মেয়েদের উচ্ছন্নে পাঠাচ্ছে বাংলা সিরিয়াল, লীনা গাঙ্গুলীকে ধুয়ে দিলেন বিপ্লব চ্যাটার্জী

মেয়েরা উচ্ছন্নে যাচ্ছে, চোখের সামনে চলছে নোংরামি, বাংলা সিরিয়াল সম্পর্কে বিস্ফোরক বিপ্লব চ্যাটার্জী

Biplab Chatterjee

হালফিলের বাংলা ধারাবাহিক (Bengali Serial) এবং টলিউড ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে বেজায় বিক্ষুব্ধ বর্ষীয়ান অভিনেতা বিপ্লব চ্যাটার্জী (Biplab Chatterjee)। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া নানা সাক্ষাৎকারে উঠে আসে তার মনের জমে থাকা ক্ষোভ। তিনি স্পষ্টবক্তা, রেখে ঢেকে কথা বলেন না। একসময় পর্দায় তার অভিনয় হাড়ে কম্পন ধরাতো। আজ তার বাক্যবাণে জর্জরিত টলিউড। সদ্য বাংলা ধারাবাহিক নিয়ে তার বলা কিছু কথায় তোলপাড় হয়েছে টলিউড।

বিপ্লব চ্যাটার্জীর কথায়, হালফিলের বাংলা ধারাবাহিকে মেয়েদের অবমাননা করা হচ্ছে। মা-মাসিদের চরিত্রগুলিকে এমন ভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে যেভাবে দেখতে পছন্দ করবেন না কেউই। মহিলাদের অসম্মান করে কার্যত সমাজকেই অবক্ষয়ের মুখে ঠেলে দিচ্ছে বাংলা সিরিয়ালগুলো। এই প্রসঙ্গে টেলিমিডিয়ার প্রযোজক-পরিচালক তথা লেখিকা ও চিত্রনাট্যকার লীনা গাঙ্গুলীকে কার্যত তুলোধোনা করেছেন তিনি।

একজন মহিলা হয়ে মেয়েদের এভাবে তুলে ধরার পরিপ্রেক্ষিতে লীনা গাঙ্গুলীকে ‘গুলি করে মারা উচিত’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি। বিপ্লব চ্যাটার্জীর কথায়, ‘‘নিজের মা-মাসিকে খারাপ দেখানো হলে কেউ মেনে নেবেন? সেটা কেউ নিতে পারবেন না। তা হলে পর্দায় তাঁদের এ ভাবে দেখানো হচ্ছে কেন? এঁরা সংসারের স্তম্ভ। এঁরা কখনওই খারাপ হতে পারেন না।’’

বাংলা সিরিয়াল দেখতে পছন্দ করেন না বিপ্লব চ্যাটার্জী। তবে তার স্ত্রী যেহেতু দেখেন তাই মাঝে মধ্যে তাকেও টিভির সামনে বসতে হয়। কিন্তু এই সিরিয়ালগুলো তাকে হতাশ করে। সিরিয়াল দেখতে বসে তিনি দেখেন পরিবারের মা, মাসি, পিসি, কাকিমাদের মত ‘সংসারের স্তম্ভ’ যে চরিত্রগুলি, তাদেরকেই অত্যন্ত খারাপভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে। এই ‘নোংরামি’ সহ্য করতে পারেন না টলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা। তাই তিনি প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

Biplab Chatterje Made an Controversial Comment on Leena Ganguly for Her Scripts

প্রত্যেক ধারাবাহিকের একই গল্প। শাশুড়ি-বৌমার কোন্দল, কুটকাচালি, বৌ থাকা সত্ত্বেও ‘রক্ষিতা’কে বাড়িতে এনে রাখা কিংবা স্বামীর দু-তিনবার বিয়েই প্রত্যেক ধারাবাহিকের ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে। এতে সমাজেও ভুল বার্তা পৌঁছাচ্ছে। উল্লেখ্য কেন্দ্র থেকেও প্রয়োজনে আইনের সাহায্য নিয়ে ছবি এবং ধারাবাহিকে ‘খলনায়িকা’ চরিত্র নিষিদ্ধ করার কথা বলা হয়। এই প্রসঙ্গে আনন্দবাজারকে অভিনেতা বলেছেন, ‘‘তা হলেই বুঝুন, ধারাবাহিকের মান কোথায় নেমেছে! আমি তো আর কেন্দ্রকে এই নিয়ে অভিযোগ জানাতে যাইনি।’’

Biplab-Chatterjee

সঙ্গে তার সাফ বক্তব্য, তিনি যেহেতু এর প্রতিবাদ করেন তাই তাকে কোনও ধারাবাহিকে অভিনয়ের জন্য ডাকা হয় না। সংবাদমাধ্যমকে তিনি আরও জানিয়েছেন একবার তো তাকে একটি চ্যানেল সাফ জানিয়েই দিয়েছিল, ‘‘কোনও শিক্ষামূলক ধারাবাহিক আমরা দিইনা’’! মহিলা এবং সমাজের অবক্ষয়ের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এই সিরিয়ালগুলো, এমনটাই মনে করেন বিপ্লব চ্যাটার্জী।