এই ৪টি উপায় মেনে চললেই বাড়বে টিআরপি, ফের বেঙ্গল টপার হবে মিঠাই

মিঠাই ধারাবাহিকে অবিলম্বে এই ৪টি বিষয় পরিবর্তন না করলে ধারাবাহিকটি আর দেখবে না কেউ

Here is Why Mithai is Falling Down on TRP List Continuously

দিন দিন হেরে যাচ্ছে মিঠাই (Mithai)। মিঠাইকে টেক্কা দিয়ে টিআরপিতে বাজিমাত করে এগিয়ে যাচ্ছে ধুলোকণা, গাঁটছড়া এবং অন্যান্য ধারাবাহিকগুলো। এই ফলাফল মোটেই মেনে নিতে পারছেন না মিঠাই ভক্তরা। তাই এখন তারা চুলচেরা বিশ্লেষণ করতে বসেছেন কেন, কোন কোন কারণে মিঠাই এত পিছিয়ে পড়ছে তা খুঁজে বের করার জন্য।

দীর্ঘ ৪৪ সপ্তাহ ধরে টপারের আসন ধরে রাখা কি চাট্টিখানি কথা ছিল? মিঠাই সেই অসাধ্য সাধন করে দেখিয়েছিল। কিন্তু এখন কালেভদ্রে কেবল টপারের আসন পায় মিঠাই। এর আগের সপ্তাহে কোনওমতে তৃতীয় স্থান ধরে রাখতে পারলেও এই সপ্তাহে তৃতীয় থেকে পঞ্চম স্থানে ছিটকে গিয়েছে ধারাবাহিকটি।

কিন্তু কেন আচমকা এই পতন হল মিঠাইয়ের? কেন এখন আর দর্শকদের মন জয় করতে পারছে না? দর্শকরা এই খুঁজে বের করেন কিছু সম্ভাব্য কারণ। এবার তারাই খুঁজে দিয়েছেন এর প্রতিকার। মিঠাইকে যদি আবার তার পুরনো স্থান ফিরে পেতে হয় তাহলে গল্পে অবিলম্বে কিছু পরিবর্তন দরকার। জোর দিতে হবে মিঠাই-সিদ্ধার্থের কেমিস্ট্রিতে।

মিঠাই ভক্তরা বলছেন মিঠাই ও সিদ্ধার্থের রোমান্সের মধ্যে কিছু খামতি থেকে যাচ্ছে। হয়তো বা অফস্ক্রিনে তাদের সম্পর্কে যে চিড় ধরেছে তার প্রভাব হতে পারে এটা। ধারাবাহিকের সিদ্ধার্থের বাবার বিয়ে না দেখিয়ে বরং যদি সিধাইকে কাছাকাছি আনার উপর জোর দেওয়া হতো তাহলে আজ মিঠাইয়ের এই দুর্দিন হতো না বলে মনে করছেন দর্শকরা।

Mithai Proves that Shome is not Samaresh`s Biological Father

আসলে ধারাবাহিকে অনুরাধা ম্যামের সঙ্গে সমরেশের বিয়ের ট্র্যাক দেখানো হচ্ছে বর্তমানে। মিঠাই-সিদ্ধার্থের উদ্যোগে বিয়ে হচ্ছে তাদের। কিন্তু দর্শকরা যে এতে বিন্দুমাত্র উৎসাহী নন তা টিআরপির ফলাফল দেখেই বোঝা যাচ্ছে। সমরেশ-অনুরাধার বিয়ে না দেখিয়ে যদি বরং রুদ্র-নিপার বিয়ে দেখানো হতো তবুও টিআরপিতে ভাল ফলাফল দিত মিঠাই, বলছেন দর্শকরা।

দর্শকরা দীর্ঘদিন ধরে রুদ্র এবং নিপার বিয়ে দেখানোর দাবি জানিয়ে আসছিলেন। কিন্তু নির্মাতারা এই জুটির দিকে কোনও নজরই দিচ্ছেন না। এই হল সেই সম্ভাব্য চারটি কারণ যার উপর অবিলম্বে নজর দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন দর্শকরা। তবেই আবার মিঠাই তার দর্শকদের ফিরে পাবে।