প্রতিবাদের জবাব দিয়ে কাতর আবেদন সুশান্তের নায়িকার, কি বললেন শুনে নিন

অবশেষে মুক্তি পাচ্ছে সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ ছবি ‘দিল বেচারা’। প্রত্যেকেই চেয়েছিলেন এই সিনেমা পড় পর্দায় মুক্তি পাক। প্রিয় নায়কের শেষ ছবি হলে গিয়ে দেখতে চেয়েছিলেন সকলে।সেই মতো চেষ্টাও করেছিলেন নির্মাতারা।কিন্তু তা সম্ভব হল না। ২৪ জুলাই ডিজনি হটস্টারে মুক্তি পাচ্ছে এই ছবি।

বৃহস্পতিবার ‘ডিজনি হটস্টার’ কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয় আগামী ২৪শে জুলাই হটস্টারে মুক্তি পাবে ‘দিল বেচারা’। হটস্টার সাবস্ক্রাইবার ছাড়াও যারা নন সাবস্ক্রাইবার তারাও এই ছবি হটস্টারে অনলাইন স্ট্রিমিং করে এই ছবি দেখতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে হটস্টার কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে।

এই ঘোষণার পর থেকেই হটস্টার এর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন সুশান্তের অনুরাগীরা। শেষবার সুশান্ত সিং রাজপুতকে বড়পর্দায় দেখবার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন তাঁর অনুরাগীরা। সেই ইচ্ছা পূরণ না হতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠেছে প্রতিবাদের ঝড়।

টুইটারে ‘দিল বেচারা’র প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির দাবিতে সরব হয়েছেন অনেকেই। কারো দাবি, ‘দিল বেচারা থিয়েটারে মুক্তি দিতে হবে, অনলাইনে নয়। একবার অনলাইন প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেলে সেই ছবি কখনোই আর হলে ফেরে না। তাই আমরা এই ছবিটির অনলাইন মুক্তি বন্ধের দাবি জানাচ্ছি। ছবিটিকে ব্লকবাস্টার করার দায়িত্ব আমাদের। আমরা এই ছবিটি ভারতের সবথচেয়ে বেশি উপার্জনকারী ছবি করে তুলব।’

এই নিয়েই এদিন ইনস্টাগ্রামে এক অডিও বার্তা পোস্ট করলেন সঞ্জনা। তিনি বললেন, আপনারা এমন একটা জিনিস চাইছেন যা বর্তমানে পূরণ করা অসম্ভব। আসুন না স্ক্রিনের সাইজ নিয়ে সময় নষ্ট না করে সিনেমাটি প্রত্যেকে দেখি। আসুন এটার উদযাপন করি, উপভোগ করি, সেলিব্রেট করি। যতরকমভাবে পারা যায় সবরকমভাবে করি, আমরা কি পারব না?

গত আড়াই বছর ধরে আমরা এই ছবিটা শুধুমাত্র বড়পর্দায় হাজির করব বলে দিনরাত পরিশ্রম করেছি। আমরা তখনও জানতাম না করোনার মত মহামারি হানা দেবে বিশ্বে। তারপর গত ১৪ই জুন যা ঘটল সেটাতো দুঃস্বপ্নেও কোনও দিনও ভাবিনি আমরা। স্ক্রিন ছোট থাক মনটা বড় করে নিন, কারণ সেটা গর্বের সঙ্গে ভরিয়ে ফেলতে হবে। ভরতে হবে ভালোবাসা এবং স্মৃতির সঙ্গে। এই কঠিন সত্যিটা মেনে নিন। এই মুশকিল সময়ে আমাদের সঙ্গে থাকুন প্রতিটা পদক্ষেপে।

View this post on Instagram

#DilBecharaOnAnyScreen A personal note: Aaj kal, ek alag nazariye se sab kuch dekhne ki koshish kar rahi hoon, socha aap sab ke saath bhi thodi baat kar loon. Iss samay, dard kaafi hai. Aur badhate nahi hai na? Yeh sab akele karna, mushkil kaafi hai. Apne aap ko, iss zidd se, riha kar dete hai na? In mushkilon, ko thoda asaan kar dete hai na. Let’s make this a time to celebrate a legendary life, a film? A time to give a tribute, to embrace these extremely challenging circumstances we all are in. And not a time to revolt, asking for something that in our present reality cannot be made possible. Bloockbuster banani hai, toh apke pyaar se hi ban jayegi!❤️Hamesha Box office ki zarurat toh nahi hain na? Let NOT make it about the size of the screen we get to watch this labour of love on, his last, and in my humble belief, his finest. Let’s instead make it about the size of our hearts, that we can make as big as we wish to, and fill up with as much love, joy and pride as we want. Let’s cherish it. Relish it. Celebrate it. In any and every way we can? Socha agar moral support hee dena hai, toh shayad #DilBecharaOnAnyScreen ki thaan lo? ✅ Aur #DilBecharaOnBigScreen ko abhi ke liye, bhool jao? Aur jahan rahi intezaar karne ki baat. Intezaar toh mahino se kar rahe hain, taqleefon se guzar rahe hain. Ab film dekhne ka time, aur yaadon mein beh jaane ka time, aa gaya hai. Itna pyaar hai aapke paas dene ke liye, bas unconditionally de do? Dukh bahut zyaada hai, thodi si khushi ka mauka hee de do na. ? . . . #SushantSinghRajput

A post shared by Sanjana Sanghi (@sanjanasanghi96) on

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ক্যানসার আক্রান্ত যুবক-যুবতীর প্রেমকাহিনি নিয়েই এই সিনেমা। বিখ্যাত আমেরিকান লেখক জন গ্রিনের ২০১২ সালের জনপ্রিয় নভেল ‘দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টার্স’-এর গল্পের আদলেই তৈরি করা হয়েছে ‘দিল বেচারা’। এই সিনেমায় মুখ্য ভূমিকায় রয়েছেন সঞ্জনা সংঘি। দিল বেচারা দিয়েই ডেবিউ করলেন তিনি। ৮ই মে এই ছবির রিলিজ ডেট নির্দিষ্ট ছিল, কিন্তু করোনা সংকটে তা সম্ভব হয়নি। সুশান্ত-সঞ্জনা ছাড়া এই ছবিতে রয়েছেন সইফ আলি খান, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় এবং শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়।