সোনার প্রাসাদ, বিমান, ৭ হাজার গাড়ি; এই রাজার সম্পত্তি চোখ কপালে তুলবে

কথায় বলে- রাজার খেয়াল। প্রচলিত এই কথাটি রাজাদের চরিত্রকে খুব সুন্দর ভাবে প্রস্ফুটিত করে তোলে। খেয়ালে রাজারা কিনা করেন! তাদের শখ আমোদ আহ্লাদ সবই ভিন্ন রকম। আর এই ভিন্ন রকমের শখ মেটাতে তারা কত কিছুই না করেন! শোনা যায় রাজারা নিজেদের আভিজাত্য প্রকাশ্যের জন্য সোনার থালায় খেতেন। আবার বিশ্বে এমন ও রাজা আছেন যিনি নিজের জন্য সোনার প্রাসাদ বানিয়েছিলেন। অনেকেই সেই রাজার কথা কথা জানেন না।

বিপুল সম্পদের অধিকারী সেই সুলতানের সম্পত্তির পরিমাণ শুনলে ই মাথা ঘুরে যায়। ব্রুনেইয়ের সুলতান হাসানল বলকিয়াহ। ব্রুনের নদীর তীরে রয়েছে সেই প্রাসাদ। ১৯৮৪তে ব্রুনে ব্রিটিশদের আধিপত্য থেকে মুক্ত হ‌ওয়ার পর ই সেখানকার সুলতান হাসানল বলকিয়াহ সোনার প্রাসাদ  তৈরি করেন। এই প্রাসাদেই তিনি বসবাস করতেন। সুলতানের বসবাসের পাশাপাশি নানারকম প্রশাসনিক কাজও হয় এই প্রাসাদে। মোট ১৭০০ টি ঘর আছে এই প্রাসাদে,যার মধ্যে শৌচালয় ই রয়েছে  ২৫৭ টি আর ৫ টি সুইমিং পুল রয়েছে।

সোনার এই প্রাসাদের নাম হল ইস্তানা নুরুল ইমান। এই নামের অর্থ হলো-বিশ্বাসের আলোর প্রাসাদ। বিশ্বের সবচেয়ে বৃহত্তম এই প্রাসাদটি ২০ লক্ষ বর্গফুট এলাকা জুড়ে রয়েছে। তবে এই প্রাসাদটি পুরোটাই সোনায় মোড়া নয়,এই প্রাসাদের চূড়াটুকুই  ২২ ক্যারাট সোনা দিয়ে তৈরি। একমাত্র রমজান মাসের একটি উৎসব উপলক্ষেই সাধারণ মানুষ এই প্রাসাদে প্রবেশ করতে পারেন।রমজানের মাসের সেই উৎসবে ১ লাখের ও বেশি মানুষ আসেন এই প্রাসাদে।এছাড়া বছরের অনান্য সময় সাধারণ মানুষের এই প্রাসাদে প্রবেশের অনুমতি নেই।

এই প্রাসাদটি ছাড়াও আর‌ও একটি প্রাসাদ আছে,সেই প্রাসাদটির নাম ঐ রাজপরিবারের নামে ই আছে। হাউস অব বালকিয়াহ নামের ওই প্রাসাদটি ১৪ শতকে গড়ে ওঠে,তবে রাজপরিবারের নামে ওই প্রাসাদের নামকরণ শুরু থেকেই ছিল না পরবর্তীকালে হয়েছে তা ঠিক স্পষ্ট নয়। এই ব্যাপারে ইতিহাসবিদরা ও সঠিক ধারণা দিতে পারেন না।

বর্তমানে ব্রুনে ২৯ তম সুলতান হাসানাল বলকিয়াহ  ক্ষমতায় আসীন আছেন।ইনি বিশ্বের অন্যতম একজন ধনী প্রধানমন্ত্রী। ২০০৮ সালে তথ্য অনুযায়ী তার সম্পত্তির পরিমাণ ২ হাজার কোটি ডলার। ব্রুনের বিপুল তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস ই সুলতানের বিপুল সম্পদের উৎস। অনেক ইতিহাসবিদের মতে বর্তমান সুলতান বা প্রধানমন্ত্রীর নামেই  বলকিয়াহ প্রাসাদের নামকরণ হয়েছে। তবে পরবর্তীকালে যখন ইস্তানা নুরুল ইমান নামের সোনার প্রাসাদ তৈরি হয়, তখন স্বাভাবিকভাবেই ঐ প্রাসাদ ম্রিয়মান হয়ে পড়ে।

সোনার প্রাসাদ ছাড়াও সুলতানের ৭ হাজার গাড়ি রয়েছে। যেগুলো রাখার জন্যই ১১০ টি গ্যারেজ রয়েছে। এছাড়া সুলতানের প্রিয় ২২০ টি পোলো ঘোড়ার জন্য  শীততাপ নিয়ন্ত্রিত আস্তাবল ও আছে। এছাড়া  সোনার পাত বসানো বিমান ও আছে সুলতানের। ২০১৭ এর ৫ অক্টোবর  সুলতান হাসানাল বলকিয়াহ ৫০ বছর পূর্তি উৎসব হয়। উল্লেখ্য, কুইন এলিজাবেথ এর পর এই সুলতান বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সময় ধরে রাজত্ব করেছেন।