক নজরে।

প্রীতি জিন্টা (Preity Zinta) : ‘কই মিল গয়া’, ‘কাল হো না হো’ এর মত একাধিক সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করেছেন প্রীতি। বলিউডের এই সুন্দরী শাহরুখ খান থেকে শুরু করে হৃত্বিক রোশন, সেইফ আলি খানের মত একাধিক সুপারস্টারের সঙ্গে কাজ করেছেন। তিনি নিজেও হয়ে উঠেছিলেন একজন সুপারস্টার। বহু তারকার সঙ্গে তার প্রেমের গুঞ্জন রটলেও ২০১৬ সালে ৪১ বছর বয়সে জিন গুডএনাফকে বিয়ে করেন প্রীতি। সদ্য দুই যমজ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তারা।

preity zinta husband

উর্মিলা মাতন্ডকর (Urmila Matondkar) : ৯০ এর দশকের এই বলিউড সুন্দরীর প্রেমে একসময় হাবুডুবু খেতেন পুরুষেরা। কেরিয়ারের শীর্ষে থাকাকালীন বিয়ে করেননি উর্মিলা। ২০১৬ সালে তিনি বিয়ে করেন মডেল তথা ব্যবসায়ী মহসিন আখতার মীরকে। বিয়ের সময় উর্মিলার বয়স ছিল ৪২ বছর।

ফারহা খান (Farah Khan) : ফারহা খান বলিউডে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন কোরিওগ্রাফার হিসেবে। পরে তিনি হয়ে ওঠেন একজন সফল ডিরেক্টর। অনেক সফল ছবি তিনি উপহার দিয়েছেন বলিউডকে। ‘ম্যায় হু না’ ছবির সেটে তার সঙ্গে আলাপ হয় তার স্বামী শিরীষের। কয়েক বছর প্রেম করার পর তারা বিয়ে করেন ২০০৪ সালে। বিয়ের সময় ফারহার বয়স ছিল ৪০ বছর।

নীনা গুপ্তা (Neena Gupta) : নীনা গুপ্তা বলিউডের একজন সাহসী অভিনেত্রী। জীবনে অনেক কঠিন পরিস্থিতিতে অনেক কঠিন সিদ্ধান্ত তাকে নিতে হয়েছে। ভিভ রিচার্ডসের সঙ্গে সম্পর্ক, বিয়ের আগেই মা হওয়া, সারা জীবন নিজের সন্তানকে একা মানুষ করা, নীনা গুপ্তা তৎকালীন সময়ে যা করেছিলেন তা অনেকেই ভাবতে পারবেন না এখনও। ২০০৮ সালের বিবেক মেহরাকে যখন তিনি বিয়ে করেন তখন তার বয়স ছিল ৫৪ বছর।

সুহাসিনী মুলে (Suhasini Mulay) : বলিউডের অন্যতম সুন্দরী অভিনেত্রী ছিলেন সুহাসিনী। ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি লিভ ইন রিলেশনশিপে দিন কাটাচ্ছিলেন। তবে তারপর তার সম্পর্ক ভেঙে যায়। এরপর তিনি অতুল গুরতুরের সঙ্গে সম্পর্কে আবদ্ধ হন এবং ২০১১ সালে তারা বিয়ে করে নেন। বিয়ের সময় সুহাসিনীর বয়স ৬০ বছরেরও বেশি ছিল।