হাসপাতালে ভর্তি অরিজিৎ সিং-এর মা, সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে চলছে রক্তের সন্ধান

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামিল সারা ভারতবর্ষ। এই মুহূর্তে দেশের সবথেকে বড় শত্রু হলো করোনা। গত বছর থেকেই এই অদৃশ্য শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন আপামর ভারতবাসী। তবে গতবারের তুলনায় চলতি বছরে কিন্তু করোনা আরও বেশি ভয়াবহ এবং মারাত্মক রূপ ধারণ করেছে। তাই তার বিরুদ্ধে লড়াইটাও কিন্তু ক্রমশ কঠিন হচ্ছে। করোনার বিরুদ্ধে এই অসম লড়াইয়ে হার মানতে রাজি নন সাধারণ মানুষ।

দেশের চিকিৎসা পরিকাঠামো, প্রশাসনিক পরিকাঠামো, করোনা যোদ্ধাদের সহায়তা নিয়েই এই কঠিন দুঃসময়ের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের মনোবল বাড়িয়ে তোলার অবিরাম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন দেশবাসী। পাশাপাশি, কঠিন সংগ্রামে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে বহু স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাও। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের মাধ্যম হয়ে উঠেছে নেট দুনিয়া। ইতিমধ্যেই ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রামের মতো সোশ্যাল সাইটগুলিকে দেশের সু-নাগরিকেরা “করোনা হেল্প-ডেক্স” বানিয়ে ফেলেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রয়েছে বহু গ্রুপ, যেগুলিতে করোনা দুর্গতরা নিজেদের অসুবিধার কথা জানাচ্ছেন এবং নেটিজেনদের মধ্যে যে যেভাবে পারছেন তাদের সহায়তা করার সম্পূর্ণ প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। সোশ্যাল মিডিয়া মারফত মুহূর্তের মধ্যেই রোগীর চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় অক্সিজেন, জীবনদায়ী ঔষধ-পত্র, রক্তের যোগান অথবা তার সন্ধান দেওয়া সম্ভব হচ্ছে। বহু রোগী এবং তার পরিবার এইভাবে কঠিন সময়ে সাহায্য পাচ্ছেন। এবার সেই সাহায্যপ্রার্থীর তালিকায় উঠে এলো খোদ গায়ক অরিজিৎ সিংয়ের নাম। অরিজিৎয়ের মায়ের জন্য “এ নেগেটিভ” গ্রুপের রক্তের সন্ধান চায়। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এই মর্মে ভাইরাল হয়েছে একটি পোস্ট।

কলকাতা শহরের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার “ব্লাড মেটস”এর একজন সক্রিয় সদস্য সুদেষ্ণা গুহ সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেছেন, “গায়ক অরিজিৎ সিংয়ের মা–র জন্য এ নেগেটিভ ডোনার চাই আগামীকাল ঢাকুরিয়া আমরিতে। উৎসাহী রক্তদাতারা যোগাযোগ করুন ‌নিতাশার সঙ্গে 8017197476‌ নাম্বারে।” এই পোস্টের নিচে তিনি উল্লেখ করে দিয়েছেন, “পুনশ্চ:‌ কোনও সেলেবের কেসে আমরা সাধারণত পরিচয় প্রকাশ করি না। কিন্তু যেহেতু অরিজিৎ এই সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় মুখ এবং এ নেগেটিভ অত্যন্ত বিরল গ্রুপ, সেহেতু পরিচয়প্রকাশ করতে বাধ্য হচ্ছি। কারণ আমাদের কাছেও নেগেটিভ গ্রুপের ভাঁড়ার তলানিতে।”

প্রসঙ্গত অরিজিৎয়ের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, দিন দশেক আগেই নাকি তাঁর মা হঠাৎ করেই ভীষণ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, এমনটাও শোনা যাচ্ছে। তিনি অসুস্থ বোধ করলে প্রথমটা তাঁকে জিয়াগঞ্জের একটি স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে দক্ষিণ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। এই খবরের সত্যতা নিয়ে অবশ্য অরিজিৎয়ের পরিবারের তরফ থেকে কিছু জানা যায়নি।

যতদূর জানা যাচ্ছে, অরিজিৎয়ের মায়ের রক্তের প্লেটলেট সংখ্যা অনেকটাই কমে এসেছে। যে কারণে তাঁর অবিলম্বে একজন রক্ত ডোনার প্রয়োজন। অরিজিৎয়ের মায়ের ব্লাড গ্রুপ “এ নেগেটিভ”। বিরলতম রক্তের গ্রুপের মধ্যে অন্যতম হলো এই গ্রুপ, যা সাধারণত ব্লাড ব্যাংকে পাওয়া যায় না। তাই সত্ত্বর রক্তের ডোনার খোঁজার উদ্দেশ্যে সোশ্যাল মিডিয়াকেই বেছে নেওয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যেই অবশ্য নেট মাধ্যমে একজন নেটিজেন কমেন্ট করে “এ নেগেটিভ” রক্তদাতার খোঁজ দিয়েছেন। তবে রক্তের চাহিদা শেষমেশ মিটেছে কিনা তা অবশ্য এখনও জানা যায়নি। এদিকে গায়কের মায়ের শারীরিক অবস্থার কথা জানতে পেরে উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন নেটিজেনরা।

নেটিজেনদের পাশাপাশি সৃজিত মুখোপাধ্যায়, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়দের মতো সেলিব্রিটিরাও এই দুঃসময়ে অরিজিৎয়ের পাশে থাকার চেষ্টা করেছেন। যে কারণে তারা নিজেদের সোশ্যাল পেজেও “এ নেগেটিভ” রক্ত চেয়ে পোস্ট করেছেন। সকলেই এই মুহূর্তে কায়মনোবাক্যে অরিজিৎ সিংয়ের মায়ের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে চলেছেন।