হলমার্ক ছাড়া সোনা কিনছেন, মাথায় রাখুন কয়েকটি বিষয়

বিয়ে হোক বা অন্যান্য অনুষ্ঠান সোনার গয়নার মতো চাহিদা আর কোনো ধাতুর নেই। একসময় দিদিমা, ঠাকুমারা বিভিন্নরকম সোনার গয়না বানিয়েছেন, সেই সোনার গয়না বৌমা, নাতনী, নাতবউ দের দিয়ে গেছেন। অর্থাৎ অনেকেই সোনার গয়না কিনে রাখেন যাতে ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত হয়। অনেকের ধারণা দুঃসময়ে বা প্রয়োজনে এই সোনার গয়না সবথেকে বেশি কাজে আসবে। বহুদিন ধরেই সোনার গয়নার সাথে এই হলমার্ক বিষয়টি অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িয়ে গিয়েছে। সোনার দোকানদার গয়না দেখিয়ে একগাল হেসে বলে ‘একেবারে খাঁটি সোনা’, আপনিও ভাবেন চেনাশোনা দোকানদার আপনাকে ঠকাবে না। কিন্তু কথায় আছে ‘ সোনার দোকানদার নাকি মায়ের গায়ের গয়না চুরি করে’। আপনি যাতে নিরাপদে গয়না কিনতে পারেন তার জন্য হলমার্ক রয়েছে। আগামী বছরের ১৫ই জানুয়ারি থেকে এই হলমার্ক বাধ্যতামূলক করেছে ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ড। অর্থাৎ হলমার্ক দেওয়া গয়নাই আপনাকে কিনতে হবে।

অনেকেই জানেন হলমার্ক কাকে বলে, আবার অনেকেই জানেন না হলমার্ক কি। আসলে খাঁটি সোনার গয়না বলে কিচ্ছু হয়না। সোনা এমন এক ধরণের ধাতু যা দিয়ে গয়না তৈরী করতে গেলে তাতে খাদ মেশাতেই হবে। কিন্তু গয়নার দোকানদার অথবা প্রস্তুতকারক ঠিক কতটা পরিমাণ খাদ মেশাচ্ছেন তার প্রমান এই হলমার্ক। গয়না প্রস্তুতকারক এই হলমার্ক গয়না বিক্রির সময় একটি কাগজ দেয় কাগজটিতে লেখা থাকে আপনার কেনা গয়নাটিতে কতটা পরিমাণ সোনা রয়েছে ও কতটা পরিমাণ খাদ মেশানো রয়েছে। ভারতে মোট ৫৭৮ টি হলমার্ক গয়না পরীক্ষনকেন্দ্র রয়েছে। এবং পশ্চিমবঙ্গে ৫৪ টি ও কোলকাতায় মোট ২৮ টি হলমার্ক পরীক্ষনকেন্দ্র রয়েছে।এই গয়না পরীক্ষনকেন্দ্র গুলিতে সোনার গয়না পরীক্ষা করাতে ৩৫ টাকা ও নির্ধারিত পরীক্ষনশুল্ক দিতে হয়।

ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ড তিনটি মাপকাঠিতে সোনার গয়নার শুদ্ধতা বিচার করে থাকে ২২ ক্যারেট, ১৮ ক্যারেট, ও ১৪ ক্যারেট। বিএসআই চিনহ, প্রস্তুতকারকের নাম, শুদ্ধতার গ্রেড, ও পরীক্ষনকেন্দ্রের নাম থাকে হলমার্ক গয়নার কাগজে। ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ড গ্রাহকদের অনুরোধ করছেন সোনার গয়নার বিশুদ্ধতা যাচাই করে তবেই যেন গ্রাহকরা সোনার গয়না কেনে। দিন দিন সোনার দাম বাড়ছে তাই সোনা কেনার আগে সচেতন থাকা জরুরি।

বহুমূল্য সোনা কিনতে গেলে দোকানদারেরা গ্রাহকদের ঠকানোর সুযোগ খোঁজে। তাই গ্রাহকরা যাতে সচেতন থাকে তাই বারবার হলমার্ক দেখে তবেই সোনার গয়না কিনতে অনুরোধ করা হয়েছে। আগামী বছরের ১৫ই জানুয়ারি থেকে প্রতিটি সোনার দোকান হলমার্ক ছাড়া গয়না বিক্রি করতে পারবেন না। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান বলেন, কোনো ক্রেতা যাতে সোনার গয়না কিনে না ঠকেন তাই হলমার্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। হলমার্কের মাধ্যমেই বোঝা যাবে সোনা কতটা খাঁটি।