জাতীয় মঞ্চে বাংলা সিনেমার জয়জয়কার, সেরা ভারতীয় ১০ ছবির প্রথম তিনে এই ৩ বাংলা ছবি

সর্বকালের সেরা ভারতীয় ছবির প্রথম ৩ স্থান জিতে নিল এই ৩ টি বাংলা ছবি

কে বলে বাংলা ছবির (Bengali Movie) এখন কদর করে না কেউ? বর্তমান বিনোদনের বাজারে বলিউড এবং দক্ষিণী ছবির দাপটে বক্স অফিসে বাংলা ছবি অনেক পিছিয়ে থাকতে পারে কিন্তু গুণীদের নজরে বাংলা ছবিই সেরা। সেখানে বাংলাকে হারানোর মত ক্ষমতা নেই কোনও দক্ষিণী বা বলিউড ছবির। আন্তর্জাতিক মঞ্চে সেরার সেরা ভারতীয় ছবি (Best Indian movie) হিসেবে জায়গা করে নিল বাংলার তিন-তিনটে ছবি।

সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অফ ফিল্ম ক্রিটিকসের ইন্ডিয়া চ্যাপ্টার একটি সমীক্ষার আয়োজন করেছিল। সেখানে সমালোচকদের বিচারে সেরা ভারতীয় ছবি বেছে নেওয়া হয়েছে। এই সমীক্ষার ফলাফলে গর্বে মাথা উঁচু হয়ে গেল বাঙালিদের। কারণ তালিকার প্রথম তিনটে স্থান দখল করে নিয়েছে বাংলা ছবি। সেরার সেরা, পথের পাঁচালী, মেঘে ঢাকা তারা এবং ভুবন সোম।

All You Need to Know About Pather Panchali Actress Uma Dasgupta

সত্যজিৎ রায়ের পথের পাঁচালী ভারতীয় সিনেমা ইতিহাসে কালজয়ী সিনেমা। গোটা বিশ্ব এই সিনেমা দেখেছে এবং সত্যজিৎ রায়ের কাছে মাথা নোয়াতে বাধ্য হয়েছে। ১৯৫৫ সালে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে সত্যজিৎ রায় তার প্রথম ছবিটি তৈরি করেছিলেন। এই ছবির হাত ধরে এই অস্কার পেয়েছিলেন তিনি।

এফআইপিআরএসসিআই’য়ের সমীক্ষার ফলাফল বলছে বলিউড হোক বা কলিউড, ভারতীয় সিনে দুনিয়াতে পথের পাঁচালী সবার সেরা। ৩০ জন গোপন সদস্য এই ভোটাভুটিতে অংশ নেন। তাদের বিচারে পথের পাঁচালী পেয়েছে শ্রেষ্ঠ আসন। কারণ সত্যজিৎ রায়ের এই ছবির মাধ্যমেই ভারতীয় সিনেমায় ‘নিওরিয়্যালিজম’-এর যুগান্তর ঘটে যায়। সত্যজিৎ রায়ের জন্ম শতবর্ষে পথের পাঁচালী বাংলা সিনেমাকে আরও একবার উদ্বুদ্ধ করল।

দ্বিতীয় ছবি হল ঋত্বিক ঘটকের মেঘে ঢাকা তারা। ১৯৬০ সালে শক্তিপদ রাজগুরুর উপন্যাস অবলম্বনে এই ছবি বানিয়েছিলেন পরিচালক যা বিশ্ব চলচ্চিত্রের মানদণ্ডে বাংলা সিনেমাকে নতুন মাত্রা এনে দেয়। এরপর রয়েছে মৃণাল সেনের ‘ভুবন সোম’। উৎপল দত্ত এবং সুহাসিনী মূলে অভিনীত এই ছবিটি তালিকাতে তৃতীয় স্থান পেয়েছে। শুধু তাই নয়, আরও এক বাংলা সিনেমা ঠাঁই পেয়েছে এই তালিকায়। সেখানেও সত্যজিতের জয়জয়কার।

চতুর্থ, পঞ্চম এবং ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে যথাক্রমে মালায়ালাম ছবি ‘এলিপ্পাথায়াম’, কন্নড় ছবি ‘ঘাটশ্রাদ্ধ’ এবং ‘গরম হাওয়া’। সপ্তম স্থানে আবার জায়গা করে নিয়েছে সত্যজিৎ রায়ের বাংলা ছবি ‘চারুলতা’। অষ্টম স্থানে রয়েছে শ্যাম বেনেগালের ‘অঙ্কুর’ ছবিটি। নবম স্থানে রয়েছে গুরুদত্তের ‘পিয়াসা’ এবং দশম স্থানে রয়েছে ‘শোলে’।