খান নয়, কাপুর নয়, বচ্চনও নয়! ফ্লিম ইন্ডাস্ট্রির সবথেকে ধনী পরিবার কোনটি?

ফ্লিম ইন্ডাস্ট্রির সবথেকে ধনী পরিবার, এই পরিবারের সম্পত্তিতেই চালানো যাবে গোটা দেশ

খান পরিবার হোক অথবা কপুর পরিবার, ভারতীয় সিনেমায় এই পরিবারগুলির অবদান অনস্বীকার্য। বিখ্যাত পরিবার হওয়ার পাশাপাশি এই পরিবারগুলি ইন্ডাস্ট্রির ধনী পরিবারও বটে। এই ইন্ডাস্ট্রিতে অনেক পরিবার আছে যারা প্রজন্মের পর প্রজন্ম সিনেমার কাজের সঙ্গে যুক্ত। এই পরিবারগুলো ভারতীয় সিনেমাকে অনেক সুপারস্টার দিয়েছে। কিন্তু জানেন কি ভারতের সবচেয়ে ধনী চলচ্চিত্র পরিবার কে?

ভারতের সবথেকে ধনী চলচ্চিত্র পরিবার হল আল্লু কোনিদেলা পরিবার (Allu–Konidela family)। আল্লু রামালিঙ্গাইয়া, পরিবারের ইনি প্রথম ব্যক্তি যিনি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করেছিলেন। তেলেগু সিনেমার সব থেকে জনপ্রিয় অভিনেতা তথা একজন সফল পরিচালক। দীর্ঘ কর্মজীবনে প্রায় ১ হাজারের বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। ১৯৫০ সালে পুটিলু সিনেমার হাত ধরে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তিনি। ভারতীয় সিনেমা জগতে অসামান্য অবদানের জন্য ১৯৯০ সালে তিনি পেয়েছিলেন পদ্মভূষণ পুরস্কার।

Allu Ramalingaiah

আজ এই পরিবারের তিন প্রজন্ম সিনেমা জগতের সঙ্গে সক্রিয়ভাবে যুক্ত। আল্লু রামালিঙ্গাইয়ার চার সন্তানের মধ্যে আল্লু অরবিন্দ হলেন একজন সফল সিনেমা নির্মাতা। অরবিন্দের ছেলে আল্লু অর্জুন, কত বড় অভিনেতা তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আল্লু রামালিঙ্গাইয়ার মেয়ে সুরেখা বিয়ে করেন। দক্ষিণী সুপারস্টার চিরঞ্জীবীকে। চিরঞ্জীবীর ছেলে রামচরণও বাবার পথ অনুসরণ করেন এবং হয়ে ওঠেন দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম সুপারস্টার। খুব সম্প্রতি আর আর আর, সিনেমার জন্য ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন রামচরণ।

চিরঞ্জীবীর ভাই পবন কল্যাণ এবং নগেন্দ্র বাবু, দুজনেই সুপরিচিত অভিনেতা। নগেন্দ্র বাবুর ছেলে বরুন তেজ অভিনয় জগতের সঙ্গে যুক্ত। অন্যদিকে চিরঞ্জীবীর বোন বিজয় দুর্গার ছেলে সাঁই ধরম তেজও একজন সফল অভিনেতা দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির। বুঝতেই পারছেন প্রজন্মের পর প্রজন্ম এই পরিবারের প্রায় প্রত্যেককেই সফল অভিনেতা বা পরিচালক। এবার জেনে নিন কেন এই পরিবারটিকে ভারতীয় সিনেমা জগতের সবথেকে ধনী পরিবার বলা হয়।

Chiranjeevi and Ram Charan

আরও পড়ুন : ৭০,০০০ কোটির ব্যবসা তার নামে! রামচরনের স্ত্রীর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ঘুরিয়ে দেবে মাথা

এই পরিবারের মোট সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ৬ হাজার কোটি টাকা। এই পরিবারের সবথেকে ধনী সদস্য হলেন চিরঞ্জীবী এবং রামচরণ। চিরঞ্জীবীর সম্পত্তির পরিমাণ ১৬০০ কোটি টাকা, রামচরনের সম্পত্তি রয়েছে ১৩০০ কোটি টাকা। শুধু সম্পত্তির দিক থেকে নয়, ব্যবসার দিক থেকেও এই পরিবার এগিয়ে রয়েছে অনেকটাই।

আরও পড়ুন : থালাইভা, থালাপতি থেকে নায়কন, দক্ষিণী সুপারস্টারদের উপাধির আসল অর্থগুলি জানেন?

Allu–Konidela family

আরও পড়ুন : ভারতের সবথেকে চড়া বাজেটের নায়ক! ‘পুষ্পা ২’ থেকে কত কোটি পেলেন অল্লু অর্জুন?

এই পরিবারের নিজস্ব ৫ টি সিনেমা প্রযোজনা সংস্থা রয়েছে যার মধ্যে গীতা আর্টস, পবন কল্যাণ ক্রিয়েটিভ ওয়ার্কস, অঞ্জনা প্রোডাকশন, আল্লু ষ্টুডিও এবং কোনিডেলা প্রোডাকশন কোম্পানি উল্লেখযোগ্য। তাহলে বুঝতেই পারছেন এই পরিবারের প্রত্যেক সদস্য কিভাবে ওতপ্রোতভাবে যুক্ত রয়েছে সিনেমা জগতের সঙ্গে। সাধে কি এই পরিবারকে মেগা পরিবার বলা হয়!!

আরও পড়ুন : বাড়িভাড়া দিতে না পেরে ঘুরেছেন রাস্তায় রাস্তায়! আজ দক্ষিণের হায়েস্ট পেড অভিনেত্রী রশ্মিকা মন্দানা