‘বাংলাদেশের সাহিত্যে রবীন্দ্রনাথের অবদান নেই’, নোবেলের উক্তিতে তোলপাড় নেটপাড়া

‘তার গানের চর্চা হয় এটাই রবীন্দ্রনাথের জন্য বেশি’, কবিগুরুকে অপমানজনক মন্তব্য নোবেলের

এই মুহূর্তে হিরো আলমকে (Hero Alom) নিয়ে গোটা বাংলাদেশ (Bangladesh) রীতিমতো তোলপাড়। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের (Rabindranath Tagore) গান নিয়ে প্যারোডি বানিয়ে তিনি বুদ্ধিজীবীদের চোখে অপরাধীতে পরিণত হয়েছেন। এই নিয়ে বহুবার সাফাই দিলেও তার কথা শুনতে সকলেই নারাজ। শেষমেষ বাংলাদেশের বুদ্ধিজীবীরা হিরো আলমের বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দেন। পুলিশের হাতে গ্রেফতারও হতে হয় ভাইরাল গায়ককে।

শুধু তাই নয়, ডিবির তৎপরতায় রীতিমতো সাদা কাগজে মুচলেখা দিতে হয়েছে হিরো আলমকে। তিনি লিখে দিয়েছেন যে এরপর থেকে তিনি আর কখনও রবীন্দ্রনাথ এবং নজরুলের গান গাইবেন না। যদিও এই ঘটনার পর হিরো আলমের হয়ে সোচ্চার হয়েছেন বাংলাদেশের একাধিক মানুষ। এবার হিরো আলমের হয়ে মুখ খুললেন বাংলাদেশের গায়ক মইনুল আহসান নোবেল (Mainul Ahsan Noble)।

নোবেল শুধু হিরো আলমের পক্ষ নিয়ে কথা বলেই থেমে থাকেননি, সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে এই নিয়ে একটি পোস্ট করে তিনি রীতিমত বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকেও অপমান করেছেন বলে দাবি করছেন নেটিজেনরা। তিনি তার পোস্টে লিখেছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কোনও দেবতা নন যে তার গানের প্যারোডি করা যাবে না!

নোবেল লিখেছেন, “রবীন্দ্রনাথ-নজরুল তো আর নবী কিংবা দেবতা না যে তাদের গান প্যারোডি আকারে গাওয়া যাবে না! যে রবীন্দ্রনাথ এদেশের কবিদের মূল্যায়ন করে যাই নাই তারে নিয়ে যে এদেশে চর্চা হয় এটাই রবীন্দ্রনাথের জন্য বেশি। তাছাড়া বাংলাদেশের সাহিত্যে যেহেতু রবীন্দ্রনাথের অবদান নিতান্তই কম, নেই বললেই চলে, সেক্ষেত্রে তার গান এদেশের কেউ যদি প্যারোডি আকারে গায় সেটা রবীন্দ্রনাথের জন্যই মঙ্গলজনক।”

নোবেলের এই মন্তব্যের পর কমেন্ট বক্সে তাকে ধুয়ে দিচ্ছেন নেটিজেনরা। হিরো আলমের পর এবার তার বিরুদ্ধেও আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলছেন তারা। অনেকে তার মস্তিষ্কের সুস্থতাও কামনা করছেন। সারা বিশ্ব যাকে সম্মান করে, সেই বিশ্বকবিকে নিয়ে আলটপকা মন্তব্য করে নোবেল নিজেই এখন কটু কথা শুনছেন।

 

উল্লেখ্য, বুদ্ধিজীবীদের চাপে পড়ে হিরো আলমকে লিখে দিতে হয়েছে যে তিনি এরপর থেকে রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল গীতি এবং লালনের গান গাইবেন না। তবে তিনি নিজের সৃষ্ট এবং সুর করা গান গাইতে পারবেন। শীঘ্রই তার নতুন গান মুক্তি পাবে বলে জানিয়েছেন ভাইরাল গায়ক। সেখানে তাকে এক ফাঁসির আসামি হিসেবে দেখানো হবে।