১০০ বছর পর দীর্ঘ গ্রহণ, জেনে নিন আপনার জেলায় কখন দেখা যাবে

আগামী ২১শে জুন অর্থাৎ রবিবার মহাজাগতিক দৃশ্যের সাক্ষী থাকবে বিশ্ব, রয়েছে বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ। এই সূর্যগ্রহণ এবছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ হলেও মাত্র ৬ মাস আগে অর্থাৎ গত বছর ডিসেম্বর মাসের ২৬ তারিখ এমনই মহাজাগতিক দৃশ্যের সাক্ষী ছিল পৃথিবী।

তবে এবারের সূর্যগ্রহণ বিশেষ তাৎপর্যমণ্ডিত। তাৎপর্যমণ্ডিত এই কারণেই জানা গিয়েছে, গত ১০০ বছরে এমন দীর্ঘ সূর্যগ্রহণ দেখা যায়নি। অর্থাৎ ১০০ বছর পর এমন দীর্ঘস্থায়ী সূর্যগ্রহণ হতে চলেছে আগামীকাল। রবিবার সকাল ৯ টা ১৫ মিনিট থেকে শুরু হবে সূর্যগ্রহণ আর তা চলবে ৩টে ৪ মিনিট পর্যন্ত। বেশ কিছু জায়গায় ১০:১৭ মিনিটে পূর্ণমাত্রায় গ্রহণ দেখা যাবে। ১২:১০ মিনিটে গ্রহণ সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছাবে।

২১ শে জুনের সূর্যগ্রহণ তাৎপর্যপূর্ণ কেন?

২১শে জুন অর্থাৎ আগামীকাল যে সূর্যগ্রহণ হতে চলেছে তা হলো বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ। এই ধরনের সূর্য গ্রহণে সূর্যের বহিঃসীমা অঞ্চল ছাড়া বাকি অংশ চাঁদের দ্বারা ঢেকে যায়। অর্থাৎ এই গ্রহণ চলাকালীন কেবলমাত্র সূর্যের বহিঃসীমাকে দেখা যাবে। বাকি মাঝের অংশ অন্ধকারাচ্ছন্ন থাকবে। এই ধরনের সূর্যগ্রহণের সময় দেখে মনে হয় অনেকটা আংটির মত। আবার একে আগুনের বলয়ও বলা হয়।

তবে আগামী কালকের গ্রহণ এই কারণেই তাৎপর্যমণ্ডিত, প্রায় ৩০ সেকেন্ড ধরে এই বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ চলবে বলে জানা গিয়েছে। এও জানা গিয়েছে এমন দীর্ঘস্থায়ী বলয়গ্রহণ বিগত ১০০ বছরে হয়নি। অন্যান্য গ্রহণের ক্ষেত্রে মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই সূর্যকে ফের দেখা যায়।

কোথায় কখন এই গ্রহণ দেখা যাবে?

কলকাতা : সকাল ১০ টা ৪৬ মিনিট ৪ সেকেন্ড থেকে দুপুর ২ টো ১৭ মিনিট

মেদিনীপুর : সকাল ১০ টা ৪৩ মিনিট থেকে দুপুর ২ টো ১৪ মিনিট ৫ সেকেন্ড

মুর্শিদাবাদ : সকাল ১০ টা ৪৭ মিনিট থেকে দুপুর ২ টো ১৭ মিনিট ৫ সেকেন্ড

শিলিগুড়ি : সকাল ১০ টা ৪৭ মিনিট ৩ সেকেন্ড থেকে ২ টো ১৬ মিনিট ৭ সেকেন্ড

মালদা : সকাল ১০ টা ৪৬ মিনিট থেকে ২ টো ১৭ মিনিট পর্যন্ত

রায়গঞ্জ : সকাল ১০ টা ৪৬ মিনিট থেকে দুপুর ২ টো ১৬ মিনিট

কোচবিহার : সকাল ১০ টা ৫০ মিনিট ৫ সেকেন্ড থেকে দুপুর ২ টো ১৯ মিনিট ২ সেকেন্ড

দার্জিলিং : সকাল ১০ টা ৪৭ মিন ২ সেকেন্ড থেকে দুপুর ২ টো ১৬ মিনিট ৩ সেকেন্ড

এই সম্পর্কিত আরও খবর :- 

২১ শে জুন বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণে কোন রাশির উপর কি প্রভাব পড়বে

গ্রহণে প্রচলিত কুসংস্কার ও তার বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা

সূর্যের দিকে সরাসরি তাকালে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে আপনার চোখের রেটিনা। তাই গ্রহণ দেখার সময় গগলস অবশ্যই ব্যবহার করবেন। যদি গগলস কাছে না থাকে, তাহলে এক্সরে রিপোর্ট, ফটো নেগেটিভ ফিল্ম দিয়েও গ্রহণ দেখতে পারেন।