টলিউডে অসম্মানিত, আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বারবার, সুমিত্রা মুখার্জীর অন্তিম পরিণতি চোখে জল আনবে

উত্তম কুমারের যুগ থেকে শুরু করে ৯০ এর দশকের কমার্শিয়াল সিনেমা পর্যন্ত টলিউডে (Tollywood) দশকের পর দশক ধরে একটানা কাজ করে গিয়েছেন সুমিত্রা মুখার্জী (Sumitra Mukherjee)। তিনি তার চার দশকের কেরিয়ারে প্রায় ৫০০ টিরও বেশি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। তা সত্ত্বেও টলিউড তাকে যোগ্য সম্মান দিতে পারেনি। এমনকি অভিনেত্রী শেষ জীবনটাও ছিল খুবই করুন।

১৯৪৯ সালের ৩০শে মার্চ জন্মগ্রহণ করেন সুমিত্রা। তিনি ব্যক্তিগতভাবে ভীষণ সরল, সাদাসিতে একজন মানুষ। সর্বদা তার ঠোঁটের কোণে হাসি লেগেই থাকত। এই কারণে ইন্ডাস্ট্রি তাকে নাম দিয়েছিল ‘হাসিদি’। তিনি এই নামেই পরিচিত ছিলেন। নায়িকা হওয়ার জন্য নয়, অভিনয়কে ভালবেসেই টলিউডে পা রেখেছিলেন সুমিত্রা।

SUMITRA MUKHERJEE

জীবনে কখনও নায়িকা হওয়ার জন্য ছোটেননি, অভিনেত্রী হওয়ার জন্য তিনি বিভিন্ন ছবিতে পার্শ্ব চরিত্রেও অভিনয় করেছেন। তার অভিনয় জীবন শুরু হয়েছিল নাটকের দুনিয়া থেকে। এরপর কমেডি, ট্র্যাজেডি থেকে খলনায়িকা, টলিউডের প্রায় সব ধরনের চরিত্রেই অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে তাকে।

১৯৭২ সালে ‚আজকের নায়ক’ ছবির হাত ধরে টলিউডে পা রেখেছিলেন সুমিত্রা। এরপর তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। তিনি উত্তম কুমার থেকে শুরু করে সৌমিত্র চ্যাটার্জী, সন্তু মুখার্জী, দীপঙ্কর দের মত বড় মাপের অভিনেতাদের সঙ্গে কাজ করেছেন। অসংখ্য সুপারহিট ছবি রয়েছে তার ঝুলিতে।

SUMITRA MUKHERJEE

কিন্তু তার ব্যক্তিগত জীবন ছিল খুবই কষ্টের। তিনি বিয়ে করেছিলেন প্রযোজক শশধর মুখোপাধ্যায়কে। দুই সন্তানের জন্মের পর তাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তারপর তিনি প্রযোজক রবীন্দ্রনাথ মালহোত্রার সঙ্গে লিভ ইনে থাকতে শুরু করেন। যদিও সেই সম্পর্ক সুখের হয়নি। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে একা হয়ে যান সুমিত্রা।

SUMITRA MUKHERJEE

শেষ বয়সে নিজের খরচ চালানোর জন্য ছোটখাটো সব ধরনের চরিত্রে কাজ করতে শুরু করেছিলেন তিনি। তবে এমন অনেকবার হয়েছে যখন কাজ করেও তিনি তার পারিশ্রমিক পাননি। আবার টাকা দেওয়ার নাম করে অনেক ঘোরানো হয়েছে তাকে। একসময় ডিপ্রেশনে আত্মহত্যার চেষ্টাও করেন সুমিত্রা। এত বড় মাপের একজন অভিনেত্রীর এই পরিণতি আশা করা যায় না।