কারণে অকারণে বিবস্ত্র হওয়া পুনম পাণ্ডের জীবনের ৬টি বিতর্কিত অধ্যায়

১৯৯১ সালের ১১ই মার্চ কানপুরে জন্ম পুনম পাণ্ডের(Poonam Pandey)।ছোটবেলা থেকেই অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন ছিল তার। পরবর্তীকালে এক নামী পত্রিকার ফ্যাশন শো তে সেরা ৯জন প্রতিযোগীর একজন হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি।

ব্যাস, তারপর গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডে পা রাখা। কেরিয়ারে বেশ কিছু ছবিতে যেমন, ‘ লাভ  ইজ পয়সন’, ‘মালিনী অ্যান্ড কো’, ‘আ গ্যয়া হিরো’, ‘দ্য জার্নি অব কর্মা”-তে অভিনয় করলেও পরিচালকদের কাছে পুনম যৌন আবেদন পূর্ন নায়িকাই ছিলেন।

কোনও দিন অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ পাননি পুনম। তবে সেভাবে মডেল হলেও নিজের কাজের থেকে নানারকম বিতর্কের জন্য সুপরিচিত তিনি। একনজরে দেখে নেওয়া যাক পুনম পাণ্ডের জীবনের বিতর্কিত অধ্যায়।

১. পোস্টার বিতর্ক :-  ২০১৩ সালে “নশা” ছবিতে এক শিক্ষিকার ভূমিকায় অভিনয় করেন তিনি। ছবির মূল প্লট তৈরি হয় শিক্ষিকার সাথে ছাত্রের যৌন সম্পর্ককে কেন্দ্র করে ।বলা যেতে পারে এই ছবির পোস্টার থেকেই পুনমের জীবনে বিতর্কের শুরু। পোস্টারে পুনমের শরীরে ছিলো শুধুমাত্র দুটো প্ল্যাকার্ড। এই পোস্টে ঘিরে সমগ্র মহারাষ্ট্র জুড়েই বিক্ষোভ শুরু হয়।

২. ক্রিকেট বিতর্ক :- তার পরবর্তী বিতর্ক তৈরি হয় বিশ্বকাপের সময়। পুনম বলে বসেন, ভারত যদি বিশ্বকাপ জিতে নেয় তাহলে প্রকাশ্যে নগ্ন হবেন তিনি।এই খবর সংবাদমাধ্যমগুলো তুলে ধরার সাথে সাথেই শুরু হয় মানুষের ক্ষোভ প্রদর্শন।

যদিও ভারত জয়ী হওয়ার পর প্রকাশ্যে নগ্ন হননি পুনম।তবে তিনি তার পরের বছর আইপিএল এর সময় সেটাই করেন। কলকাতার জয়ের পর নগ্ন হন পুনম পাণ্ডে।

৩. অ্যাপলিকেশন বিতর্ক :- এই ঘটনাটি তিন বছর আগের।পুনম পান্ডে নিজেই ‘দ্য পুনম পাণ্ডে অ্যাপ(The Poonam Pandey App)’ নামে একটি অ্যাপ লঞ্চ করেছিলেন যেটা কিছুক্ষণের মধ্যেই গুগল এর তরফ থেকে ব্যান করে দেওয়া হয়।

অ্যাপে আপত্তিকর বিষয় থাকার অভিযোগে ব্যান হয় সেই অ্যাপ।কিন্তু প্লে স্টোরে না থাকায় বিশেষ যায় আসেনি পুনমের। নিজের প্রোফাইলে সেটি রেখেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, তার কথায় লঞ্চের ১৫ মিনিটের মধ্যে ১৫ হাজার বার সেটা ডাউনলোড করা হয়েছিল।

৪. রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে অভিযোগ :- চলতি বছরের শুরুতে শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রার(Raj Kundra) বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন পুনম। তার অভিযোগ ছিল, চুক্তির মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার পরেও রাজ কুন্দ্রা অবৈধ ভাবে তার অ্যাপের কনটেন্ট ব্যবহার করছিলেন।এই অভিযোগে রাজ কুন্দ্রা এবং তার সংস্থার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ জানান পুনম পাণ্ডে।অবশ্য ব্যবসায়িক রাজ কুন্দ্রা তার বিরুদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ নাকোচ করে দেন।

৫. স্বামীর বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ :- বছর দুয়েক লাইভ ইনে থাকার পরে চলতি বছরের ১লা সেপ্টেম্বর ফটোগ্রাফার স্যাম বম্বেকে (Sam Bombay) বিয়ে করেন পুনম পান্ডে।কিন্তু গোয়ায় মধুচন্দ্রিমায় গিয়ে আবারও বিতর্ক সৃষ্টি করেন পুনম।

দক্ষিণ গোয়ার ক্যানাকোনা থানায় স্বামী স্যাম বম্বের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ করেন। এই অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার হতে হয় স্যামকে। কিন্তু এই সমস্ত অভিযোগের পর্ব চললো মাত্র এক সপ্তাহ। এর পরে স্যামের পাশে গিয়ে দাড়ান পুনম। দুজনেরই বক্তব্য, পারস্পরিক ভুল বোঝাবুঝি মিটে গেছে।

৬. গোয়ায় স্বামীর সাথে অশ্লীল শ্যুট :- এই ঘটনার কিছুদিনের মধ্যেই আবারও বিতর্ক। পুনম এবং স্বামী স্যাম দুজনকেই গ্রেফতার করে গোয়া পুলিশ। অভিযোগ, দক্ষিণ গোয়ার ক্যানাকোনায় চাপোলি বাঁধের উপরে অশ্লীল ভিডিও শ্যুট করেছেন দম্পতি।

গোয়ার কালাঙ্গুটে এলাকার একটি পাঁচতারা হোটেল ছেড়ে রওনা দেওয়ার মুখেই গ্রেফতার হন দম্পতি।তবে ২০ হাজার টাকা করে দিয়ে শর্তসাপেক্ষে জামিন পেয়েছেন দম্পতি। আগামী ৬দিন স্থানীয় থানায় হাজিরা দিতে হবে তাদের।আদালতের অনুমতি ছাড়া গোয়া ছাড়তে পারবেন না তারা।