পান মশলার বিজ্ঞাপন করে মহা ফ্যাসাদে অমিতাভ, অবশেষে খুললেন মুখ

বলিউড (Bollywood) অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন (Amitabh Bachchan) মাঝেমধ্যেই অনুরাগীদের সঙ্গে আড্ডা দিতে ভালোবাসেন। তার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মকেই বেছে নেন তিনি। শুক্রবারেও ফেসবুকে তিনি অনুরাগীদের সঙ্গে আড্ডা দিতে বসেন। ওই দিন তিনি ফেসবুকে লেখেন, “যেদিন থেকে হাতে ঘড়ি পড়া শুরু করেছি, সময় দেখছি পিছুই ছাড়ছে না”। তার এই পোস্টের নিচেই তাকে বিঁধলেন জনৈক নেটিজেন। যদিও বিগ বি অবশ্য চুপ করে থাকেননি। তিনিও ওই নেটিজেনকে উল্লেখ করে সপাটে জবাব দিয়েছেন।

ঠিক কী লিখেছিলেন ওই নেটিজেন? বলিউড তারকাকে কটাক্ষ করে তার পোস্টের নিচে জনৈক নেটিজেন মন্তব্য করেছিলেন, “স্যার, আপনার জন্য আমার স্রেফ একটি প্রশ্নই রয়েছে। কেন আপনি পান মশলার বিজ্ঞাপন করেন? তাহলে আপনার সঙ্গে অর্থলোভী, দৈন্যদশা শিল্পীদের কী তফাৎ থাকল?” নেটিজেনের এই প্রশ্ন অমিতাভ বচ্চনের নজর এড়িয়ে যায়নি। তাই তার নজরে যখন এই মন্তব্যটি এসেছে তখন তিনিও মন্তব্য এড়িয়ে যাননি।

পান মশলার বিজ্ঞাপন কেন করেন? এই প্রশ্নের জবাবে যথেষ্ট বিনীতভাবেই অমিতাভ বচ্চন ওই নেটিজেনকে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন, “যদি বেশ কিছু সংখ্যক মানুষ এই নির্দিষ্ট ইন্ডাস্ট্রির সুবাদে উপার্জন করতে পারছেন তাহলে ‘আমি কেন এই সংস্থার বিজ্ঞাপন করছি?’ মার্কা চিন্তাভাবনা এইমুহূর্তে বন্ধ করে দেওয়া উচিত। আর হ্যাঁ, আপনি ব্যক্তিগতভাবে মনে করতেই পারেন যে কেন আমি এই পণ্যের প্রচার করছি। জানিয়ে রাখি, তার বদলে কিন্তু আমি টাকাও পাচ্ছি”।

তিনি আরও লিখেছেন, “আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে অনেকেই আছেন যাঁরা শ্রমিক এবং বেশ কষ্ট করেই উপার্জন করেন। তাই এই ‘দৈন্যদশা’ ধরনের শব্দ ব্যবহার করবেন না। আপনার মত ভদ্রলোকের তরফে এই কথাটা শোনা মোটেই ভালো লাগে না। আর জানিয়ে রাখি, আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে প্রচুর শিল্পী কাজ করেন, তাই সবাইকে এই শব্দের আওতায় ফেলবেন না”।

উল্লেখ্য, বলিউড অভিনেতা এবং অভিনেত্রীরা অভিনয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন বিজ্ঞাপনী সংস্থা থেকেও প্রচুর অর্থ আয় করেন। তবে অমিতাভ শুধু একা নন, শাহরুখ খান, অজয় দেবগনসহ বলিউডের বহু তারকাকেই এমন বিজ্ঞাপনের প্রচারের মুখ হিসেবে দেখা যায়। এই নিয়ে তাদের সমালোচনাও কিছু কম হয়না।এবার সমালোচকদের জবাব দিলেন অমিতাভ। ৭০ উর্দ্ধ অমিতাভ এই মুহূর্তে কৌন বনেগা ক্রোড়পতি সিজন ১৩ এর সঞ্চালক হিসেবে কাজ করছেন। পাশাপাশি, ‘ঝুন্ড’, ‘ব্রহ্মাস্ত্র’, ‘গুডবাই’, ‘মে ডে’ এর মতো একগুচ্ছ ছবিও এখন মুক্তির অপেক্ষায় দিন গুনছে।