স্টেশনে কেটেছে কত রাত! নিজের টাকায় স্বপ্নপূরণ করে আবেগে ভাসলো ‘অনুরাগের ছোঁয়া’র দীপা

ছিল না মাথা গোজার ঠাঁই, রাতের পর রাত স্টেশনেই কাটিয়েছেন, রোজগারের টাকায় বড় স্বপ্ন পূরণ করলেন স্বস্তিকা

Anurager Chhowa fame actress Swastika Ghosh recently buy a new car

এযেন একেবারে রূপকথার পাতা থেকে উঠে আসা এক গল্প! একসময় কলকাতা শহরে আশ্রয়ের অভাবে যে মেয়েটা দিনের পর দিন রাতের পর রাত স্টেশনেই কাটিয়ে দিয়েছে, আজ সে বাংলার সেরা চ্যানেলের জনপ্রিয় ধারাবাহিকের নায়িকা। টাকার অভাবে মাথাগোঁজার আশ্রয়টুকুও যার ছিল না, আজ সে নিজের রোজগারে নিজের স্বপ্নপূরণ করছেন। অনুরাগের ছোঁয়ার (Anurager Chhowa) দীপা ওরফে অভিনেত্রী স্বস্তিকা ঘোষের (Swastika Ghosh) জীবনটা সত্যিই যেন একটা সিনেমা।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকে কলকাতা শহরে এসে নিজের অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্নপূরণ করা স্বস্তিকার পক্ষে খুব একটা সহজ কথা ছিল না। তবুও তিনি সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছেন। উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পরেই অভিনেত্রী হওয়ার তাগিদে বাড়ি ছাড়েন স্বস্তিকা। তারপর কলকাতাতে এসে শুরু হয় তার এক কঠিন লড়াই। প্রথম প্রথম সিরিয়ালে কেবল পার্শ্বচরিত্রই মিলেছিল। তবে আজ তিনি স্টার জলসার টপ ৩ সিরিয়ালের মধ্যে অন্যতম সিরিয়ালের নায়িকা।

Star Jalsha Anurager Chhoya Serial Cast, Wiki, Story, Release Date

দেখতে দেখতে প্রায় ৩০০ পর্ব অতিক্রম করে ফেলেছে অনুরাগের ছোঁয়া। ইন্ডাস্ট্রিতে এখন স্বস্তিকার পায়ের তলার মাটিটাও অনেকটাই শক্ত হয়ে এসেছে। এখন নিজের মনের মধ্যে জমে থাকা স্বপ্নগুলো একে একে পূরণ করার পালা। রবিবার ছুটির দিনে নিজের এক দীর্ঘ দিনের ইচ্ছে পূরণ করে ফেললেন অভিনেত্রী। নিজের রোজগারে কিনে ফেললেন নিজের জন্য একটা পক্ষীরাজ ঘোড়া!

সদ্যই একটা গাড়ি কিনেছেন স্বস্তিকা। মারুতি সুজুকির সাদা রংয়ের বলেনো গাড়ির মালিক এখন তিনি। সাধারণত এমন গাড়ির দাম শুরু হয় লক্ষ টাকা থেকে। সর্বোচ্চ ৯.৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে পারে এই গাড়ির দাম। গাড়িটি কেনার পরই অনুরাগীদের সঙ্গে সুখবরটা ভাগ করে নিয়েছেন অভিনেত্রী। গাড়ি কেনার পর তার সামনে দাঁড়িয়ে ছবিও তুলেছেন তিনি। কাঁচা হলুদ রঙের একটি শাড়ি পরে গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেন স্বস্তিকা।

স্বস্তিকা এই সুখবর শেয়ার করা মাত্রই সোশ্যাল মিডিয়াতে অভিনন্দনের বন্যা বয়ে গিয়েছে তার জন্য। তার সহ-অভিনেতা যারা রয়েছেন সকলেই তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। অনস্ক্রিন তার স্বামী সূর্য ওরফে দিব্যজ্যোতি দত্ত, শাশুড়ি মা লাবণ্য ওরফে রূপাঞ্জনা মিত্ররা তাকে ভালবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। উল্লেখ্য, স্বস্তিকার সিরিয়াল অনুরাগের ছোঁয়া এখন বাংলা টেলিভিশনের সেরা ৩ ধারাবাহিকের মধ্যে রয়েছে।

স্কুলে পড়ার সময় থেকেই প্রায়দিন স্বস্তিকা তার রায়দিঘির বাড়ি থেকে নিয়মিত কলকাতায় আসতেন অডিশন দেওয়ার জন্য। রাত গড়িয়ে এলে বাড়ি ফিরে যাওয়ার ট্রেন না থাকায় রাতের পর রাত স্টেশনেই কাটিয়ে দিয়েছেন তিনি। তাকে প্রথমবার ‘সরস্বতীর প্রেম’ সিরিয়ালের নায়কের বোনের ভূমিকাতে অভিনয় করার সুযোগ দিয়েছিল ইন্ডাস্ট্রির। সেখান থেকে আজ তিনি বাংলার টপার সিরিয়ালের নায়িকা।