সেলিব্রিটি হলেও নেই অহংকার, সাদামাটা পোশাকে শান্তিনিকেতন ঘুরে গেলেন অরিজিৎ সিং

Arijit Singh Visited Bolpur Shantiniketan

মুর্শিদাবাদের ভূমিপুত্র অরিজিৎ সিং (Arijit Singh)। তার খ্যাতি সারা বিশ্বজুড়ে। মুর্শিদাবাদের গর্ব তিনি। মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জ শহরের ছেলে অরিজিৎ সংগীতজগতের একনামী তারকা হওয়া সত্বেও তিনি একেবারেই মাটির মানুষ। খ্যাতি তাকে যতই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যাক না কেন, তার পা থাকে সবসময় মাটিতে। তাইতো সেলিব্রেটি হওয়া সত্ত্বেও একমাত্র তিনিই পারেন নিতান্তই সাধারণের মত জীবন যাপন করতে।

কোনদিনই লাইমলাইটের পেছনে ছোটেননি অরিজিৎ। লাইম লাইটই বরং তার পেছনে ধাওয়া করেছে বারবার। তবে তিনি নিজেকে সাধারণের সঙ্গেই মিশিয়ে দিতে চান। তাই দেখা যায় মুর্শিদাবাদের স্টেশনে নিত্যযাত্রীদের সঙ্গেই ভিড় ঠেলে ট্রেনে উঠছেন অরিজিৎ। এবার ঠিক একইভাবে শান্তিনিকেতন ঘুরে গেলেন অরিজিৎ সিং।

নিতান্তই সাদামাটা পোশাকে, মুখে মাস্ক পরে শান্তিনিকেতন উপস্থিত হয়েছিলেন বাংলার গর্ব। তাই তাকে চিনতে পারেননি তার ভক্তরা। শান্তিনিকেতনে এসে তিনি প্রখ্যাত বাউল শিল্পী বাসুদেব দাসের সঙ্গে দেখা করেন। তার বাড়িতে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটিয়েছেন অরিজিত। কচিকাচাদের অনুরোধে ছবিও তুলেছেন। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড হওয়ার পরে ভক্তরা জানতে পারেন গায়ক এসে ঘুরে গিয়েছেন শান্তিনিকেতন থেকে। জেনে কার্যত আফসোসের শেষ ছিল না তাদের।

মঙ্গলবার রাতে আচমকাই বোলপুরের বাউল শিল্পী বাসুদেব দাসের বাড়িতে এসে হাজির হন অরিজিৎ সিং। আগাম কোনও কিছু না জানিয়েই শিল্পীর বাড়িতে এসে উপস্থিত হয়েছিলেন অরিজিৎ। শিল্পীর থেকে গান শুনতেও চেয়েছিলেন তিনি। শিল্পীর বাড়ি থেকে বেরিয়ে শান্তিনিকেতনের সোনাঝুরি হাট ঘুরে দেখেন গায়ক।

সোনাঝুরি হাটে ঘোরাফেরা করার সময়েও অনেকেই চিনতে পারেনি তাকে। অরিজিতের মুখে মাস্ক থাকার দরুন তাকে চিনতে না পারার আফসোস কার্যত কুরে কুরে খাচ্ছে অনুরাগীদের। রাতটুকু শান্তিনিকেতনের একটি বেসরকারি লজেই কাটিয়ে দেন অরিজিৎ। তারপর সকাল-সকাল গন্তব্যে ফিরে যান তিনি।

অরিজিতের আচমকা শান্তিনিকেতন সফর ঘিরে জল্পনা দানা বাঁধছে সকলের মনে। এইভাবে রাতারাতি বাসুদেব দাস বাউলের বাড়িতে ঘুরে যাওয়া নিয়ে কৌতুহল জাগছে সকলের মনে। তিনি কি নিতান্তই শান্তিনিকেতনে ঘুরতে এসেছিলেন নাকি বাসুদেব দাস বাউলের সঙ্গে তার বিশেষ কোনও কাজ ছিল? খোলসা করেননি গায়ক।