‘বুক পেট সমান, তক্তার মত চেহারা’, বডি শেমিংয়ের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন অনন্যা পান্ডে

‘বুক পেট সমান’, ‘সমতল বক্ষ’ নিয়ে কুৎসিত মন্তব্যের জবাব দিলেন অনন্যা

Ananya Panday opens up About Being Body-Shamed

তারকা বাবা-মায়ের সন্তানরা বলিউডে (Bollywood) পা দিলেই রে রে করে ওঠেন নেটিজেনরা। মাঝেমধ্যেই স্টারকিডদের সৌভাগ্য নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে শুরু হয় সমালোচনা। তবে স্টারকিড হোন বা সাধারণ নায়িকা, কার্যত সকলকেই কমবেশি বডি শেমিংয়ের মুখে পড়তেই হয়। ঠিক যেমনটা হয়েছিল অনন্যা পান্ডের (Ananya Pandey) সঙ্গে।

মাত্র ১৯ বছর বয়সে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছিলেন অনন্যা। বলিউডে কিন্তু তার ‘স্ট্রাগল’টাও কিছু কম নয়। বিশেষত চেহারা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে বারবার সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাকে। রোগা হওয়ার কারণে চাঙ্কি পান্ডের কন্যাকে ছেড়ে কথা বলেননি নেটিজেনরা!

রোগা-পাতলা শরীর নিয়ে বলিউডে এসে চূড়ান্ত অপমানিত হতে হয়েছিল অনন্যাকে। শুনতে হয়েছে, “এ তো পুরো তক্তার মত চেহারা, এতো রোগা কেন?” এই মেয়ে কীভাবে অভিনয় করবে? এমন প্রশ্নও শুনতে হয়েছে তাকে। শুধু তাকে একা নয়, তার বাবা-মা, বোনকেও খারাপ কথা বলতে ছাড়েননি লোকে।

সম্প্রতি একটি টক শো’তে এসে অনন্যা এই বিষয়ে ক্ষোভ উগরে দিলেন। তার কথায়, ‘‘আমি বুঝতে পারতাম না কী অপরাধ করেছি। কেন প্রত্যেক দিন লোকে আমায় কুৎসিত ভাবে আক্রমণ বলত! ‘সমতল বক্ষ’ বলে কটাক্ষ করত। মানসিক অবসাদে তলিয়ে যাচ্ছিলাম ওই সময়টায়। শুধু তাই নয়। আমার বাবা, মা, বোনকেও অনেক খারাপ কথা বলেছে লোকে।’’

অনন্যা বলেছেন তিনি প্রতিদিন একটু একটু করে নিজের গ্রুমিং করেছেন। তার কথায়, ‘‘আমি এক জন সদয়, সুন্দর মানুষ হওয়ার চেষ্টা করি। কঠোর পরিশ্রম করতে পারি। কাজের প্রতি আমার নিষ্ঠা রয়েছে। বরাবরই আমি এক জন অভিনেত্রী হতে চেয়েছিলাম। কিন্তু ইন্ডাস্ট্রিতে এসে বুঝলাম লোকের চোখে আগে আমি আগে এক জন মহিলা। মহিলাদের নিয়ে তাঁদের ধারণার সঙ্গে আমি মানাচ্ছি কি না, সেটাই চর্চার কেন্দ্রে। আমি নই।’’

 

View this post on Instagram

 

A post shared by SheThePeople (@shethepeopletv)

অনন্যা যখন প্রথমবার বলিউডে পা রাখেন সেই সময় লোকে তাকে দেখলে বলতেন ‘নেপোকিড’, ‘হাড় জির জিরে চেহারা’! এমনকি চাঙ্কি পান্ডের মেয়ে হওয়ার সুবাদেই তিনি বলিউডে আসতে পেরেছেন এমনটাও শুনতে হয়েছিল। তবে কটাক্ষ গায়ে না মেখে কাজে ফোকাস করেছেন অনন্যা। শীঘ্রই মুক্তি পাবে বিজয় দেবরকোন্ডার সঙ্গে তার অভিনীত ছবি ‘লাইগার’।