পেঁয়াজ-রসুন ছাড়া ১০ মিনিটে শুধু আলু দিয়ে রাঁধুন এইভাবে, ভাত-রুটির সঙ্গে আঙ্গুল চেটে খাবেন

পেঁয়াজ-রসুন ছাড়া রান্নাতে আসবে রাজকীয় স্বাদ, আলু এইভাবে রাঁধলে আঙুল চেটে খাবেন কথা দিলাম

Bengali Kitchen style Veg Aaloor Dom Recipe

রুটি, লুচি, পরোটা হোক বা পোলাও সবের সঙ্গেই সেরা কম্বিনেশন হয় আলুর রেসিপির। বিশেষত নিরামিষ আলুর দমের রান্নার কাছে মাছ-মাংসও ফেল করে যায়। আজ এই প্রতিবেদনে রইল এমন একটি রেসিপি যেখানে পেঁয়াজ রসুন ছাড়া খুব কম উপকরণে মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যেই রেঁধে ফেলতে পারবেন সুস্বাদু আলুর দম (Veg Aalur Dom)। তাই আর দেরি না করে চটজলদি শিখে নিন এই রান্নাটা।

নিরামিষ আলুর দম বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ : বাড়িতে নিরামিষ দিনে কিংবা পূজা পার্বণে অতি সহজে এইভাবে বানিয়ে নিতে পারবেন নিরামিষ আলুর দম। ঘরে এইভাবে নিরামিষ আলুর তরকারি বানানোর জন্য প্রয়োজন হবে আলু, জিরে, হিং, কাঁচালঙ্কা, হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কার গুঁড়ো, নুন, কসৌড়ি মেথি, গরম মসলা গুঁড়ো, চাট মশলা, তেল, ধনেপাতা কুচি।

নিরামিষ আলুর দম বানানোর পদ্ধতি : এইভাবে আলুর দম রান্নার জন্য প্রথমে গোটা গোটা আলু খোসা সমেত ভালো করে জলে ধুয়ে প্রেসারে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এবার আলু সেদ্ধ হয়ে গেলে প্রেসার কুকার থেকে বের করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে প্রথমে। এক্ষেত্রে আলুর গোটা গোটা টুকরো রান্নায় ব্যবহার হবে না। তাই আলুর খোসা ছাড়িয়ে হাতের সাহায্যেই আলু গুলোকে ভেঙে নিতে হবে।

উপরের ছবির মত আলুর কয়েকটি টুকরো এইভাবে স্ম্যাশ করে নিন। এবার রান্নার মূল ধাপে কড়াইতে তেল গরম করে প্রথমে তার মধ্যে জিরে, হিং, চেরা কাঁচা লঙ্কা ফোড়ন হিসেবে দিতে হবে। তারপর সামান্য নেড়েচেড়ে নিয়ে এর মধ্যে টমেটো বাটা, হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কার গুঁড়ো স্বাদ অনুযায়ী নুন দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে। আগে থেকে স্ম্যাশ করে নেওয়া আলু দিয়ে ৩ থেকে ৪ মিনিট মশলার সঙ্গে আলু কষিয়ে নিতে হবে।

এবার এই তরকারির মধ্যে পরিমাণ অনুযায়ী জল দিয়ে আঁচ বাড়িয়ে ভাল করে ফুটিয়ে গ্রেভি বানিয়ে নিন। এবার এর মধ্যে উপর থেকে কসৌরি মেথি, গরম মসলার গুঁড়ো এবং চাট মসলা ছড়িয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এইভাবে মসলা দিয়ে দেওয়ার পরও আরও ২ মিনিট রান্না করে নিতে হবে। এবার রান্নাটা একেবারে শেষ ধাপে পৌঁছে গেলে উপর থেকে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে দিন।

ধনেপাতা কুচি ছড়ানো হয়ে গেলেই নামিয়ে নিতে হবে সুস্বাদু আলুর দম। শীতের সকালে জলখাবারে কিংবা দুপুরের লাঞ্চে ভাতের সঙ্গে একেবারে জমে যাবে জিভে জল আনা এই রেসিপি। ভাত, রুটি, পরোটা হোক বা পোলাও বাঙালির কি আর আলুর দম না হলে চলে? তাই এবার থেকে যখনই কী রাঁধবেন ভেবে পাচ্ছেন না বলে মনে হবে তখন মাত্র ১০ মিনিটে এই রান্নাটা রেঁধে ফেলবে হতে পারেন। আঙুল চেটে খাবে সবাই।