এক ঝলকে দেখে নিন অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর অনুষ্ঠান সূচি

দীর্ঘ কয়েক দশকের বিতর্কিত জমিতে রাম মন্দির নির্মাণের পক্ষে গত বছর নভেম্বর মাসে রায় দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত। দীর্ঘ অপেক্ষার পর আজ বুধবার সেই রাম মন্দির নির্মাণের ভূমি পুজো অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। রাম মন্দিরের ভূমি পুজো অর্থাৎ মন্দিরের শিলান্যাস করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর এই অনুষ্ঠানকে ঘিরে আগাম তৈরি করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর সফরসূচি এবং ভূমি পুজোর সূচি।

আজ অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর সূচি এবং প্রধানমন্ত্রীর সফরসূচি সম্পর্কে বিস্তারিত জানা গিয়েছে। সেই বিস্তারিত তথ্য অনুযায়ী একনজরে দেখে নেওয়া যাক প্রধানমন্ত্রীর সফরসূচি এবং রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর সূচি।

আজ সকাল ৯ টা ৩৫ মিনিটে দিল্লি থেকে রওনা দেবেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি। সকাল ১০ টা ৩৫ মিনিটে লখনৌ বিমানবন্দরে নামবে প্রধানমন্ত্রীর বিমান। এরপর সকাল ১০ টা ৪০ মিনিটে লখনৌ থেকে কপ্টারে করে অযোধ্যা যাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সকাল ১১:৪০ থেকে হনুমানগড়িতে ১০ মিনিট থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বেলা ১২ টায় অযোধ্যার রাম মন্দির অনুষ্ঠান মঞ্চে পৌঁছাবেন তিনি। এরপর তিনি ১০ মিনিট ধরে রামলালার দর্শন এবং পুজো করবেন। বেলা সাড়ে ১২ টায় অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজো অনুষ্ঠান শুরু হবে। এরপর ১২:৪০ মিনিটে রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হবে। সমস্ত অনুষ্ঠান সম্পন্ন হওয়ার পর দুপুর দুটো নাগাদ লখনৌ থেকে দিল্লি ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী।

রাম মন্দিরের ‘ভূমি পুজো’য় ৪০ কেজি রূপোর ইট বসিয়ে রাম মন্দিরের নির্মাণ শুরু করবেন খোদ প্রধানমন্ত্রী। অযোধ্যায় রাম মন্দির নিয়ে দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর অবশেষে আদালতের রায় পেয়ে সবরকম বিতর্কের ইতি টানতে রাম মন্দিরের নীচে বসানো হচ্ছে টাইম ক্যাপসুল।

করোনা আক্রান্ত হওয়ার কারণে ভূমি পুজোর অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারবেন না অমিত শাহ। তবে উপস্থিত থাকবেন মোহন ভাগবত, উত্তর প্রদেশের রাজ্যপাল আনন্দী বেন পটেল ও মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এছাড়াও থাকবেন রাম মন্দির ট্রাস্টের প্রধান মোহন্ত নৃত্য গোপাল দাস। তবে এই অনুষ্ঠানে স্বশরীরে উপস্থিত থাকছেন না লালকৃষ্ণ আডবাণী, মুরলী মনোহর জোশী এবং উমা ভারতী।