সবার মতো বাসন মাজলে হাতের শট নেওয়া যাবে না, অহংকারী অভিনেত্রীকে ধুয়ে দিলেন নেটিজেনরা

হাত সুন্দর রাখতে বাসন মাজেন না, অভিনেত্রীর অহংকারী মন্তব্য শুনে চটে লাল নেটিজেনরা

জি বাংলার (Zee Bangla) দিদি নাম্বার ওয়ান (Didi Number One) ভীষণই জনপ্রিয় একটি রিয়েলিটি শো। রোজ এখানে জীবন সংগ্রামের গল্প শোনাতে আসেন বাংলার মহিলারা। সপ্তাহে এক থেকে দুইবার সেলিব্রিটিরাও দেখা দেন রচনা ব্যানার্জীর মঞ্চে। সেলিব্রিটিদের জীবনের নানা অজানা কথাও জানা যায় এই শো থেকে।

দিদি নাম্বার ওয়ানের নানা ছোট ছোট ভিডিও ক্লিপিংস মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়। এই যেমন সম্প্রতি অভিনেত্রী অঙ্কিতা চক্রবর্তীর (Ankita Chakraborty) দিদি নাম্বার ওয়ানে খেলতে আসার এপিসোডের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ইষ্টি কুটুম খ্যাত অভিনেত্রীর একটি মন্তব্যে কার্যত তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। দিদি নাম্বার ওয়ানে এসে অঙ্কিতা বলেছিলেন তার কাছে তিনিই সবথেকে বেশি ইম্পরট্যান্ট। সব থেকে বেশি নিজের কথা ভাবেন তিনি।

তিনি আরও বলেছেন, যখন কোনও একটা বিষয় নিয়ে তিনি দৃঢ়ভাবে চিন্তা করেন তখন তার পরিবার, বাবা-মা তার কাছে আবছা হয়ে যান। নিজের স্বার্থপরতা নিজের মুখেই স্বীকার করে নিয়েছেন অভিনেত্রী। এরপর যখন রচনা ব্যানার্জি তাকে জিজ্ঞেস করেন বাড়ির লোককে তিনি কতটা সময় দেন, তখন অঙ্কিতা বলেন বিকেল পাঁচটার পর তিনি বাড়িতে থাকেন না।

বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিতে বেরিয়ে পড়েন। মাকে সময় দিতে পারলেও বাবাকে সময় দিতে পারেন না ইষ্টিকুটুমের অভিনেত্রী। অভিনেত্রী সাফ বলে দেন, বিয়ে করলে ভবিষ্যতে তিনি যাকে বিয়ে করবেন বা যাদের সংসারে যাবেন তাদেরকেও জেনে রাখতে হবে অঙ্কিতা তাদের সময় দিতে পারবেন না। আবার বাড়ির কাজও করতে পারবেন না।

কারণ সকালে উঠে যদি তাকে বাসন মাজতে হয় তাহলে তার হাতের শট নেওয়া যাবে না! অঙ্কিতার মুখে এই কথা শুনে রীতিমতো রেগে গিয়েছেন বাংলার মহিলারা। অনেকেই তাকে ‘অহংকারী’ বলে মন্তব্য করছেন। তার কথার মধ্যে অহংকারের ছাপ সুস্পষ্ট, নিজের সম্পর্কে সোজাসাপ্টা মন্তব্য করে নেটিজেনদের রীতিমতো রাগিয়ে তুলেছেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by mithai prem (@mithailoves)