এবছরের বিশ্বের ধনীতম ব্যাক্তি কে, তার একদিনের রোজগার কত

ঝড়ের গতিতে সম্পত্তির পরিমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে টেসলরের (Teslor) কর্ণধার ইলন মাস্কের (Elon Musk)।আগেই ফেসবুকের (Facebook) কর্ণধার মার্ক জুকারবার্গকে (Mark Zuckerberg) টপকে বিশ্বের তৃতীয় ধনী ব্যাক্তির জায়গা দখল করে নিয়েছিলেন তিনি।

এবার ব্লুমবার্গ বিলিওনেয়ার ইনডেক্সের (Bloomberg Billionaires Index) তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে মাইক্রোসফটের (Microsoft) কর্ণধার বিল গেটসকেও (Bill Gates) পেছনে ফেলে বিশ্বের ধনী ব্যাক্তিদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছেন  তিনি।

ব্লুমবার্গ সম্পত্তির হিসেবে বিশ্বের সবথেকে ধনী ৫০০ জন ব্যাক্তির নামের তালিকা প্রকাশ করেছে।তবে জানুয়ারি মাসে মাস্ক (Musk) ছিলেন এই তালিকায় ৩৫ নম্বরে। সেপ্টেম্বর মাসে তিনি প্রথম পাঁচের তালিকায় নিজের নাম যোগ করে নেন এবং তারপরই টপকে জন ফেসবুক (Facebook) কর্ণধারকে।

এখন নভেম্বর মাসে বিল গেটস (Bill Gates) কেও টপকে বিশ্বের দ্বিতীয় ধনী ব্যাক্তি হয়ে গেলেন তিনি। চলতি বছরে বিশ্ব জোড়া করোনা আবহের মধ্যেই ১০ হাজার কোটি ডলার সম্পত্তির বৃদ্ধি ঘটেছে ইলন মাস্কের (Elon Musk)। এর ফলে তার সম্পত্তির পরিমাণ ৭০০ কোটি ডলার থেকে বেড়ে হয়েছে ১২ হাজার ৭৯০ কোটি ডলার। তার ব্যবসায় বৃদ্ধি হয়েছে প্রায় ৪৭৫ শতাংশ।

বর্তমানে বিশ্বের ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় প্রথম স্থানে আছেন আমাজনের (Amazon) কর্নধার জেফ বেজোস (Jeff Bezos)। তবে ১৯৯৫ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ্য সময় ধরে এই এক নম্বর স্থানটি দখল করে রেখেছিলেন মাইক্রোসফটের (Microsoft) সহ-প্রতিষ্ঠাতা গেটস (Bill Gates)।

২০১৮ সালে তাকে টপকে এই স্থানটি দখল করেন আমাজনের কর্নধার জেফ বেজোস (Jeff Bezos)। অ্যামাজনের কর্ণধার জেফ বেজোসের ধনসম্পদ বাড়ল ১৩ বিলিয়ন ডলার। যা ভারতীয় মুদ্রায় ১০ হাজার ২২৭ কোটি টাকা রোজগার করেছেন বেজোস, কেবল এক দিনে!

বিল গেটসের (Bill Gates) মোট সম্পত্তির পরিমাণ ২০০৬ সালে ছিল ৫০ বিলিয়ন ডলার, অর্থাৎ ৫ হাজার কোটি ডলার যা ১০ বছর পড়ে অর্থাৎ ২০১৬ সালে এই সম্পত্তির পরিমাণ দাঁড়ায় ৭৫ বিলিয়ন অর্থাৎ সাড়ে ৭ হাজার কোটি ডলারে।বর্তমানে তার সম্পত্তির পরিমাণ ১২ হাজার ৭৭০ কোটি ডলার।

নিজের ফাউন্ডেশনের জন্য বিপুল পরিমাণ অর্থ অনুদান দেন তিনি।এমনকি কোরোনা সংক্রান্ত নানারকম কর্মসূচিতেও অর্থ অনুদান দিয়েছেন তিনি। বর্তমানে বিশ্বের ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় তৃতীয় স্থানে পৌঁছে গেলেন তিনি এবং তাকে টপকে গেলেন ইলন মাস্ক (Elon Musk)।