একসঙ্গে যতখুশি কথা বলুন ১০০ জনের সাথে, Jio আনলো নতুন অ্যাপ

all you need to know about jio meet app

ভারত চিন সংঘাতের পর ভারতে শুরু হয়েছে চিনা পণ্য বর্জন। পাশাপাশি কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে বাতিল করা হয়েছে ৫৯টি চিনা অ্যাপ। এখন দেশের মানুষ চিনা ছাড়াও বিদেশী অন্যান্য জিনিসকে বর্জন করে দেশীয় দিকে ঝুঁকছেন। অন্যদিকে সরকারিভাবেও চলছে ‘আত্মনির্ভর ভারত’ প্রকল্প।

এমত অবস্থায় ভারতের অন্যতম শিল্প সংস্থা রিলায়েন্স জিও নিয়ে এলো ভিডিও কনফারেন্সের ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তির অ্যাপ JioMeet। মে মাসে অ্যাপটিকে লঞ্চ করার পর বর্তমানে আরও ডেভলপ করা হয়েছে। পাশাপাশি নিযুক্ত করা হয়েছে বেশ কিছু নতুন ফিচার। আর দেশীয় এই অ্যাপ এবার Zoom-এর মতো বিদেশি ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপকে টেক্কা দেবে।

যেখানে ২৪ ঘণ্টা নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে ১০০ জন পর্যন্ত অনলাইন ভিডিয়ো চ্যাটে যুক্ত হতে পারবেন। গুগল প্লে-স্টোরে থাকা বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী, ‘জিওমিট’ হল ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ এইচডি (৭২০পি) ভিডিয়ো কনফারেন্সিং অ্যাপ, যেখানে ১:১ থেকে ১০০ জনের মধ্যে ভিডিয়ো কনফারেন্সিং চালানো যাবে। ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপগুলির মধ্যে যেহেতু Zoom বর্তমানে বিপুল জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছেছে সুতরাং এই অ্যাপের সাথে তুলনা করা হলে ভারতের দেশীয় প্রযুক্তির অ্যাপ JioMeet ব্যবহারকারীদের বাড়তি কি কি সুবিধা দিচ্ছে সেদিকে নজর রাখা যাক।

অ্যান্ড্রয়েড, উইন্ডোজ, আইওএস, ম্যাক, এসআইপি/এইচ.৩২৩ সিস্টেম-সহ সব অপারেটিং সিস্টেম থেকেই এই জিওমিট প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করা যাবে। আপাতত বিনামূল্যেই এই ‘ফ্রি-কলিং’ পরিষেবা মিলবে জিও’র তরফে। তবে আগামী দিনে কী হবে, তা নিয়ে এখনই মুখ খোলেননি কর্তৃপক্ষ। ফোন বাদ দিলে ল্যাপটপ বা ডেস্কটপে গুগল ক্রোম এবং মোজিলা ফায়ারফক্স থেকেও ব্যবহার করা যাবে জিওমিট

১) Zoom অ্যাপের ক্ষেত্রে ৪০ মিনিটের বাঁধাধরা সময় থাকে। JioMeet-এর ক্ষেত্রে কোনো রকম বাঁধাধরা সময় নেই। ইচ্ছে করলে ২৪ ঘন্টায় ভিডিও কনফারেন্স করা যাবে এই অ্যাপের মাধ্যমে।

২) JioMeet অ্যাপের মাধ্যমে HD কোয়ালিটির ভিডিও ও অডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে একসাথে ১০০ জন যুক্ত হতে পারবেন।

আরও পড়ুন :- Jio-র হাই স্পীড ইন্টারনেট পরিষেবা পাওয়া যাবে পশ্চিমবঙ্গের এই এই জেলায়

৩) JioMeet অ্যাপে স্ক্রিম শেয়ারিং এবং মিটিং শিডিউলের মত একাধিক ফিচার রয়েছে।

৪) প্রিমিয়াম ভার্সনের ক্ষেত্রে JioMeet অ্যাপ Zoom অ্যাপের তুলনায় অনেক কম খরচের।

৫) একসঙ্গে পাঁচটি আলাদা আলাদা ডিভাইসে ব্যবহার করা যাবে এই অ্যাপ।

৬) খুব সহজেই তৈরি করা যাবে নতুন গ্রুপ এবং সহজেই করা যাবে কলিং চ্যাট।

৭) Zoom অ্যাপে যেখানে একটি স্ক্রিনে একসাথে চারজনকে দেখা যায় সেখানে এই অ্যাপে একসঙ্গে নয় জনকে দেখা যাবে।

আরও পড়ুন :- Jio-র ইন্টারনেট স্পিড ৩ গুণ বাড়িয়ে নিন কয়েকটি সেটিং বদল করেই

JioMeet ব্যবহারের ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীদের সুরক্ষার জন্য ইমেইল আইডি এবং মোবাইল নম্বর দিয়ে সাইন আপ করতে হবে। প্রত্যেক কল অথবা কনফারেন্সের ক্ষেত্রে থাকবে পাসওয়ার্ড।