পেঁয়াজ-রসুন ছাড়া কচুপাতার এই রান্নার কাছে মাছ-মাংস ফেল, আঙুল না চাটলে পয়সা ফেরত

কচুপাতা আর মটর ডাল দিয়ে ইউনিক স্টাইলের এই রান্না পেলে আঙ্গুল চেটে খাবে সবাই

মা-ঠাকুমাদের হেঁসেলের কত দুর্দান্ত রান্নার রেসিপি আজ হারিয়ে যাওয়ার মুখে। খুব সাধারণ কিছু উপকরণ ও হাতের যাদুতে তারা এমন এমন সুন্দর সমস্ত খাবার মুখের সামনে তুলে ধরতেন যা স্বাদে ঠিক অমৃতের মত মনে হত। আর সেরকমই একটি রেসিপি রইল এই প্রতিবেদনে। শিখে নিন কচু পাতা দিয়ে ধোকা রান্নার দারুন সুস্বাদু একটি রেসিপি।

কচু পাতা দিয়ে ধোকা রান্নার জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ : কচুর পাতা ও মটর ডাল দিয়ে ধোকা রান্নার এই অভিনব রেসিপির জন্য প্রয়োজন পড়বে মটর ডাল, কচু পাতা, নুন, হলুদ, কাঁচা লঙ্কা, আদা বাটা, গোটা জিরে এবং গোটা ধনে, সরষের তেল, ছোট এলাচ, তেজপাতা, লবঙ্গ, টমেটো টুকরো, চিনি, চার মগজ বাটা ও গরম মসলা গুঁড়ো বা বাটা।

কচু পাতা দিয়ে ধোকা রান্নার পদ্ধতি : এই রান্নার জন্য প্রথমে মটর ডাল বেশ কিছুক্ষণ জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে। এবার এই মটর ডাল ভাল করে বেঁটে নিতে হবে। এবার ৩-৪ টি কাঁচা লঙ্কা এবং আদা বেটে ডাল বাটার মধ্যে দিয়ে সামান্য চিনি, লবণ ও হলুদ মিশিয়ে মাখিয়ে নিন। অন্যদিকে কচু পাতা ভাল করে জলে ধুয়ে কচুপাতার উপরে লবণ এবং কাঁচা তেল ছড়িয়ে ভাল করে পাতার উপরের অংশ ম্যারিনেট করে নিন। এবার এর উপরে ডালবাটাটা রেখে হাতের সাহায্যে সমান করে নিন।

এইভাবে একটার উপর আরেকটা কচু পাতায় ডাল বাটার লেয়ার বানিয়ে ৩-৪ টি লেয়ার হলে মুড়ে নিয়ে একটা সুতোর সাহায্যে বেঁধে নিন। এবার একটি পাত্রে জল গরম করে তার মধ্যে এই কচুপাতা মোড়ানো ডাল বাটা সেদ্ধ হতে দিতে হবে। সেদ্ধ হয়ে গেলে এবার গরম জল থেকে তুলে ঠান্ডা হতে দিন। তারপর একটা ছুরির সাহায্যে এই কচুপাতা মোড়ানো সেদ্ধ ডালবাটা ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিতে হবে।

তারপর কড়াইতে সামান্য সরষের তেল গরম করুন। এবার এর মধ্যে টুকরো করে কেটে নেওয়া পাতা সমেত সেদ্ধ ডাল বাটা বা কচু পাতার ধোকা ভেজে তুলে নিন। এবার ওই তেলের মধ্যে তেজপাতা, গোটা জিরে, ছোট এলাচ ও লবঙ্গ ফোড়ন দিয়ে তারমধ্যে আদা বাটা, ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নেওয়ার টমেটো, জিরে-ধনে বাটা দু’তিনটে চেরা কাঁচা, গোটা কাঁচা লঙ্কা, লঙ্কার গুঁড়ো লবণ এবং হলুদ দিয়ে কষিয়ে নিন।

এবার এর মধ্যে চার মগজ বাটা দিয়ে আবার মিশিয়ে সামান্য জল দিয়ে ফুটতে দিন। তারপর এর মধ্যে কচু পাতার ধোকার টুকরোগুলো দিয়ে উপর থেকে সামান্য গরম মশলা গুঁড়ো কিংবা বাটা গরম মসলা ছড়িয়ে নামিয়ে নিন আর গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।