১২ বছর বয়সেই ‘ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে’ বাংলার এই বিস্ময় বালক

79

১২ বছরের অর্চিষ্মান নন্দী খড়গপুর সেন্ট অ্যাগনেস স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র৷ এতো কম বয়সে ইতিমধ্যে সে ১৫ টি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরীক্ষায় সাফল্য পেয়েছে৷ অ্যাচিভমেন্ট কাম ডায়াগনস্টিক টেস্ট ইন ম্যাথম্যাটিকস, ইন্টারন্যাশনাল অলিম্পিয়াড অফ ম্যাথম্যাটিকস, অস্ট্রেলিয়ান ম্যাথম্যাটিকস কম্পিটিশন, ইন্টারন্যাশনাল ম্যাথম্যাটিকস অলিম্পিয়াড, সাউথ এশিয়ান ম্যাথম্যাটিক্যাল অলিম্পিয়াড নামক গণিতের প্রতিযোগিতার সেরার সেরা শিরোপা পেয়েছে সে৷

স্থান পেয়েছে ‘ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে’৷ অর্জন করেছে বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানের গণিত এবং বিজ্ঞান ভিত্তিক প্রতিযোগিতামূলক মেধা পরীক্ষায় সাফল্যের শিরোপা৷ আবার কখনও তার ঝুলিতে এসেছে ন্যাশনাল লেভেল সায়েন্স ট্যালেন্ট সার্চ এক্সামিনেশন, টেস্ট ফর সায়েন্টিফিক টেস্ট, ইন্টারন্যাশনাল ট্যালেন্ট হান্ট অলিম্পিয়াড নামক বিজ্ঞান প্রতিযোগিতার সাফল্যের র‍্যাংক, মেডেল, স্মারক৷

ও.সি.এস এর বার্ষিক জার্নাল প্রতিফলন ২০১৮ তে প্রকাশিত হয়েছে অর্চিষ্মানের রসায়নকে নিয়ে লেখা ইংরেজী কবিতা কেমিষ্ট্রি-দ্যা অ্যাপেল আই অফ সায়েন্স। বৈতার মহেন্দ্রনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাগৃহে গত ২৯শে ডিসেম্বর ও.সি.এস তাদের বার্ষিক সেমিনার ও পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে অর্চিষ্মানকে পুরষ্কার প্রদান করেছে তার মেধা প্রদর্শনের জন্য।

ক্রিকেট পাগল এবং বিরাট কোহলির ভক্ত অর্চিষ্মান ২০১৯ সালের সপ্তম শ্রেনীর ও.সি.এস এর টি.এস.টি পরীক্ষায় ভালো ফল করার এবং প্রথম এর হ্যাট্রিক করার জন্য মূলত বিজ্ঞান কেন্দ্রিক পড়াশোনার নিয়মিত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

বিজ্ঞানের অ-আ-ক-খ অর্চিষ্মান ক্রমাগত আয়ত্ত করেছে তার আই-আই টি খড়্গপুরের প্রাক্তনী রসায়নের স্নাতকোত্তরদাদু বঙ্কিমবিহারী মাইতির কাছ থেকে । অর্চিষ্মানের বিজ্ঞান মেধা পরীক্ষার এই ধারাবাহিক সাফল্য গর্বিত করেছে তার মা–অনিন্দিতা মাইতি নন্দী ,বাবা মিঠুন নন্দী, বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকাবৃন্দ এবং আত্মীয় পরিজনদের।